উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন | HS Political Science Suggestion (WBCHSE) with PDF | WiN EXAM

0
31

উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন | HS Political Science Suggestion

উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন | HS Political Science Suggestion (WBCHSE) with PDF | WiN EXAM

উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন  | HS Political Science Suggestion  নিচে দেওয়া হল। এই প্রশ্নোত্তর এবার পশ্চিমবঙ্গ উচ্চ মাধ্যমিক শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান  ( WB HS Political Science Suggestion | West Bengal Higher Secondary Political Science Suggestion  | WBCHSE Board Class 12th Political Science Question and Answer)  পরীক্ষার জন্য খুব ইম্পর্টেন্ট । আপনারা যারা উচ্চ  | মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন  | HS Political Science Suggestion | WBCHSE Board Higher Secondary Class 12th Political Science Suggestion  Question and Answer খুঁজে চলেছেন, তারা নিচে দেওয়া প্রশ্ন ও উত্তর ভালো করে পড়তে পারেন। 

উচ্চমাধ্যমিক দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন প্রশ্ন ও উত্তর | West Bengal Higher Secondary Political Science Suggestion | WBCHSE Board Class 12th Question and Answer with PDF

উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন  (HS Political Science Suggestion ) অধ্যায় ভিত্তিক অতিসংক্ষিপ্ত, সংক্ষিপ্ত ও রোচনাধর্মী প্রশ্নউত্তর (MCQ Type, Short, Descriptive Question & answer) এবং PDF ফাইলের ডাউনলোড লিঙ্ক নিচে দেওয়া রয়েছে।

আন্তর্জাতিক সম্পর্ক | উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন | HS Political Science Suggestion

রচনাধর্মী প্রশ্নোত্তর [ মান – ৮ ]

1. ক্ষমতা কাকে বলে? ক্ষমতার উপাদানগুলি আলোচনা করো।

2. জাতীয় স্বার্থ কাকে বলে? বৈদেশিক নীতি নির্ধারণে জাতীয় স্বার্থের ভূমিকা উল্লেখ করো।

3. আন্তর্জাতিক সম্পর্কের বিকাশধারা সংক্ষেপে আলোচনা করো।

অথবা, শাস্ত্র হিসেবে আন্তর্জাতিক সম্পর্কের বিকাশের উপর একটি সংক্ষিপ্ত আলোচনা করো।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ পরবর্তী পর্বের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক | উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন | HS Political Science Suggestion

MCQ প্রশ্নোত্তর

সঠিক উত্তরটি নির্বাচন করো।
1. ‘ঠান্ডা লড়াই’ শব্দটি প্রথম কে প্রয়োগ করেন?

(a) টুমান (b) বার্নার্ড বারুচ (c) চার্চিল (d) গর্বাচেভ

Ans. (b) বার্নার্ড বারুচ

2. বেলগ্রেড সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়

(a) 1958 খ্রিস্টাব্দে (b) 1955 খ্রিস্টাব্দে (c) 1961 খ্রিস্টাব্দে (d) 1965 খ্রিস্টাব্দে

Ans. (c) 1961 খ্রিস্টাব্দে

3. ‘ওয়ারেশ চুক্তি’ গঠিত হয় কার উদ্যোগে ?

(a) সোভিয়েত ইউনিয়ন (b) ব্রিটেন (c) ফ্রান্স (d) মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র

Ans. (a) সোভিয়েত ইউনিয়ন

4. টুম্যান কত সালে তার পরিকল্পনার কথা বলেন?

(a) ১৯৪৬ সাল (b) ১৯৪৭ সাল (c) ১৯৪৮ সাল (d) ১৯৪৯ সাল

Ans. (b) ১৯৪৭ সাল

5. জেনিভা সম্মেলন কোন বছর অনুষ্ঠিত হয়?

(a) ১৯৫৪ সালে (b) ১৯৫৫ সালে (c) ১৯৫৬ সালে (d) ১৯৫৭ সালে

Ans. (a) ১৯৫৪ সালে

6. সুয়েজ খাল জাতীয়করণ কোন বছর হয়?

(a) ১৯৫৩ সালে (b) ১৯৫৪ সালে (c) ১৯৫৫ সালে (d) ১৯৫৬ সালে

Ans. (d) ১৯৫৬ সালে

7. জোটনিরপেক্ষ আন্দোলনের জনক –

(a) রাজীব গান্ধি (b) ইন্দিরা গান্ধি (c) জওহরলাল নেহেরু (d) সুকর্ণ

Ans. (c) জওহরলাল নেহেরু

8. ঠান্ডা যুদ্ধে কারা মহাশক্তিধর রাষ্ট্র ছিল ?

(a) জাপান ও ভারত (b) চিন ও রাশিয়া (c) সোভিয়েত ইউনিয়ন ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র (d) আমেরিকা ও চিন

Ans. (c) সোভিয়েত ইউনিয়ন ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র

9. দ্বিতীয় মহাযুদ্ধের সমাপ্তি ঘটে –

(a) ১৯৪০ খ্রি: (b) ১৯৪১ খ্রি: (c) ১৯৪৫ খ্রি: (d) ১৯৫০ খ্রি:

Ans. (c) ১৯৪৫ খ্রি:

10.ন্যাটো’ গঠিত হয় কার উদ্যোগে ?

(a) জাপান (b) ভারত (c) মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র (d) সোভিয়েত রাশিয়া

Ans. (c) মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র

11. ভারত – পাক সিমলা চুক্তি সম্পাদিত হয়েছিল

(a) ১৯৬৯ (b) ১৯৭০ (c) ১৯৭১ (d) ১৯৭২

Ans. (d) ১৯৭২

12. বর্তমানে সার্ক’-এর সদস্যসংখ্যা

(a) ৭ (b) ৮ (c) ৯ (d) ১০

Ans. (b) ৮

13. ঠান্ডা যুদ্ধকে গরম শান্তি’ বলে চিহ্নিত করেছেন

(a) চার্চিল (b) বানেট (c) টুম্যান (d) ফ্রিডমান

Ans. (b) বানেট

14. জোটনিরপেক্ষ আন্দোলনের প্রথম শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় –

(a) বান্দুং-এ (b) বেলগ্রেডে (c) কলম্বােয় (d) নিউইয়র্ক-এ

Ans. (b) বেলগ্রেডে

15.——–এর দশকে ঠান্ডা যুদ্ধের অবসান ঘটে।

(a) ১৯৩০ (b) ১৯৮ (c) ১৯৬০ (d) ১৯৯০

Ans. (d) ১৯৯০

16.তেহরান সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছিল

(a) ১৯৪৮ সালে (b) ২০১২ সালে (0) 00৯ সালে (d) ২০০৭ সালে

Ans. (b) ২০১২ সালে

17.জোটনিরপেক্ষ আন্দোলন শুরু হয়েছিল ——- সদস্য নিয়ে

(a) ২০ জন (b) ২৫ জন (c) ৩৫ জন (d) 40 জন

Ans. (b) ২৫ জন

18. ১৯৮৩ খ্রিঃ জোটনিরপেক্ষ শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

(a) দিল্লিতে (b) মুম্বাইয়ে (c) চেন্নাইতে (d) কলকাতা

Ans. (a) দিল্লিতে

19. বান্দুং সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

(a) ১৯৫৫ খ্রিঃ (b) ১৯৬১ খ্রিঃ (c) ১৯৬৪ সি (d) ১৯৬৫ খ্রিঃ

Ans. (a) ১৯৫৫ খ্রিঃ

20. জাতিপুঞ্জের মানবাধিকার-সংক্রান্ত ঘোমলা জারি হয়–

(a) ১৯৪৫ খ্রিঃ (b)১৯৮৮ খ্রিঃ (C)১৯৫৫ খ্রিঃ (d) ১৯৬০ খ্রিঃ

Ans. (b)১৯৮৮ খ্রিঃ

21. মিশরের জোটনিরপেক্ষ আন্দোলনের নেতা —

(a) নাসের (b) টিটো (c) সুকর্ণ (d) জওহরলাল নেহেরু

Ans. (a) নাসের

22. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র কবে থেকে “মনরো নীতি গ্রহণ করে ?

(a) ১৮২১ সাল (b) ১৮২২ সাল (c) ১৮২৩ সাল (d) ১৮২৪ সাল

Ans. (c) ১৮২৩ সাল

23. প্রথম পারমাণবিক বোমায় আক্রান্ত দেশটির নাম উল্লেখ করো

(a) জাপান (b) আমেরিকা (c) ব্রিটেন (d) কোরিয়া

Ans. (a) জাপান

24. মিউনিখ চুক্তি কোন বছর স্বাক্ষরিত হয়?

(a) ১৯৩৫ সাল (b) ১৯৩৬ সাল (c) ১৯৩৭ সাল (d) ১৯৩৮ সাল

Ans. (d) ১৯৩৮ সাল

25. ইয়াল্টা সম্মেলন কবে অনুষ্ঠিত হয়?

(a) ১৯৪২ সাল (b) ১৯৪৩ সাল (c) ১৯৪৪ সাল (d) ১৯৪৫ সাল

Ans. (d) ১৯৪৫ সাল

26. মার্শাল পরিকল্পনা কোন বছর থেকে কার্যকর হয়?

(a) ১৯৪৫ সাল (b) ১৯৪৬ সাল (c) ১৯৪৭ সাল (d) ১৯৪৮ সাল

Ans. (d) ১৯৪৮ সাল

27. বার্লিন অবরোধ’ কোন দেশ করে?

(a) মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র (b) সোভিয়েন ইউনিয়ন (c) ব্রিটেন (d) ফ্রান্স

Ans. (b) সোভিয়েন ইউনিয়ন

28.বার্লিন অবরোধ’ কোন বছর প্রত্যাহূত হয়?

(a) ১৯৪৯ সাল (b) ১৯৫০ সাল (c) ১৯৪৭ সাল (d) ১৯৪৮ সাল

Ans. (a) ১৯৪৯ সাল

অতিসংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর [ মান – 1 ]

1. NAM-এর একটি নীতি উল্লেখ করে।

Ans.NAM-এর একটি গুরত্বপূর্ণ নীতি হলো মৌলিক মানবিক অধিকার ও জাতিপুঞ্জের সনদে বর্ণিত উদ্দেশ্য ও লক্ষ্যের প্রতি মর্যাদা দেওয়া। C

2. জোটনিরপেক্ষ আন্দোলনের দু’জন মুখ্য প্রবক্তার নাম লেখো।

Ans. জোটনিরপেক্ষ আন্দোলনের দু’জন মুখ্য প্রবক্তার নাম হলো—ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী পণ্ডিত জওহরলাল নেহেরু ও যুগোশ্লাভিয়ার রাষ্ট্রপতি মার্শাল টিটো।

3. বর্তমানে জোটনিরপেক্ষ আন্দোলনের সদস্য কত?

Ans. ১২০টি দেশ।

4. প্রথম বিশ্বযুদ্ধ কবে শুরু হয়েছিল?

Ans. ১৯১৪ সালের ২৮ জুলাই।

5. প্রথম বিশ্বযুদ্ধ কবে শেষ হয় ?

Ans. ১৯১৯ সালের ২৮ জুন

6. ন্যাটো চুক্তি কবে স্বাক্ষরিত হয়?

Ans. ১৯৪৯ সালের ৪ এপ্রিল।

7. ওয়ারশ চুক্তি কবে স্বাক্ষরিত হয়?

Ans. ১৯৫৫ সালের ১৪ মে।

8. কমিনফর্ম’ গঠনের উদ্দেশ্য কী ছিল?

Ans. বিভিন্ন দেশের কমিউনিস্ট পার্টির কাজকর্মের মধ্যে সমন্বয় সাধন করা।

9. ‘কোমেকন’ কী জন্য গড়ে উঠেছিল?

Ans. সোভিয়েত ইউনিয়ন ও পূর্ব ইউরোপের সমাজতান্ত্রিক দেশগুলির মধ্যে রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক সংহতি বৃদ্ধির উদ্দেশ্যে ‘কোমেকন’ গঠিত হয়।

10.ওয়ারশ জোটের সটিলাকায় কোথায় ছিল?

Ans. মস্কোতে।

11. ভারত ও চিনের মধ্যে পএশীল চকি কৰে অনষ্ঠিত হয়?

Ans. ১৯৫৪ সাল।

12. জোটনিরপেক্ষ দেশগুলির প্রথম সম্মেলন কোন শহরে তানষ্ঠিত হয়?

Ans. কায়রো ।

13. জোটনিরপেক্ষ দেশগুলির প্রথম সম্মেলন কোন বছর অনুষ্ঠিত হয়?

Ans. ১৯৫৯ সাল।

14. কোন বছর আনুষ্ঠানিকভাবে ঠান্ডা লড়াই-এর অবসানের কথা ঘোষিত হয়?

Ans. ১৯৯০ সালের ২ জুন।

15.জর্জ মার্শাল কে ছিলেন?

Ans. মার্কিন পররাষ্ট্র সচিৰ।

16. কিউবাতে কার নেতৃত্বে সমাজতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হয়?

Ans. ফিদেল কাস্ত্রো।

17. দেতাঁত কী

Ans. উওর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও সোভিয়েত ইউনিয়নের মধ্যে পারস্পরিক দ্বন্দ্বের পরিবর্তে সহযোগিতার বাতাবরণ সৃষ্টিকে দেতাঁত বলে।

18. কার নেতৃত্বে সমাজতান্ত্রিক জোট গঠিত হয়েছিল?

Ans. সোভিয়েত ইউনিয়নের নেতৃত্বে সমাজতান্ত্রিক জোট গঠিত হয়েছিল।

19. ‘মিত্রশক্তি কোন কোন দেশকে নিয়ে গড়ে উঠেছিল?

Ans. ব্রিটেন, ফ্রান্স, আমেরিকা ও সোভিয়েত ইউনিয়ন।

20. ‘অক্ষশক্তি কোন কোন দেশকে নিয়ে গড়ে উঠেছিল?

Ans. জার্মানি, ইতালি, জাপান ও স্পেন।

21. মিত্রশক্তি’-র মধ্যে কোন সমাজতান্ত্রিক দেশ ছিল?

Ans. সোভিয়েত ইউনিয়ন।

22. ফ্রিডম্যান-এর মতে ঠান্ডা লড়াই বলতে কী বোঝায়?

Ans. ঠান্ডা লড়াই হলো গরম শান্তি।

23. সুয়েজ সংকট কবে দেখা দেয়?

Ans. ১৯৫৬ খ্রিস্টাব্দে সুয়েজ সংকট দেখা দেয়।

24. কিউবার সংকট কবে দেখা দেয়?

Ans. ১৯৫৯ খ্রিস্টাব্দে কিউবায় সংকট দেখা দেয়।

25. চার্চিল কোন সালে ফুলটন বক্তৃতা দিয়েছিলেন?

Ans. চার্চিল ১৯৪৬ সালে ফুলটন বক্তৃতা দিয়েছিলেন।

26. NAM-এর পুরো কথাটি কী?

Ans. NAM-এর পুরো কথাটি হলো Non Aligned Movement,

27. দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধোত্তর পর্বে পশ্চিমি দেশগুলির সামরিক জোটের নাম কী ?

Ans. দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধোত্তর পর্বে পশ্চিমি দেশগুলির সামরিক জোটের নাম হলো ΝΑΤΟΙ

28. ট্রম্যান নীতি কবে ঘোষিত হয় ?

Ans. ১৯৪৭ খ্রিস্টাব্দে টুম্যান নীতি ঘোষিত হয়।

29. বর্তমানে বিশ্ব-রাজনীতি কোন মেরুকরণের দিকে চলেছে?

Ans. বর্তমানে বিশ্ব-রাজনীতি একমেরুকরণের দিকে চলছে।

30. রাষ্ট্রপতি ট্রম্যানের পররাষ্ট্র সচিব কে ছিলেন?

Ans. জর্জ সি. মার্শাল ছিলেন টুম্যানের পররাষ্ট্র সচিব।

31. কোন বিশ্বের দেশগুলি জোটনিরপেক্ষ আন্দোলনে নেতৃত্ব দেয়?

Ans. তৃতীয় বিশ্বের দেশগুলি জোটনিরপেক্ষ আন্দোলনে নেতৃত্ব দেয়।

32. জোটনিরপেক্ষতার মূল উৎস কী?

Ans. ১৯৫৪ খ্রিস্টাব্দের পঞশীল নীতি হলো জোটনিরপেক্ষতার মূল উৎস।

33. কবে সোভিয়েত ইউনিয়নের পতন ঘটে ?

Ans. ১৯৯১ খ্রিস্টাব্দে সোভিয়েত ইউনিয়নের পতন ঘটে।

34. চিন নিরাপত্তা পরিষদে স্থায়ী সদস্যপদ কোন বছর লাভ করে?

Ans. ১৯৭১ সালে।

35. পেরেটস্ত্রোইকা’ ও গ্লাসনোস্ত’ নীতি দু’টির উদগাতা কে ছিলেন ?

Ans. প্রাক্তন সোভিয়েত রান মিখাইল গর্বাচেভ।

36. পেরেজোইকা লাতে কী লোনা ?

Ans. পেরেৱোইনা বলতে , পরিবর্তন ও সংস্কার সাধনকে বোঝায়।

37. বান্দুং সম্মেলনে ক’টি দেশ যোগদান করেছিল ?

Ans. ২৯টি দেশ।

38. বান্দুং সম্মেলনে গৃহীত নীতিগুলি কী নামে পরিচিত?

Ans. বান্দুং’এর দশটি নীতি।

বিদেশনীতি | উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন  | HS Political Science Suggestion 

MCQ প্রশ্নোত্তর

সঠিক উত্তরটি নির্বাচন করো।

1. পঞশীল চুক্তি স্বাক্ষরিত হয় কোন সালে?

(a) 1945 সালে (b) 1950 সালে (c) 1954 সালে (d) 1972 সালে

Ans. (c) 1954 সালে

2. কাশ্মীর সমস্যা সমাধানের জন্য পাকিস্তানের সঙ্গে। ভারত সিমলা চুক্তি সম্পাদন করেছিল ………. সালে।

(a) ১৯৯৬ (b) ১৯৭১ (c) ১৯৭২ (d) ১৯৭৫

Ans. (c) ১৯৭২

3. আঞ্চলিক সহযোগিতার ক্ষেত্রে দক্ষিণ এশিয়ার সংগঠন

(a) SAFTA (b) NATO (c) SAARC (d) ASEAN

Ans. (c) SAARC

4. SAARC (সার্ক) গঠনের সময় এর সদস্যসংখ্যা ছিল—

(a) 7 (b) 8 (c) 9 (d) 10

Ans. (a) 7

5. “The Limits of Foreign Policy লেখক–

(a) চার্লস বার্টল মশাল (b) জোসেফ (c) মর্গেন (d) হার্টম্যান

Ans. (a) চার্লস বার্টল মশাল

6. The making of Foreign Policy” লেখক

(a) চার্লস বার্টল মশাল (b) জোসেফ (c) মর্গেন (d) হার্টম্যান

Ans. (b) জোসেফ

7. বিদেশনীতির প্রধান উদ্দেশ্য –

(a) ক্ষমতা প্রদর্শন (b) অন্য রাষ্ট্রের অভ্যন্তরীণ প্রায়ে হস্তক্ষেপ (c) জাতীয় স্বার্থ রক্ষা করা (d) ভতিদর্শন করা

Ans. (c) জাতীয় স্বার্থ রক্ষা করা

8. ভারত পরীক্ষামূলকভাবে পরমাণু বিস্ফোরণ ঘটায় –

(a) ১৯৯৮ খ্রিঃ (b)১৯৯৯ খ্রিঃ (c) ২০০১খ্রিঃ। (d)২০০৫ খ্রিঃ

Ans. (a) ১৯৯৮ খ্রিঃ

9.ভারতের প্রমাণ নাতির মূলকথা –

(a) First Strike (b) No first Strike (c) Attack More (d) Destruct Strike

Ans. (b) No first Strike

10.পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে বৈদেশিক নীতির মস্তক

(a) নিকলসন (b) মরগেন থাউ (c) অরগানস্কি (d) চাইল্ডস

Ans. (b) মরগেন থাউ

11. সিমলা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয় –

(a) 1962 সালে (b) 1965 সালে (c) 1965 সালে (d) 1972 সালে

Ans. (d) 1972 সালে

12. সাকটা’ গঠনের প্রস্তাব সার্ক সম্মেলনে গৃহীত হয় –

(a) 1989 সালে (b) 1990 সালে। (c) 1991 সালে (d) 1992 সালে

Ans. (c) 1991 সালে

13. আঞ্চলিক সহযোগিতা বৃদ্ধির জন্য দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার সংগঠনটি হলো –

(a) NATO(b) Warsaw (c) SAARCY (d) ASEAN

Ans. (d) ASEAN

14. বর্তমান সার্কের সদস্যরাষ্ট্রের সংখ্যা হলো –

(a) 7 (b) 8 (c) 9 (d) 10

Ans. (b) 8

15. ১৯৮৫ খ্রিস্টাব্দে সার্ক গঠনের প্রস্তাব গৃহীত হয়—

(a) কাঠমান্ডুতে (b) ঢাকায় (C) নয়াদিল্লিতে (d) কলম্বােতে।

Ans. (b) ঢাকায়

16.জওহরলাল নেহেরু কোন জোটকে বিশ্বশান্তি রক্ষার প্রকৃষ্ট জোট বলে মনে করেন?

(a) ন্যাটো (b) ওয়ারশ (c) জোটনিরপেক্ষ (d) সিয়াটো

Ans. (c) জোটনিরপেক্ষ

17. কত সালের মধ্যে দক্ষিণ এশীয় অঞ্চলকে একটি মুক্ত বাণিজ্যিক অঞ্চল’ হিসেবে গড়ে তোলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়?

(a) ২০১৪ সাল (b) ২০২৫ সাল (c) ২০২৬ সাল (d) ২০২৭ সাল

Ans. (b) ২০২৫ সাল

18. কোন দেশের বাধাদানের ফলে চিন এখনো সার্ক-গ্রর সদস্যপদ পায়নি?

(a) শ্রীলঙ্কা (b) ভারত (c) বাংলাদেশ (d) নেপাল

Ans. (b) ভারত

19. ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে লাহোর ঘোষণাপত্র’ স্বাক্ষরিত হয়েছিল –

(a) ১৯৯৯ সালে (b) ১৯৯৮ সালে (c) ১৯৯৫ সালে (d) ১৯৯৭ সালে

Ans. (a) ১৯৯৯ সালে

20. ভারতের পররাষ্ট্রনীতির একটি মূল বৈশিষ্ট্য হলো –

(a) শিক্ষার প্রসার (b) অন্য রাষ্ট্রকে অধীনে আনা (c) পঞ্চশীল নীতির অনুসরণ (d) কোনোটাই ঠিক নয়

Ans. (c) পঞ্চশীল নীতির অনুসরণ
অতিসংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর [ মান – ১ ]

1. ভারতের বিদেশনীতির প্রধান স্তম্ভ কী?

Ans. ভারতের বিদেশনীতির প্রধান স্তম্ভ হলো জোটনিরপেক্ষতার নীতি।

2. যেকোনো একটি পশীল নীতি উল্লেখ করো।

Ans. পঞশীল নীতির অন্যতম হলো শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান।

3. “BRICS” কী ?

Ans. “BRICS” হলো রাশিয়া, ভারত, ব্রাজিল, চিন, এবং দক্ষিণ আফ্রিকাকে নিয়ে 2006 খ্রিস্টাব্দে গঠিত নৈতিক সহযোগিতা সংস্থা।

4. G-77 ললাতে না বলে ?

Ans. G-77 হলে UNO দ্বারা গঠিত 77টি সদস্য রাষ্ট্র নিয়ে গঠিত একটি বাণিজ্য উন্নয়নকারী সংস্থা। এটি 1954 সালের 15 জুন গঠিত হয়।

5. ‘সিমলা চুক্তি’ কোন দুটি দেশের মধ্যে সম্পাদিত হয় ?

Ans. ভারত ও পাকিস্তান। [2)

6. বিদেশনীতি কাকে বলে?

Ans. আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে রাষ্ট্র যে কাজগুলি করে তার সমষ্টি হলো বিদেশনীতি।

7. বিদেশনীতির প্রধান উদ্দেশ্য কী?

Ans. কোন বিদেশনীতির প্রধান উদ্দেশ্য রাষ্ট্রের জাতীয় স্বার্থ রক্ষা করা।

8. ‘কমনওয়েলথ’ কী ?

Ans. কমনওয়েলথ হলো স্বাধীন রাষ্ট্রগুলির এক স্বেচ্ছামূলক প্রতিষ্ঠান।

9. গ্যাট (GATT) কী? অথবা, গ্যাট-এর পুরো নাম কী ?

Ans. জেনারেল এগ্রিমেন্ট অন ট্যারিফস অ্যান্ড ট্রেড (GATT)।

10. সার্ক (SAAR(c) -এর পুরো নাম কী ?

Ans. সাউথ এশিয়ান অ্যাসোসিয়েশন ফর রিজিওনাল কো-অপারেশন।

11. সার্কের একটি টেকনিক্যাল কমিটির নাম লেখো।

Ans. কর্মসূচি রূপায়ণ সম্পর্কিত কমিটি।

12. বিদেশনীতির অভ্যন্তরীণ উপাদানগুলি কী?

Ans. ভৌগোলিক অবস্থান, জনসংখ্যা, জাতীয় ঐতিহ্য, জাতীয় সংস্কৃতি ও মূল্যবোধ, রাজনৈতিক নেতৃত্ব, জনমত প্রভৃতি। 13. বিদেশনীতির বাহ্যিক উপাদানগুলি কী?

Ans.বিশ্ব রাজনৈতিক পরিস্থিতি, বিশ্ব জনমত, প্রতিবেশী রাষ্ট্রের ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়া।

14. সার্কের সনদে মোট ধারার সংখ্যা কত?

Ans. মোট ধারার সংখ্যা ১০।

15. সার্কের একটি দুর্বলতা চিহ্নিত করো।

Ans. সদস্য রাষ্ট্রগুলির অভ্যন্তরীণ বিবাদ।

16. ভিয়েতনাম যুদ্ধে মার্কিন আগ্রাসনে ভারতের ভূমিকা কী ছিল?

Ans. ভিয়েতনাম যুদ্ধে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক আগ্রাসনকে ভারত মেনে নেয়নি।

17. আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে একটি নিরপেক্ষ রাষ্ট্রের নাম উল্লেখ করো।

Ans. সুইজারল্যান্ড।

18. SAFTA (সাফটা) বলতে কী বোঝো?

Ans. SAFTA’ হলো সার্কভুক্ত দেশগুলির জন্য বিশেষ সুবিধাপ্রাপ্ত বাণিজ্যিক এলাকা গঠনের একটি উদ্যোগ।

19. সার্কের প্রথম শীর্ষ সম্মেলন কোথায় অনুষ্ঠিত হয়?

Ans. সার্কের প্রথম শীর্ষ সম্মেলন বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকায় অনুষ্ঠিত হয়।

20.পররাষ্ট্রনীতির সংজ্ঞা দাও।

Ans. একটি রাষ্ট্রের বৈদেশিক সম্পর্ক যে নীতির মাধ্যমে পরিচালিত হয় তাকে পররাষ্ট্রনীতি বলে।

21. সার্কের যেকোনো চারটি সদস্য রাষ্ট্রের নাম লেখো।

Ans. ভারত, বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, ভুটান ও নেপাল।

22. ‘সার্ক’-এর কবে উদ্ভব হয়? অথবা, কবে সার্ক প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল ?

Ans. ১৯৮৫ সালের ৮ ডিসেম্বর।

23. সার্কের একটি সীমাবদ্ধতা উল্লেখ করো।

Ans. সার্কের একটি সীমাবদ্ধতা হলো দক্ষিণ এশিয়ায় সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলায় সদস্য রাষ্ট্রগুলির সম্মিলিত প্রয়াস গ্রহণের অভাব।

24. সার্কের একটি উদ্দেশ্য উল্লেখ করো।

Ans. সার্কের একটি উদ্দেশ্য হলো দক্ষিণ এশিয়ার মানুষের কল্যাণ সাধন ও জীবনযাপনের মান উন্নয়ন।

25. ভারতের পরমাণু নীতির মূলকথা কী ?

Ans. ভারতের পরমাণু নীতির মূল কথা হলো প্রথম আঘাত নয়।

26. সার্কের একটি নীতি উল্লেখ করো।

Ans. এই ধরনের সহযোগিতা দ্বিপাক্ষিক বা বহুপাক্ষিক সহযোগিতার বিকল্প নয়, তার অনুপূরক।

27. ভারতের বিদেশনীতির মূল উপাদান কী?

Ans.ভারতের বিদেশনীতির মূল উপাদান হলো জাতীয় মুক্তি আন্দোলনকে সমর্থন করা।

28. কে প্রথম সার্ক’ গঠনের প্রস্তাব দেন ?

Ans.বাংলাদেশের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি হোসেইন মুহম্মদ এরশাদ সার্ক’ গঠনের প্রস্তাব দেন।

29. প্রকৃত অর্থে জোটনিরপেক্ষতা বলতে কী বোঝায়?

Ans. জাতীয় স্বার্থ অনুযায়ী স্বাধীন নীতির অনুসরণকে জোটনিরপেক্ষতা বলে।

30. ভারতের পররাষ্ট্রনীতির লক্ষ্য কী?

Ans. বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠা।

সম্মিলিত জাতিপুঞ্জ | উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন  | HS Political Science Suggestion 

MCQ প্রশ্নোত্তর

সঠিক উত্তরটি নির্বাচন করো।

1. UNO-র প্রথম মহাসচিব ছিলেন

(a) কোফি আন্নান (b) ট্রিগভি লি (c) ইউ থান্ট (d) বান কি-মুন

Ans. (b) ট্রিগভি লি

2. সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের সনদে ধারার সংখ্যা

(a) 110 (b) 111 (c) 1127 (d) 115

Ans. (b) 111

3. সাধারণ সভার বর্তমান সদস্য সংখ্যা হলো

(a) 1787 (b) 190 (c) 192 (d) 193

Ans. (d) 193

4. সাধারণ সভায় প্রতি সদস্য সর্বাধিক কতজন প্রতিনিধি পাঠাতে পারে ?

(a) ১ (b) ২ (c) ৪ (d) ৫

Ans. (d) ৫

5. সাধারণ সভায় শান্তির জন্য ঐক্যের প্রস্তাব গৃহীত হয় কত খ্রিস্টাব্দে?

(a) ১৯৪০ (b) ১৯৪৮ (c) ১৯৫০ (d) ১৯৫১

Ans. (c) ১৯৫০

6. OUN মহাসচিবের কার্যকাল হলো –

(a) ৫ বছর (b) ৭ বছর (C) ১৯ বছর (d) ৮ বছর

Ans. (a) ৫ বছর

7. UNO -র সনদে উদ্দেশ্যের সংখ্যা—

(a) চার (b) পাঁচ (c) ছয় (d) সাত

Ans. (a) চার

8. অর্থনৈতিক ও সামাজিক পরিষদের সদস্যসংখ্যা –

(a) ৫০ (b) ৫৪ (c) ৫৫ (d) ৬০

Ans. (b) ৫৪

9. নিরাপত্তা পরিষদের মোট সদস্যসংখ্যা –

(a) ১০ (b) ১১ (c) ১৫ (d) ২০

Ans. (c) ১৫

10. UNO-র সনদে নীতির সংখ্যা হলো –

(a) ৬ (b) ৭ (c) ১০ (d) ১৫

Ans. (b) ৭

11. ভেটো প্রদানের ক্ষমতা আছে কেবলমাত্র

(a) সাধারণ সভার (b) নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্যদের (c) আন্তর্জাতিক আদালতের (d) অছি পরিষদের

Ans. (b) নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্যদের

12. সম্মিলিত জাতিপুঞ্জ প্রতিষ্ঠিত হয়

(a)1944-এর 24 অক্টেবর (b) 1945-এর 24 অক্টোবর (c) 1947-এর 15 আগস্ট (d) 1950-এর 26 জানুয়ারি

Ans. (b) 1945-এর 24 অক্টোবর

13. সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের আইনসভা হলো –

(a) সাধারণ সভা (b) অর্থনৈতিক ও সামাজিক পরিষদ (c) নিরাপত্তা পরিষদ (d) কর্মদপ্তর

Ans. (a) সাধারণ সভা

14. UNO প্রতিষ্ঠিত হয় –

(a) ১৯৪৫ খ্রিঃ (b) ১৯৪৮ খ্রিঃ (c) ১৯৫০ খ্রিঃ (d) ১৯৫২ খ্রিঃ

Ans. (a) ১৯৪৫ খ্রিঃ

15. সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের অঙ্গের সংখ্যা –

(a) ৭টি (b) ৬টি (c) ৫টি (d) ৪টি

Ans. (b) ৬টি

16. UNO-র সাধারণ সভায় সহ-সভাপতির সংখ্যা –

(a) ২১ (b) ২২ (c) ২৫ (d) ২৮

Ans. (a) ২১

17. নিরাপত্তা পরিষদের অস্থায়ী সদস্যরাষ্ট্রের সংখ্যা

(a) ৯ (b) ১০ (c) ১৩ (d) ১৫

Ans. (b) ১০

18. আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থার বর্তমান সদস্যসংখ্যা কত?

(a) ১৮৫ (b) ১৮৬(c) ১৮৭ (d) ১১৮

Ans. (a) ১৮৫

19. আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থার সদর কার্যালয় কোথায় অবস্থিত?

(a) লন্ডন (b) প্যারিস (c) জেনেভা (d) ওয়াশিংটন

Ans. (c) জেনেভা

20. ইউনেস্কোর বর্তমান সদস্যসংখ্যা কত?

(a) ১৯৫ (b) ১৯৬ (c) ১৯৭ (d) ১৯৮

Ans. (d) ১৯৮

21. জাতিপুঞ্জের মূল লক্ষ্যগুলি সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে –

(a) ৩৯ নং ধারায় (b) ৯৯ নং ধারায় (c) প্রস্তাবনায় (d) ১১১ নং ধারায়

Ans. (b) ৯৯ নং ধারায়

22. ‘বিশ্বের সর্ববৃহৎ নাগরিক সভা’ –

(a) অর্থনৈতিক ও সামাজিক পরিষদ (b) সাধারণ সভা (c) নিরাপত্তা পরিষদ (d) অছি পরিষদ

Ans. (b) সাধারণ সভা

23. জাতিপুঞ্জের মহাসচিবের রাজনৈতিক ক্ষমতা সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে –

(a) ৩৯ নং ধারায় (b) ৯৯ নং ধারায় (c) ৪২ নং ধারায় (d) ৮৮ নং ধারায়

Ans. (b) ৯৯ নং ধারায়

24. UNO-র বিচারালয়ের বিচারপতিদের কার্যকাল –

(a) ৯ বছর (b) ১০ বছর(c) ৫ বছর (d) ৪ বছর

Ans. (a) ৯ বছর

25. প্রতিটি রাষ্ট্র সাধারণ সভায় সদস্য পাঠাতে পারে সর্বাধিক

(a) ৫ জন (b) ৬ জন (c) ৮ জন(d) ১০ জন

Ans. (a) ৫ জন

26. সাধারণ সভায় প্রত্যেক রাষ্ট্র ভোট দিতে পারে –

(a) ১টি (b) ২টি (c) ৩টি (d) ৪টি

Ans. (a) ১টি

27. সাধারণ সভাকে “বিশ্ব-বিবেকের কণ্ঠস্বর বলেছেন –

(a) অস্টিন (b) ফ্র্যাঙ্কেল (c) মর্গেন থাউ (d) পামার এবং পারকিনস

Ans. (a) অস্টিন

28. UNO-র মানবাধিকার-সংক্রান্ত ঘোষণাটি করা হয়

(a) ১৯৪৮ খ্রিঃ (b)১৯৪৯ খ্রিঃ (C)১৯৫০ খ্রিঃ (d)১৯৫৫ খ্রিঃ

Ans. (a) ১৯৪৮ খ্রিঃ

29.UNO-র সনদ সংশোধনের কথা বলা হয়েছে

(a) ১০১ ধারায় (b) ১০৫ ধারায় (c) ১০৮ ধারায় (d) ১১০ ধারায়

Ans. (c) ১০৮ ধারায়

30. তেহরান ঘোষণা কোন বছর হয়?

(a) ১৯৪২ সাল (b) ১৯৪৩ সাল (c) ১৯৪৪ সাল (d) ১৯৪৫ সাল

Ans. (b) ১৯৪৩ সাল

31. UNO-র জন্মলগ্নে সদস্যসংখ্যা ছিল –

(a) ৫০ (b) ৫১ (c) ৫৫ (d) ১০০

Ans. (b) ৫১

32. অতলান্তিকের সনদ কোন বছর স্বাক্ষরিত হয়?

(a) ১৯৪০ সাল (b) ১৯৪১ সাল (c) ১৯৪২ সাল (d) ১৯৪৩ সাল

Ans. (b) ১৯৪১ সাল

33. ওয়াশিংটন ঘোষণা কত সালে হয় ?

(a) ১৯৪১ সাল (b) ১৯৪২ সাল (c) ১৯৪৩ সাল (d) ১৯৪৪ সাল

Ans. (b) ১৯৪২ সাল

34. মস্কো ঘোষণা কোন বছর হয় ?

(a) ১৯৪১ সাল (b) ১৯৪২ সাল (c) ১৯৪৩ সাল (d) ১৯৪৪ সাল

Ans. (c) ১৯৪৩ সাল

35. ডাম্বারটন ও সম্মেলন কোন বছর অনুষ্ঠিত হয়?

(a) ১৯৪১ সাল (b) ১৯৪২ সাল (c) ১৯৪৩ সাল (d) ১৯৪৪ সাল

Ans. (d) ১৯৪৪ সাল

অতিসংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর [ মান – ১ ]

1. সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের স্থায়ী সচিবালয় কোথায় অবস্থিত?

Ans. সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের স্থায়ী সচিবালয় আমেরিকার নিউইয়র্ক শহরে অবস্থিত। 12)

2. আন্তর্জাতিক আদালতের বিচারপতির সংখ্যা কত?

Ans. আন্তর্জাতিক আদালতে বিচারপতির মোট সংখ্যা 15 জন।

3. সাধারণ সভার লাগিন অধিবেশন কবে বসে?

Ans. প্রতি বছর সেলের মাসের তৃতীয় মঙ্গলবার সাধারণ সভার বার্ষিক অধিবেশন বসে।

4. সাধারণ সভার অধিবেশনে কতজন সভাপতি ও সহ-সভাপতি নির্বাচিত হন?

Ans. সাধারণ সভার অধিবেশনে একজন সভাপতি এবং ২১ জন সহ-সভাপতি নির্বাচিত হন।

5. হু (WHO) -এর পুরো নাম কী ?

Ans. ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন।

6. আই এম এফ (IMF) -এর পুরো নাম কী?

Ans. ইন্টারন্যাশনাল মনিটরি ফান্ড।

7. আন্তর্জাতিক অর্থভাণ্ডারের সদর কার্যালয় কোথায় অবস্থিত ?

Ans. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনে।

8. ইউনেস্কো কীভাবে গঠিত?

Ans. একটি সাধারণ সম্মেলন, একটি পরিচালক পরিষদ ও একটি কর্মদপ্তর নিয়ে গঠিত।

9. বর্তমানে নিরাপত্তা পরিষদের ১০টি অস্থায়ী সদস্যরাষ্ট্র কারা ?

Ans. ২০১৩ সালের পরিসংখ্যান অনুযায়ী নিরাপত্তা পরিষদের ১০টি অস্থায়ী রাষ্ট্র হলো : আজারবাইজান, আর্জেন্টিনা, অস্ট্রেলিয়া, গুয়াতেমালা, রিপাবলিক অব কোরিয়া, মরক্কো, পাকিস্তান, লুক্সেমবর্গ, রোয়ান্ডা, টোগো।

10. জাতিপুঞ্জের সনদ কীভাবে সংশোধন করা হয়?

Ans. নিরাপত্তা পরিষদের সম্মতিক্রমে সাধারণ সভায় উপস্থিত ও ভোটদানকারী সদস্যদের দুই-তৃতীয়াশের ভোটে জাতিপুঞ্জের সনদ সংশোধিত এবং কার্যকরী হয়।

11. নিরাপত্তা পরিষদের একটি দুর্বলতা উল্লেখ করো।

Ans. ভেটো ব্যবস্থার প্রচলনের ফলে শান্তিভঙ্গকারী রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণে ব্যর্থতা নিরাপত্তা পরিষদের একটি দুর্বলতা।

12. ‘শান্তির জন্য ঐক্য’-র প্রস্তাবের অর্থ কী?

Ans. ‘শান্তির জন্য ঐক্য’ প্রস্তাব ১৯৫০ সালে জাতিপুঞ্জের গৃহীত একটি প্রস্তাব। এই প্রস্তাবে আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে শান্তি ও নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠার ব্যাপারে সাধারণ সভাকে ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে।

13. আন্তর্জাতিক বিচারালয়ের বিচারপতিরা কীভাবে নির্বাচিত হন ?

Ans. নিরাপত্তা পরিষদ এবং সাধারণ সভায় পৃথকভাবে অনুষ্ঠিত ভোটে যে প্রার্থীরা সবচেয়ে বেশি ভোট পান তারা আন্তর্জাতিক বিচারালয়ের বিচারপতি হিসেবে নির্বাচিত হন।

14. সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের মহাসচিবের যেকোনো একটি গুরুত্বপূর্ণ কাজ উল্লেখ করো।

Ans. সম্মিলিত জাতিপুরে মহাসচিবের একটি গুরুত্বপূর্ণ কাজ হলো প্রশাসন এবং বিভিন্ন শাখা সংগঠনের কাজকর্মের মধ্যে সমন্বয় সাধন করা।

15. নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্যদের ভেটো প্রদান ক্ষমতার অর্থ কী?

অথবা, নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্যদের ভেটো ক্ষমতা বলতে কী বোঝো?

Ans. নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্যদের দেওয়া ভেটো ক্ষমতার অর্থ হলো পদ্ধতিগত বিষয় ব্যতীত অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে সিদ্ধান্তগ্রহণের ক্ষেত্রে তাদের অসম্মতিসূচক ভোটদানের অধিকার রয়েছে।

16. সাধারণ সভা কীভাবে গঠিত হয়?

Ans. সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের সব সদস্যরাষ্ট্র নিয়ে সাধারণ সভা গঠিত হয়। বর্তমানে এর সদস্যসংখ্যা হলো ১৯৩।

17. শান্তির জন্য ঐক্য’-র প্রস্তাবের অর্থ কী?

Ans. ‘শান্তির জন্য ঐক্য প্রস্তাব ১৯৫০ সালে জাতিপুঞ্জের গৃহীত একটি প্রস্তাব। এই প্রস্তাবে আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে শান্তি ও নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠার ব্যাপারে সাধারণ সভাকে ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে।

18. নিরাপত্তা পরিষদের ৫টি স্থায়ী সদস্যরাষ্ট্রের নাম কী ?

Ans. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া, গণসাধারণতন্ত্রী চিন, গ্রেট ব্রিটেন ও ফ্রান্স হলো নিরাপত্তা পরিষদের ৫টি স্থায়ী সদস্যরাষ্ট্র। 19. নিরাপত্তা পরিষদ কীভাবে গঠিত হয়?

Ans. UNO-র নিরাপত্তা পরিষদ স্থায়ী ৫টি সদস্যরাষ্ট্র এবং অস্থায়ী ১০টি সদস্যরাষ্ট্র অর্থাৎ মোট ১৫টি সদস্যরাষ্ট্র নিয়ে গঠিত।

20. আন্তর্জাতিক বিচারালয়ের এলাকাগুলি ক’টি ভাগে বিভক্ত?

Ans. আন্তর্জাতিক বিচারালয়ের (ICI) এলাকাগুলি তিন ভাগে বিভক্ত। যথা ১. স্বেচ্ছাধীন এলাকা, ২, আধা-আবশ্যিক এলাকা এবং ৩, পরামর্শদানমূলক এলাকা।

21. সম্মিলিত জাতিপুরে যেকোনো একটি এজেন্সির নাম লেখো।

Ans. সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের একটি এজেন্সি হলো – আন্তর্জাতিক শ্রমসংস্থা (ILO)। (?)

22. আন্তর্জাতিক বিচারালয় কোথায় অবস্থিত?

Ans. আন্তর্জাতিক বিচারালয় জার্মানির হেগ শহরে অবস্থিত।

23. জাতিপুঞ্জের সনদ সংশোধন কীভাবে হয়?

Ans. সনদের ১০৮ নং ধারা অনুযায়ী সংশোধনী প্রস্তাবটি নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচ স্থায়ী সদস্যরাষ্ট্র সহ সাধারণ সভার দুই-তৃতীয়াংশ সদস্যরাষ্ট্র কর্তৃক অনুমোদিত হলে গৃহীত হয়।

24. মস্কো ঘোষণা কী?

Ans. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, সোভিয়েত ইউনিয়ন, ফরমোজা এবং চিনের পররাষ্ট্র মন্ত্রীরা মস্কোতে মিলিত হয়ে যে ঘোষণার দ্বারা জাতিপুঞ্জ প্রতিষ্ঠার জন্য একটি যুগ্ম ইস্তেহার প্রকাশ করেন তাকে মস্কো ঘোষণা বলে।

25. তেহরান ঘোষণা কী?

Ans. রুজভেল্ট, স্তালিন ও চার্চিল তেহরান শহরে মিলিত হয়ে যে ঘোষণাপত্র প্রকাশ করেন, তা-ই হলো তেহরান ঘোষণা।

26. অর্থনৈতিক ও সামাজিক পরিষদের একটি বিশেষজ্ঞ সংস্থার নাম লেখো।

Ans. অর্থনৈতিক ও সামাজিক পরিষদের একটি বিশেষজ্ঞ সংস্থার নাম বিশ্ববাণিজ্য সংস্থা।

27. সম্মিলিত জাতিপুঞ্জ গঠিত হওয়ার সময়ে সদস্যরাষ্ট্রের সংখ্যা উল্লেখ করো।

Ans. সম্মিলিত জাতিপুঞ্জ গঠিত হওয়ার সময়ে সদস্য রাষ্ট্রের সংখ্যা ছিল ৫৯।

28. সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের কোন দুটি সংগঠন জাতিপুঞ্জের সনদ সংশোধনে অংশগ্রহণ করে?

Ans. সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের সাধারণ সভা ও নিরাপত্তা পরিষদ জাতিপুঞ্জের সনদ সংশোধনে অংশগ্রহণ করে।

29. সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের পূর্বসূরি প্রতিষ্ঠানটির নাম কী?

Ans. জাতিসংঘ বা লিগ অব নেশনস।

30. অতলান্তিক সনদ কাদের মধ্যে স্বাক্ষরিত হয়েছিল?

Ans. চার্চিল ও রুজভেল্ট।

31. জাতিপুঞ্জের প্রস্তাবনার অন্তর্ভুক্ত একটি লক্ষ্য কী?

Ans. জাতিপুঞ্জের প্রস্তাবনার অন্তর্ভুক্ত একটি লক্ষ্য হলো যুদ্ধের করাল গ্রাস থেকে ভাবী প্রজন্মকে মুক্ত রাখা।

32. সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের প্রস্তাবনা কি সনদের মূল অংশ?

Ans. সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের প্রস্তাবনা সনদের মূল অংশ নয়।

কয়েকটি প্রধান রাজনৈতিক মতাদর্শ | উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন  | HS Political Science Suggestion 

রচনাধর্মী প্রশ্নোত্তর [ মান – 8 ]

1. শ্রেণিসংগ্রাম ও বিপ্লব সম্পর্কিত মার্কসীয় তত্ত্বটি ব্যাখ্যা করো।

2. মার্কসবাদের মূলসূত্র বা বৈশিষ্ট্যগুলি বিশ্লেষণ করো।

3. উদারনীতিবাদের মূল বৈশিষ্ট্যগুলি ব্যাখ্যা করো।

অথবা, উদারনীতিবাদের মূলসূত্রগুলি ব্যাখ্যা করো। অথবা, উদারনীতিবাদ বলতে কী বোঝো? এর মূলনীতিগুলি কী?

4. গান্ধিজির রাজনৈতিক দর্শনের মূলসূত্রগুলি আলোচনা করো।

5. কার্ল মাকর্সের ঐতিহাসিক বস্তুবাদ তত্ত্বটি আলোচনা করো।

6. মার্কস-এর রাষ্ট্র ও বিপ্লব-সংক্রান্ত তত্ত্ব দু’টি আলোচনা করো।

সরকারের বিভিন্ন বিভাগ | উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন  | HS Political Science Suggestion 

MCQ প্রশ্নোত্তর

সঠিক উত্তরটি নির্বাচন করো।

1. তত্ত্বগতভাবে ক্ষমতাস্বতন্ত্রীকরণ নীতির অস্তিত্ব রয়েছে

(a) ভারতে (b) ব্রিটেনে (c) মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে (d) জাপানে

Ans. (c) মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে

2. “ন্যায়বিচারের দীপশিখাটি অন্ধকারের মধ্যে নিভে গেলে কী ভীষণ সেই অন্ধকার।”একথা কে বলেছেন?

(a) গেটেল (b) লর্ড ব্রাইস (c) মার্কস (d) বাকার

Ans. (b) লর্ড ব্রাইস

3. “দ্বিতীয় পরিষদ হলো স্বাধীনতার অপরিহার্য নিরাপত্তা।” এ কথা বলেছেন

(a) লক (b) গ্রিন (c) লর্ড অ্যাক্টন (d) লর্ড কার্জন

Ans. (c) লর্ড অ্যাক্টন

4. “পার্লামেন্টের হলো খেলার বিষয়।” বলেছেন

(a) হিটলার (b) বেনিটো মুসোলিনি (c) রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর (d) স্তালিন

Ans. (a) হিটলার

5. সবচেয়ে ক্ষমতাশালী বিচার বিভাগ রয়েছে —

(a) ব্রিটেনে (b) ভারতে (c) মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে (d) চিনে

Ans. (c) মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে

6. মার্কিন রাষ্ট্রপতির কার্যকালের মেয়াদ –

(a) ৩ বছর (b) ৪ বছর (c) ৫ বছর (d) ৬ বছর

Ans. (b) ৪ বছর

7. অরাজনৈতিক অথবা স্থায়ী প্রশাসকরা হলেল –

(a) মন্ত্রীপরিষদের সদস্য (b) আইন বিভাগের সদস্য (c) বিচার বিভাগের সদস্য (d) আমলাতন্ত্রের সদস্য

Ans. (d) আমলাতন্ত্রের সদস্য

8. “পার্লামেন্ট একটি ক্রীড়নকমাত্র”, বলেছেন –

(a) মুসোলিনি (b) হিটলার (c) ফ্রাঙ্কো (d) বিসমার্ক

Ans. (a) মুসোলিনি

9. — বিভাগকে সংবিধানের অভিভাবক বলে মনে করা হয় –

(a) শাসন বিভাগ (b) আইন বিভাগ (c) বিচার বিভাগ (d) কোনোটিই নয়

Ans. (c) বিচার বিভাগ

10. দ্বিকক্ষবিশিষ্ট আইনসভার সমর্থক হলেন –

(a) ল্যাস্কি (b) বেন্থাম (c) লর্ড ব্রাইস (d) ফ্রাঙ্কলিন

Ans. (c) লর্ড ব্রাইস

11. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটে প্রতিটি অঙ্গরাজ্য থেকে প্রতিনিধি নির্বাচিত হন –

(a) ৩ জন (b) ২ জন (c) ৫ জন (d) ৪ জন

Ans. (b) ২ জন

12. আমলাতন্ত্রের প্রধান কাজ –

(a) সরকারের নীতিসমূহের রূপায়ণ (b) আইন প্রণয়ন (c) সংবিধানের ব্যাখ্যা (d) এদের সবক’টি

Ans. (a) সরকারের নীতিসমূহের রূপায়ণ

13. ব্রিটেনের নিয়মতান্ত্রিক শাসক হলেন –

(a) প্রধানমন্ত্রী (b) স্পিকার (c) রাজা বা রানি (d) লর্ড চ্যান্সেলার

Ans. (c) রাজা বা রানি

14. ধরনের সরকারের ক্ষেত্রে আইনসভার উচ্চকক্ষটি আবশ্যক–

(a) এককেন্দ্রিক (b) যুক্তরাষ্ট্রীয় (c) রাষ্ট্রপতি শাসিত (d) সংসদীয়

Ans. (d) সংসদীয়

15. আইনসভা কর্তৃক বিচারপতিরা নির্বাচিত হন –

(a) গ্রেট ব্রিটেনে (b) মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে (c) ভারতে (d) সুইজারল্যান্ডে

Ans. (d) সুইজারল্যান্ডে

16. মার্কিন রাষ্ট্রপতি হলেন রাষ্ট্রের —–– প্রধান।

(a) সাংবিধানিক (b) প্রকৃত (c) সাংবিধানিক ও প্রকৃত (d) কোনোটিই নয়

Ans. (c) সাংবিধানিক ও প্রকৃত

17. একটি বহু পরিচালক শাসন ব্যবস্থার উদাহরণ হলো_________

(a) ভারত (b) আমেরিকা (c) সুইজারল্যান্ড (d) ইংল্যান্ড

Ans. (c) সুইজারল্যান্ড

18. অর্ডিনান্স জারি করার ক্ষমতা রয়েছে_________

(a) শাসন বিভাগের (b) আইন বিভাগের (c) বিচার বিভাগের (d) এদের মধ্যে কোনোটিই নয়

Ans. (a) শাসন বিভাগের

19. পশ্চিমবঙ্গের আইনসভার কক্ষ রয়েছে _________

(a) একটি (b) দু’টি (c) তিনটি (d) চারটি

Ans. (a) একটি

20. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আইনসভার উচ্চকক্ষের নাম _________

(a) লর্ডসভা (b) সিনেট (c) জনপ্রতিনিধিসভা (d) লোকসভা

Ans. (b) সিনেট

21. সুইজারল্যান্ডের আইনসভার একটি কক্ষের নাম

(a) জাতীয় পরিষদ (b) সিনেট (c) কমন্সসভা (d) জনপ্রতিনিধিসভা

Ans. (a) জাতীয় পরিষদ

22. সুইজারল্যান্ডের আইনসভার দ্বিতীয় কক্ষের নাম _________

(a) রাজ্য পরিষদ (b) কমন্সসভা (c) কাউন্সিল (d) প্রতিনিধিসভা

Ans. (a) রাজ্য পরিষদ

23. চিনের আইনসভাকে বলা হয় –

(a) জাতীয় গণকংগ্রেস (b) কংগ্রেস (c) সিনেট (d) কাউন্সিল

Ans. (a) জাতীয় গণকংগ্রেস

24. ভারতের নামসর্বস্ব শাসক হয়ে

(a) প্রধানমন্ত্রী (b) মন্ত্রী পরিষদ (c) রাষ্ট্রপতি (d) পার্লামেন্ট

Ans. (c) রাষ্ট্রপতি

25. ভারতের শাসন বিভাগের প্রকৃত শাসক হলেন _________

(a) প্রধানমন্ত্রী (b) পার্লামেন্ট (c) রাষ্ট্রপতি (d) সুপ্রিম কোর্ট

Ans. (a) প্রধানমন্ত্রী

26. আইনসভার জননী বলা হয় _________

(a) ব্রিটিশ পার্লামেন্টকে (b) ফরাসি পার্লামেন্টকে (c) মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্টকে (d) ভারতের পার্লামেন্টকে

Ans. (a) ব্রিটিশ পার্লামেন্টকে

27. দ্বিকক্ষবিশিষ্ট আইনসভা প্রথম চালু হয় —

(a) মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে (b) ফ্রান্সে (c) ব্রিটেনে (d) রাশিয়াতে

Ans. (c) ব্রিটেনে

28. Government of England গ্রন্থের লেখক হলেন–

(a) লাওয়েল (b) মন্তেস্কু (c) বেজহট। (d) লর্ড অ্যাকটন

Ans. (a) লাওয়েল

29. ব্রিটেনের পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ লর্ডসভাকে ‘বিত্তশালীদের দুর্গ’ বলেছেন

(a) রামসে ম্যুর (b) লর্ড ব্রাইস (c) ল্যাস্কি (d) মিল

Ans. (a) রামসে ম্যুর

30. “চারটি চোখ দুটি চোখের অপেক্ষা অনেক ভালো। দেখে।” বলেছেন –

(a) লর্ড ব্রাইস (b) ল্যাস্কি (c) ব্লুন্টসলি (d) মিল

Ans. (c) ব্লুন্টসলি

31. ভারতে জরুরি অবস্থা জারি করা হয় –

(a) ১৯৭০ খ্রি: (b) ১৯৭৫ খ্রি: (c)১৯৭৭ খ্রি: (d) ১৯৮০ খ্রি:

Ans. (b) ১৯৭৫ খ্রি:

32. কোন দেশের আইনসভার উচ্চকক্ষ সমপ্রতিনিধিত্বের নীতির ভিত্তিতে গঠিত?

(a) ভারত (b) ব্রিটেন (c) সুইজারল্যান্ড। (d) মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র

Ans. (d) মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র

33.‘স্পিরিট অব দ্য লজ গ্রন্থের রচয়িতা কে?

(a) মার্কস (b) হেগেল (C) মন্তেস্কু (d) লেনিন

Ans. (C) মন্তেস্কু

34. ব্রিটিশ পালামেন্টের নিম্নকক্ষের নাম

(a) লর্ডসভা (b) কমন্সসভা (c) লোকসভা (d) রাজ্যসভা

Ans. (b) কমন্সসভা

35. উত্তরাধিকার সূত্রে মনোনীত শাসক দেখা যায়

(a) পাকিস্তানে (b) ভারতে (C) গ্রেট ব্রিটেনে (d) শ্রীলঙ্কাতে

Ans. (C) গ্রেট ব্রিটেনে

36. এককক্ষবিশিষ্ট আইনসভার সমর্থক হলেন

(a) হ্যারল্ড ল্যাক্সি (b) লর্ড ব্রাইস (c) জন স্টুয়ার্ট মিল (d) হেনরি মেইন

Ans. (a) হ্যারল্ড ল্যাক্সি

37. ক্ষমতাস্বতন্ত্রীকরণ নীতির প্রয়োগ ঘটেছে –

(a) ব্রিটেনে (b) পাকিস্তানে (c) নেপালে (d) মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে

Ans. (d) মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে

38.সরকারের কার্যাবলিকে মূলত _________ ভাগে ভাগ করা যায়—

(a) দুই (b) তিন (c) চার (d) পাঁচ

Ans. (b) তিন

39. ব্রিটিশ পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষের নাম –

(a) লর্ডসভা (b) সিনেট (c) লোকসভা (d) কমন্সসভা

Ans. (a) লর্ডসভা

40. ভারতের রাষ্ট্রপতিকে কে পরামর্শ দিতে পারে?

(a) প্রধানমন্ত্রী (b) কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভা (c) সুপ্রিম কোর্ট (d) হাইকোর্ট

Ans. (c) সুপ্রিম কোর্ট

41. ভারতের পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষের নাম –

(a) লোকসভা (b) রাজ্যসভা (c) পার্লামেন্ট (d) আইনসভা

Ans. (a) লোকসভা

42. ভারতের পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষের নাম –

(a) রাজ্যসভা (b) লোকসভা (c) পার্লামেন্ট (d) সংসদ

Ans. (a) রাজ্যসভা

অতিসংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর [ মান – ১]

1. Spirit of Laws গ্রন্থটি কার লেখা ?

Ans. Spirit of LaWS গ্রন্থটি মন্তেস্কুর লেখা। (2)

2. আমলাতন্ত্র বলেতে কী বোঝো?

3. আইনসভার সার্বভৌমত্ব বলতে কী বোঝায়?

Ans. আইনসভার সার্বভৌমত্ব বলতে আইনসভার চরম ও চূড়ান্ত ক্ষমতাকে বোঝায়। গ্রেট ব্রিটেনের আইনসভা এরূপ সার্বভৌম ক্ষমতার অধিকারী।

4. আইনসভার বিচার-সংক্রান্ত কাজগুলি কী?

Ans. আইনসভার বিচার-সংক্রান্ত কাজগুলি হলো বিচারকদের সংখ্যা নির্ধারণ, বিচারকদের নিয়োগ করা ও পদচ্যুত করা।

5. এমন দুটি রাষ্ট্রের নাম লেখো যার বিচার বিভাগের বিচারবিভাগীয় পর্যালোচনার ক্ষমতা রয়েছে।

Ans. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ভারতের বিচার বিভাগের বিচারবিভাগীয় সমীক্ষা বা পর্যালোচনার ক্ষমতা রয়েছে।

6. কোন দেশের বিচারপতি জনগণের দ্বারা নিযুক্ত হন?

Ans. সুইজারল্যান্ডের ক্যান্টনগুলিতে বিচারপতি জনগণের দ্বারা নিযুক্ত হন।

7. শাসন বিভাগের একক পরিচালক বলতে কী বোঝায় ?

Ans. শাসন বিভাগীয় সমস্ত কাজ যখন একজন মাত্র পরিচালকের নির্দেশ এবং নেতৃত্বে পরিচালিত হয়, তখন তাকে একক পরিচালক বলে।

8. যুক্তরাষ্ট্রীয় সরকার কাকে বলে?

Ans. যুক্তরাষ্ট্রীয় সরকার বলতে সেই সরকারকে বোঝায় যেখানে একটি লিখিত সংবিধানের মাধ্যমে কেন্দ্রীয় সরকার ও অঙ্গরাজ্যের সরকারগুলির মধ্যে ক্ষমতা ভাগ। করে দেওয়া হয়।

9. শাসন বিভাগের যেকোনো একটি কাজ উল্লেখ করো।

Ans. শাসন বিভাগের একটি কাজ হলো নীতি নির্ধারণ করা।

10. শাসন বিভাগের ক’টি অংশ ও কী কী?

Ans. শাসন বিভাগের দুটি অংশ – রাজনৈতিক ও অ-রাজনৈতিক অংশ।

11. ভারতের আইনসভা ক’টি কক্ষ নিয়ে গঠিত?

Ans. ভারতের আইনসভা দু’টি কক্ষ নিয়ে গঠিত।

12. সিনেটের সদস্যগণ কীভাবে নির্বাচিত হন?

Ans. জনগণের দ্বারা প্রত্যক্ষভাবে নির্বাচিত হন।

13. বিচার বিভাগের স্বাধীনতার একটি প্রয়োজনীয়তা উল্লেখ করো।

Ans. গণতন্ত্রের সাফল্যের জন্য বিচার বিভাগের স্বাধীনতা প্রয়োজন।

14. ভারতের শাসন বিভাগ একক না বহু পরিচালক বিশিষ্ট শাসকযুক্ত ?

Ans. ভারতের শাসন বিভাগের ক্ষেত্রে একক পরিচালক এবং বহু পরিচালকযুক্ত শাসন ব্যবস্থা উভয়েরই সমন্বয় ঘটেছে বলে মনে করা হয়।

15. শাসন বিভাগের দু’টি কাজ উল্লেখ করো।

Ans. শাসন বিভাগের দু’টি কাজ হলো – (i) দেশের শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষার ব্যবস্থা করা এবং (ii) নীতি নির্ধারণ ও রূপায়ণ করা।

16. বিচার বিভাগ কীভাবে মৌলিক অধিকারের রক্ষাকর্তা হিসেবে কাজ করে?

Ans. আইন ও সংবিধানের ব্যাখ্যাকার এবং সংরক্ষক হিসেবে বিচার বিভাগ মৌলিক অধিকারের রক্ষাকর্তা রূপে কাজ করে।

17. একক পরিচালক ও বহ পরিচালক বিশিষ্ট শাসকের মধ্যে একটি পার্থক্য লেখো।

Ans. একক পরিচালক বিশিষ্ট শাসকের হাতে শাসন বিভাগের সমস্ত কাজকর্ম ন্যস্ত থাকে এবং শাসন বিভাগ তার নেতৃত্বে ও নির্দেশ অনুযায়ী পরিচালিত হয়। অন্যদিকে, বহু পিরচালক বিশিষ্ট শাসকের ক্ষেত্রে শাসন বিভাগের প্রকৃত ক্ষমতা সমক্ষমতাসম্পন্ন বহ ব্যক্তির হাতে ন্যস্ত থাকে।

18. সংসদীয় শাসন ব্যবস্থায় কত ধরনের শাসক থাকেন?

Ans. সংসদীয় শাসন ব্যবস্থায় দু’ধরনের শাসক থাকেন। যথা – (i) প্রকৃত শাসক (ii) নামসর্বস্ব শাসক।

19. স্থায়ী প্রশাসক বলতে কী বোঝো?

Ans. প্রশাসনিক কার্যে স্থায়ীভাবে নিযুক্ত কর্মচারীদের স্থায়ী প্রশাসক বলা হয়।

20. শাসন বিভাগ কাদের নিয়ে গঠিত হয়?

Ans. ব্যাপক অর্থে শাসন বিভাগ রাষ্ট্রপ্রধান থেকে শুরু করে প্রশাসনের সাধারণ কর্মচারী পর্যন্ত সমস্ত পদাধিকারীকে নিয়ে গঠিত।

21. এককক্ষবিশিষ্ট আইনসভা কোন কোন দেশে রয়েছে?

Ans. এককক্ষবিশিষ্ট আইনসভা রয়েছে তুরস্ক, বুলগেরিয়া, রোমানিয়া, পানামা প্রভৃতি রাষ্ট্রে।

22. এককক্ষবিশিষ্ট আইনসভার বিপক্ষে একটি যুক্তি দাও।

Ans. আইনসভা এককক্ষবিশিষ্ট হলে অনেক ক্ষেত্রে সময়ের অভাবে দ্রুত আইন প্রণয়ন করতে হয়, ফলে আইনের ভুলত্রুটি থেকে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

23. দ্বিকক্ষবিশিষ্ট আইনসভা রয়েছে কোন কোন দেশে?

Ans. দ্বিকক্ষবিশিষ্ট আইনসভা রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, ভারত প্রভৃতি রাষ্ট্রে।

24. দ্বিকক্ষবিশিষ্ট আইনসভার কয়েকজন সমর্থকের নাম লেখো।

Ans. জন স্টুয়ার্ট মিল, লর্ড ব্রাইস, লর্ড অ্যাকটন, গেটেল, দ্যুগুই, জেফারসন, লেকি প্রমুখ রাষ্ট্রবিজ্ঞানী দ্বিকক্ষবিশিষ্ট আইনসভার সমর্থক ছিলেন।

25. দ্বিকক্ষবিশিষ্ট আইনসভার বিরোধী কারা?

Ans. ল্যাস্কি, বেন্থাম, আবে সিঁয়ে, ফ্রাঙ্কলিন প্রমুখ রাষ্ট্রবিজ্ঞানী দ্বিকক্ষবিশিষ্ট আইনসভার বিরোধী ছিলেন।

26. দ্বিকক্ষবিশিষ্ট আইনসভার বিপক্ষে একটি যুক্তি দাও।

Ans. দ্বিকক্ষবিশিষ্ট আইনসভার বিপক্ষে একটি যুক্তি হলো দ্বিকক্ষবিশিষ্ট আইনসভার গঠনকাঠামো অগণতান্ত্রিক।
রচনাধর্মী প্রশ্নোত্তর [ মান (৮) ]

1. শাসন বিভাগের মূল কাজগুলি আলোচনা করো।

অথবা, আধুনিক রাষ্ট্রে শাসন বিভাগের কার্যাবলি সংক্ষেপে আলোচনা করো।

2.ক্ষমতাস্বতন্ত্রীকরণ নীতির পক্ষে ও বিপক্ষে যুক্তিগুলি আলোচনা করো।

3. আধুনিক রাষ্ট্রে আইনসভার বা আইন বিভাগের কার্যাবলি আলোচনা করো।

4. আধুনিক রাষ্ট্রে বিচার বিভাগের কার্যাবলি আলোচনা করো।

5. বিচারবিভাগীয় সক্রিয়তা বলতে কী বোঝো? বিচারবিভাগীয় স্বাধীনতা কীভাবে সংরক্ষিত হয় তা ব্যাখ্যা করো।

6.দ্বিকক্ষবিশিষ্ট আইনসভার পক্ষে ও বিপক্ষে যুক্তি দাও।

ভারতের শাসন বিভাগ | উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন  | HS Political Science Suggestion 

MCQ প্রশ্নোত্তর

সঠিক উত্তরটি নির্বাচন কর

1. বর্তমানে ভারতে কেন্দ্রশাসিত অঞল ক’টি ?

(a) ৬ (b) ৭ (c) ৮ (d) ৯টি

Ans. (b) ৭

2. ভারতের প্রতিরক্ষা বাহিনীর সর্বাধিনায়ক কে?

(a) রাষ্ট্রপতি (b) প্রধানমন্ত্রী (c) প্রতিরক্ষামন্ত্রী (d) স্থলবাহিনীর প্রধান

Ans. (a) রাষ্ট্রপতি

3. ভারতে পরিকল্পনা কমিশনের সভাপতি কে?

(a) রাষ্ট্রপতি (b) উপরাষ্ট্রপতি (c) কেন্দ্রীয় মন্ত্রী (d) প্রধানমন্ত্রী

Ans. (d) প্রধানমন্ত্রী

4. ভারতে সংসদের অধিবেশন আহ্বান বা স্থগিত রাখতে কে পারেন?

(a) রাষ্ট্রপতি (b) প্রধানমন্ত্রী (c) কেন্দ্রীয় সংসদীয় মন্ত্রী (d) লোকসভার অধ্যক্ষ

Ans. (a) রাষ্ট্রপতি

5. ভারতে সংসদের দু’টি অধিবেশনের মধ্যে সর্বাধিক ব্যবধান কতদিনের হতে পারে ?

(a) ৪ মাস (b) ৫ মাস (c) ৬ মাস (d) ৭ মাস

Ans. (c) ৬ মাস

6. ভারতে অর্থ কমিশন কত বছর অন্তর গঠিত হয়?

(a) ৩ বছর (b) ৫ বছর (c) ৬ বছর (d) ৭ বছর

Ans. (b) ৫ বছর

7. সুপ্রিম কোর্ট ও হাইকোর্টের বিচারকদের ভারতে কে নিয়োগ করেন ?

(a) কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী (b) প্রধানমন্ত্রী (c) রাষ্ট্রপতি (d) উপরাষ্ট্রপতি

Ans. (c) রাষ্ট্রপতি

8. ভারতীয় সংবিধানের কত নং ধারা অনুযায়ী ভারতের উপরাষ্ট্রপতি রাজ্যসভায় সভাপতিত্ব করেন?

(a) ৬০ নং ধারা (b) ৬৪ নং ধারা (c) ৬৫ নং ধারা (d) ৬৬ নং ধারা

Ans. (b) ৬৪ নং ধারা

9. ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে কে নিযুক্ত করেন?

(a) রাষ্ট্রপতি (b) উপরাষ্ট্রপতি। (c) লোকসভার স্পিকার (d) রাজ্যপাল

Ans. (a) রাষ্ট্রপতি

10. ভারতের শাসন বিভাগের নামসর্বস্ব শাসক হলেন –

(a) রাষ্ট্রপতি (b) প্রধানমন্ত্রী। (c) উপরাষ্ট্রপতি (d) ক্যাবিনেট

Ans. (a) রাষ্ট্রপতি

11. ভারতের শাসন বিভাগের প্রকৃত শাসক হলেন –

(a) রাষ্ট্রপতি (b) প্রধানমন্ত্রী (c) উপরাষ্ট্রপতি (d) রাজ্যপাল

Ans. (b) প্রধানমন্ত্রী

12. ভারতের রাষ্ট্রপতির কার্যকালের মেয়াদ হলো –

(a) ৪ বছর (b) ৫ বছর (c) ৬ বছর (d) ৮ বছর

Ans. (b) ৫ বছর

13. রাষ্ট্রপতির পদচ্যুতির বিষয়টি আছে সংবিধানের –

(a) ৫৫ধারায় (b) ৬১ধারায় । (c) ৭৪ ধারায় (d) ৭৫ ধারায়

Ans. (c) ৭৪ ধারায়

14. ভারতের সঞ্চিত তহবিলের দায়িত্ব রয়েছে –

(a) প্রধানমন্ত্রীর হাতে (b) স্পিকারের হাতে (c) রাষ্ট্রপতির হাতে (d) অর্থমন্ত্রীর হাতে

Ans. (c) রাষ্ট্রপতির হাতে

15. ভারতে জাতীয় জরুরি অবস্থা জারি হয়েছে –

(a) ৩ বার (b) ৪ বার (c) ৫ বার (d) ৬ বার

Ans. (a) ৩ বার

16. ভারতে আর্থিক জরুরি অবস্থা জারি হয়েছে –

(a) ১ বার (b) ২ বার (c) ৩ বার (d) একবারও নয়

Ans. (d) একবারও নয়

17. ভারতে রাষ্ট্রপতি পদের পদপ্রার্থীর ন্যূনতম বয়স

(a) ২৫ বছর (b) ৩) বছর (c) ৩৫ বছর (d) ) শহর

Ans. (c) ৩৫ বছর

18. ভারতের রাষ্ট্রপতির প্রধান পরামর্শদাতা হলেন –

(a) ) প্রধানমন্ত্রী (b) মন্ত্রী পরিষদ (c) উপরাষ্ট্রপতি (d) সুপ্রিম কোর্ট

Ans. (a) ) প্রধানমন্ত্রী

19. UPSC সদস্যদের কার্যকালের মেয়াদ —

(a) ৫ বছর (b) ৬ বছর (c) ৭ বছর (d) ৮ বছর

Ans. (b) ৬ বছর

20. রাষ্ট্রপতি অনুপস্থিতিতে তার দায়িত্ব পালন করেন।

(a) প্রধানমন্ত্রী (b) সুপ্রিম কোর্ট (c) উপরাষ্ট্রপতি (d) মন্ত্রী পরিষদ

Ans. (c) উপরাষ্ট্রপতি

21. রাষ্ট্রপতি জাতীয় জরুরি অবস্থা জারি করেন সংবিধানের

(a) ৩৫৫ ধারা অনুযায়ী (b) ৩৫২ ধারা অনুযায়ী (c) ৩৫১ ধারা অনুযায়ী (d) ৩৫০ ধারা

Ans. (b) ৩৫২ ধারা অনুযায়ী

22. অনুযায়ী কোনো অঙ্গরাজ্যের নামসর্বস্ব শাসক হলেন -~

(a) রাজ্যপাল (b) মুখ্যমন্ত্রী (c) স্পিকার (d) মন্ত্রী

Ans. (a) রাজ্যপাল

23. পরিষদ অঙ্গরাজ্যের প্রকৃত শাসক হলেন

(a) রাজ্যপাল (b) মুখ্যমন্ত্রী (c) হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি (d) স্পিকার

Ans. (b) মুখ্যমন্ত্রী

24. রাজ্যপালের প্রধান পরামর্শদাতা হলেন -~

(a) মুখ্যমন্ত্রী (b) রাষ্ট্রপতি (c) প্রধানমন্ত্রী (d) পুলিশমন্ত্রী

Ans. (a) মুখ্যমন্ত্রী

25. ‘স্বেচ্ছাধীন ক্ষমতা’ ভোগ করেন –

(a) রাজ্যপাল (b) রাষ্ট্রপতি (c) প্রধানমন্ত্রী (d) মুখ্যমন্ত্রী

Ans. (a) রাজ্যপাল

26. রাজ্যপালকে নিয়োগ করেন –

(a) প্রধানমন্ত্রী (b) মুখ্যমন্ত্রী (c) রাষ্ট্রপতি (d) উপরাষ্ট্রপতি

Ans. (c) রাষ্ট্রপতি

27. রাজ্যপালের সাধারণভাবে কার্যকালের মেয়াদ হলো –

(a) ৪ বছর (b) ৫ বছর (c) ৬ বছর (d) ৮ বছর

Ans. (b) ৫ বছর

28. মুখ্যমন্ত্রীর স্বাভাবিক কার্যকালের মেয়াদ –

(a) ৪ বছর (b) ৫ বছর (c) ৬ বছর (d) ৮ বছর রাজ্যপালকে

Ans. (b) ৫ বছর

29. “সোনার খাঁচায় বন্দি পাখি” বলেছেন –

(a) জওহরলাল নেহেরু (b) রাজেন্দ্র প্রসাদ (c) সরোজিনী নাইডু (d) সুচেতা কৃপালিনী

Ans. (c) সরোজিনী নাইডু

30. Indian Government and Politics atrets গ্রন্থের প্রণেতা হলেন –

(a) জে. সি. জোহারি (b) ল্যাস্কি। (c) অমর্ত্য সেন (d) দুর্গাদাস বসু

Ans. (a) জে. সি. জোহারি

31. রাজ্য প্রশাসনের শীর্ষে রয়েছেন –

(a) রাজ্যপাল (b) মুখ্যমন্ত্রী (c) মুখ্যসচিব (d) মন্ত্রী পরিষদ

Ans. (a) রাজ্যপাল
অতিসংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর [ মান – 1 ]

1. ছাঁটাই প্রস্তাব ক’প্রকার ?

Ans. ছাঁটাই প্রস্তাবগুলিকেতিন ভাগে ভাগ করা যায়। যথা—নীতি অনুমোদন-সংক্রান্ত ছাঁটাই প্রস্তাব, ব্যয় সংক্ষেপের জন্য ছাঁটাই প্রস্তাব এবং প্রতীকী ছাঁটাই প্রস্তাব।

2. ভারতের উপরাষ্ট্রপতির প্রধান কাজ কী?

Ans. রাজ্যসভায় সভাপতিত্ব করাই উপরাষ্ট্রপতির প্রধান কাজ।

3. ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে কে নিয়োগ করেন?

Ans.ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে রাষ্ট্রপতি নিয়োগ করেন।

4. রাজনৈতিক প্রশাসক বলতে কী বোঝো?

Ans. রাজনৈতিক প্রশাসক বলতে কেন্দ্রীয় বা রাজ্য মন্ত্রীসভার মন্ত্রীদের বোঝায়।

5. সংসদীয় শাসন ব্যবস্থায় আইনসভার দ্বারা শাসন বিভাগকে নিয়ন্ত্রণের একটি উদাহরণ দাও ?

Ans. সংসদীয় শাসন ব্যবস্থায় বাজেট অনুমোদনের ক্ষমতার মাধ্যমে আইনসভা শাসন বিভাগকে নিয়ন্ত্রণ করে থাকে।

6. ভারতের রাষ্ট্রপতিকে কীভাবে পদচ্যুত করা যায়?

অথবা, ভারতের রাষ্ট্রপতি কীভাবে অপসারিত হন?

Ans. ভারতের রাষ্ট্রপতিকে ইমপিচমেন্ট পদ্ধতির সাহায্যে পার্লামেন্টের দুই-তৃতীয়াংশ সদস্যের সম্মতির ভিত্তিতে অপসারণ করা যায়।

7. ভারতের অঙ্গরাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে কে নিয়োগ করেন?

Ans. ভারতের অঙ্গরাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে নিয়োগ করেন সংশ্লিষ্ট রাজ্যের রাজ্যপাল।

8. ভারতের প্রধানমন্ত্রীর যেকোনো একটি কাজ উল্লেখ করো।

Ans. ভারতের প্রধানমন্ত্রীর একটি কাজ হলো রাষ্ট্রপতির সঙ্গে মন্ত্রীসভার যোগসূত্র

9. ভারতের উপরাষ্ট্রপতি কীভাবে নির্বাচিত হন?

Ans. একক হস্তান্তরযোগ্য সমানুপাতিক প্রতিনিধিত্বের ভিত্তিতে গোপন ভোটের মাধ্যমে পালামেন্টের উভয়কক্ষের সদস্যদের নিয়ে গঠিত এক নির্বাচকমণ্ডলী কর্তৃক উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হন।

10. ভারতের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের জন্য নির্বাচকমণ্ডলী কাদের নিয়ে গঠিত হয়?

অথবা, ভারতের রাষ্ট্রপতিকে কারা নির্বাচন করেন?

Ans. ভারতের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের জন্য নির্বাচকমণ্ডলী পার্লামেন্টের দু’টি কক্ষের নির্বাচিত সদস্য ও রাজ্য আইনসভার নিম্নকক্ষ বিধানসভার নির্বাচিত সদস্যদের নিয়ে গঠিত হয়।

11. রাজ্যপালের যেকোনো দুটি অর্থ-সংক্রান্ত ক্ষমতা উল্লেখ করো।

Ans. রাজ্যপালের দু’টি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অর্থ-সংক্রান্ত ক্ষমতা হলো –রাজ্য বিধানসভায় বাজেট বা অর্থবিল পেশ করার আগে রাজ্যপালের অনুমতি নিতে হয়, রাজ্যের কোনো আকস্মিক দুর্যোগে জরুরি পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার জন্য রাজ্যপালের হাতে আকস্মিক ব্যয়সংকুলান তহবিলের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এই তহবিল থেকে অগ্রিম অর্থ দেওয়ার ক্ষমতা রাজ্যপালের গাছে।

12. পালমোন উভকক্ষের অধিবেশন কে আহ্বান করেন?

Ans. রাষ্ট্রপতি পার্লামেন্টের উভয়কক্ষ লোকসভা ও রাজ্যসভার অধিবেশন আহ্বান করেন।

13. প্রজাতান্ত্রিক সরকার কাকে বলে ?

Ans. যে রাষ্ট্রের রাষ্ট্রপ্রধান উত্তরাধিকার সূত্রে ওই পদ লাভ করেন না, জনগণের নির্বাচিত প্রতিনিধিগণ কর্তৃক তিনি নির্দিষ্ট সময়ের জন্য নির্বাচিত হন, সেই সরকারকে প্রজাতান্ত্রিক সরকার বলে।

14. ভারতের প্রধানমন্ত্রী কীভাবে নিযুক্ত হন?

Ans. সাধারণ নির্বাচনে লোকসভায় যে দল বা জোট সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভ করে, সেই দলের বা জোটের নেতা বা নেত্রীকে রাষ্টপতি প্রধানমন্ত্রী পদে নিয়োগ করেন।

15. মন্ত্রীসভার যৌথ দায়িত্ব বলতে কী বোঝায়?

অথবা, ভারতের সংবিধানে মন্ত্রীসভার যৌথ দায়িত্বশীলতা বলতে কী বোঝায়?

Ans. সংসদীয় ব্যবস্থায় মন্ত্রীসভাকে আইনসভায় নিম্নকক্ষের কাছে দায়বদ্ধ থাকতে হয়। কোনো বিশেষ দপ্তরের মন্ত্রীর বিরুদ্ধে আইনসভার নিম্নকক্ষে সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্যরা অনাস্থা প্রস্তাব আনলে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রী সহ সমগ্র মন্ত্রীসভার পদচ্যুতি ঘটে। একে মন্ত্রীসভার যৌথ দায়িত্ব বলে।

16. রাষ্ট্রপতির ‘ভেটো ক্ষমতা বলতে কী বোঝো ? এটি কত প্রকারের হয় ?

Ans. ভারতের রাষ্ট্রপতির পার্লামেন্ট-প্রণীত বা রাজ্য আইনসভা প্রণীত কোনো বিল বাতিল করে দেওয়ার ক্ষমতাকে ভেটো ক্ষমতা বলে। এটি তিন প্রকারের হয়, যথা- পূর্ণাঙ্গ বা চরম ভেটো, স্থগিতকারী ভেটো এবং পকেট ভেটো।
রচনাধর্মী প্রশ্নোত্তর [ মান – 8]

1. ভারতের রাষ্ট্রপতির ক্ষমতা, কার্যাবলি, পদমর্যাদা আলোচনা করো।

2. ভারতের অঙ্গরাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর ক্ষমতা, কার্যাবলি ও পদমর্যাদা আলোচনা করো।

3. রাষ্ট্রপতি নির্বাচন ব্যবস্থা আলোচনা করো।

অথবা, ভারতের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের পদ্ধতি ব্যাখ্যা করো।

অথবা, ভারতের রাষ্ট্রপতি কীভাবে নির্বাচিত হন?

অথবা, ভারতের রাষ্ট্রপতির নির্বাচন পদ্ধতি আলোচনা করো।

ভারতের আইন বিভাগ | উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন  | HS Political Science Suggestion 

MCQ প্রশ্নোত্তর

সঠিক উত্তরটি নির্বাচন করো

1. লোকসভার প্রথম অধ্যক্ষ কে?

(a) জি.ভি. মভলঙ্কর (b) পি.এ. সাংমা (c) সঞ্জীব রেডিড (d) জি. বালাযোগী

Ans.

2. রাজ্যসভার সদস্যদের কার্যকালের স্বাভাবিক সময়সীমা

(a) ৪ বছর (b) ৫ বছর (c) ৬ বছর (d) ৭ বছর

Ans. (c) ৬ বছর

3. লোকসভার সর্বাধিক সদস্যসংখ্যা –

(a) ৫২৯ (b) ৫৩০ (c) ৫৫২ (d) ৫৬০

Ans. (c) ৫৫২

4. ভারতের পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষের নাম হলো –

(a) লোকসভা (b) রাজ্যসভা (c) বিধানসভা (d) বিধান পরিষদ

Ans. (a) লোকসভা

5. কেন্দ্রীয় তালিকায় কটি বিষয় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে?

(a) ৭০টি (b) ৮০টি (c) ৯০টি (d) ১০০টি

Ans. (d) ১০০টি

6. ভারতের পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষের নাম হলো –

(a) সিনেট (b) লর্ডসভা (c) রাজ্যসভা (d) বিধান পরিষদ

Ans. (c) রাজ্যসভা

7. রাজ্যসভার বর্তমান সদস্যসংখ্যা –

(a) ২৩০ (b) ২৩৫ (c) ২৪০ (d) ২৪৫

Ans. (d) ২৪৫

8. রাজ্যসভায় রাষ্ট্রপতি মনোনীত করেন –

(a) ১০ জন সদস্যকে (b) ১২ জন সদস্যকে (c) ১৫ জন সদস্যকে (d) ২০ জন সদস্যকে

Ans. (b) ১২ জন সদস্যকে

9. পশ্চিমবঙ্গের আইনসভার দ্বিতীয় কক্ষ বিলুপ্ত হয় –

(a) ১৯৬০ খ্রিঃ (b) ১৯৬৫ খ্রিঃ (c) ১৯৬৯ খ্রিঃ (d) ১৯৭১খ্রিঃ

Ans. (c) ১৯৬৯ খ্রিঃ

10. বিধানসভায় রাজ্যপাল কত জন ইঙ্গ-ভারতীয় সদস্য নিয়োগ করেন

(a) ১ জন (b) ২ জন (c) ৩ জন (d) ৪ জন

Ans. (a) ১ জন

11. স্বাধীনতার পর ভারতের প্রথম লোকসভা নির্বাচন হয়—

(a) ১৯৫০ খ্রিঃ (b)১৯৫২ খ্রিঃ (c)১৯৫৩ খ্রিঃ (d)১৯৫৫ খ্রিঃ

Ans. (b)১৯৫২ খ্রিঃ

12. শুধুমাত্র লোকসভা যে বিল উত্থাপন করতে পারে, সেটি হলো-

(a) অর্থবিল (b) ভূমিবিল (c) রাজ্য পুনর্গঠন বিল (d) বিবাহ বিষয়ক বিল

Ans. (a) অর্থবিল

13. বর্তমান রাজ্য তালিকায় কতগুলি বিষয় আছে?

(a) ৫০টি (b) ৬০টি (c) ৬১টি (d) ৬২টি

Ans. (c) ৬১টি

14. ভারতীয় সংবিধানের কত নং ধারা অনুযায়ী সংসদ কোনো রাজ্যের নাম, সীমানা ইত্যাদির পরিবর্তন করতে পারে?

(a) ২ নং ধারা (b) ৩ নং ধারা (c) ৪ নং ধারা (d) ৫ নং ধারা

Ans. (b) ৩ নং ধারা

15. ভারতীয় সংবিধানের কত নং ধারা অনুযায়ী সংসদ সর্বভারতীয় কৃত্যক গঠন করতে পারে?

(a) ৩১১ নং ধারা (b) ৩১২ নং ধারা (c) ৩১৩ নং ধারা (d) ৩১৪ নং ধারা

Ans. (b) ৩১২ নং ধারা

16. লোকসভায় কমপক্ষে কতজন সদস্যের উপস্থিতিকে কোরাম বলে ?

(a) এক-তৃতীয়াংশ (b) এক-চতুর্থাংশ। (c) এক-পঞমাংশ (d) এক-দশমাংশ

Ans. (d) এক-দশমাংশ

17. ভারতে দিলত্যাগ-বিরোধী আইন কোন সালে প্রণীত হয়?

(a) ১৯৮৩ সালে (b) ১৯৮৪ সালে (c) ১৯৭৬ সালে (d) ১৯৮৫ সালে

Ans. (c) ১৯৭৬ সালে

18. ভারতীয় সংবিধানের কত নং ধারা অনুযায়ী পালামেন্ট জাতীয় স্বার্থে রাজ্য তালিকাভুক্ত বিষয়ে আইন প্রণয়ন করতে পারে?

(a) ২৪৭ নং ধারা (b) ২৪৮ নং ধারা (c) ২৪৯ নং ধারা (d) ২৫০ নং ধারা

Ans. (c) ২৪৯ নং ধারা

19. ভারতীয় সংবিধানের কততম সংশোধনীর মাধ্যমে দলত্যাগ-বিরোধী আইন প্রণীত হয়?

(a) ৫১ তম (b) ৫২ তম (c) ৫৩ তম (d) ৫৪ তম

Ans. (b) ৫২ তম

20. ভারতীয় সংবিধানের কত নং ধারা অনুযায়ী প্রতিটি অঙ্গরাজ্যে একটি করে আইনসভা থাকবে?

(a) ১৬৭ নং ধারা (b) ১৬৮ নং ধারা (c) ১৬৯ নং ধারা (d) ১৭০ নং ধারা

Ans. (a) ১৬৭ নং ধারা

21. লোকসভার সদস্য হওয়ার জন্য পদপ্রার্থীর ন্যূনতম বয়স হতে হবে ?

(a) ১৮ বছর (b) ২৫ বছর । (c) ২৮ বছর (d) ৩০ বছর

Ans. (b) ২৫ বছর

22. রাজ্যসভার সদস্য হওয়ার জন্য পদপ্রার্থীর ন্যূনতম বয়স হতে হবে –

(a) ১৮ বছর। (b) ২০ বছর (c) ২৫ বছর (d) ৩০ বছর

Ans. (d) ৩০ বছর

23. সর্বভারতীয় রাষ্ট্রকৃত্যক গঠন করতে পারে —

(a) রাজ্যসভা (b) লোকসভা (c) রাষ্ট্রপতি (d) প্রধানমন্ত্রী

Ans. (a) রাজ্যসভা

24. লোকসভার সাধারণ কার্যকাল হলো –

(a) ৪ বছর (b) ৫ বছর (c) ৬ বছর (d) ৮ বছর

Ans. (b) ৫ বছর

25. রাজ্য আইনসভার উচ্চকক্ষ হলো –

(a) লোকসভা (b) বিধান পরিষদ (c) রাজ্যসভা (d) বিধানসভা

Ans. (b) বিধান পরিষদ

26. রাজ্য আইনসভার নিম্নকক্ষ হলো –

(a) বিধানসভা (b) লোকসভা (c) রাজ্যসভা (d) বিধান পরিষদ

Ans. (a) বিধানসভা

27. বিধানসভার সদস্য হওয়ার জন্য পদপ্রার্থীর ন্যূনতম বয়স হলো –

(a) ১৮ বছর (b) ২০ বছর (c) ২৫ বছর (d) ৩০ বছর

Ans. (c) ২৫ বছর

28. বর্তমানে ভারতের কটি রাজ্যের আইনসভা দ্বিকক্ষবিশিষ্ট?

(a) ৪টি (b) ৫টি (c) ৬টি (d) ৭টি

Ans. (d) ৭টি

29. বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভার নির্বাচিত সদস্যসংখ্যা হলো —

(a) ২৫০ (b) ২৯০ (c) ২৯২ (d) ২৯৪

Ans. (d) ২৯৪

30. সংসদীয় কমিটিগুলির প্রধান কে?

(a) সংসদীয় মন্ত্রী (b) লোকসভার অধ্যক্ষ (c) রাজ্যসভার চেয়ারম্যান (d) প্রধানমন্ত্রী

Ans. (b) লোকসভার অধ্যক্ষ

রচনাধর্মী প্রশ্নোত্তর [ মান ৮ ]

1. রাজ্যসভার গঠন, ক্ষমতা ও কার্যাবলি আলোচনা করো।

2. ভারতীয় পার্লামেন্টের আইন পাশের পদ্ধতি ব্যাখ্যা করো।

3. লোকসভার স্পিকারের ভূমিকা আলোচনা করো।

অথবা, লোকসভার অধ্যক্ষ বা স্পিকারের ক্ষমতা ও পদমর্যাদা আলোচনা করো।

অথবা, লোকসভার স্পিকারের ক্ষমতা, কার্যাবলি ও পদমর্যাদা সংক্ষেপে লেখো।

4. পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভার স্পিকারের ভূমিকা আলোচনা করো।

অথবা, বিধানসভার অধ্যক্ষ বা স্পিকারের ক্ষমতা ও পদমর্যাদা আলোচনা করো।

অথবা, বিধানসভার স্পিকারের ক্ষমতা, কার্যাবলি ও পদমর্যাদা সংক্ষেপে লেখো।

5. অর্থবিল কাকে বলে? লোকসভায় কীভাবে অর্থবিল পাশ হয়?

6. রাজ্য প্রশাসনের কাঠামো বর্ণনা করো।

7. রাজ্য আইনসভার গঠন ও কার্যাবলি আলোচনা করো।

অথবা, পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভার ক্ষমতা ও কার্যাবলি লেখো

ভারতের বিচার বিভাগ | উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন  | HS Political Science Suggestion 

MCQ প্রশ্নোত্তর

সঠিক উত্তরটি নির্বাচন করো।

1. জেলার সর্বোচ্চ আদালত হলো—

(a) দায়রা আদালত (b) ন্যায় পঞ্চায়েত (c) জেলা জজের আদালত (d) মুনসেফ আদালত

Ans. (c) জেলা জজের আদালত

2. ভারতের সংবিধানের অভিভাবক –

(a) রাষ্ট্রপতি (b) প্রধানমন্ত্রী (c) সুপ্রিম কোর্ট (d) কেউই নন

Ans. (c) সুপ্রিম কোর্ট

3. রাষ্ট্রপতি এবং উপরাষ্ট্রপতির নির্বাচন-সংক্রান্ত বিবাদ মীমাংসা করে

(a) প্রধানমন্ত্রী (b) আইনমন্ত্রী (c) সুপ্রিম কোর্ট (d) হাইকোর্ট

Ans. (c) সুপ্রিম কোর্ট

4. ভারতের বিচার ব্যবস্থার শীর্ষে রয়েছে –

(a) সুপ্রিম কোর্ট (b) হাইকোর্ট (c) লোক আদালত (d) ক্রেতা সুরক্ষা আদালত

Ans. (a) সুপ্রিম কোর্ট

5. সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতির সংখ্যা –

(a) ২৬ (b) ২৭ (c) ২৮ (d) ৩০

Ans. (a) ২৬

6. ভারতের বিচার ব্যবস্থার প্রকৃতি হলো—

(a) খণ্ডিত (c) দ্বৈত (d) যুক্তরাষ্ট্রীয়

Ans. (b) অখণ্ড

7. রাজ্যের সর্বোচ্চ আদালত হলো—

(a) সুপ্রিম কোর্ট (b) লোক আদালত (c) হাইকোর্ট (d) ক্রেতা সুরক্ষা আদালত

Ans. (c) হাইকোর্ট

8. হাইকোর্টের বিচারপতিদের নিয়োগ করেন

(a) রাষ্ট্রপতি (b) প্রধানমন্ত্রী (c) উপরাষ্ট্রপতি (d) আইনমন্ত্রী

Ans. (a) রাষ্ট্রপতি

9. বর্তমানে ভারতে হাইকোর্টের সংখ্যা –

(a) ১৮ (b) ২০ (c) ২১ (d) ২৫

Ans. (c) ২১

10. হাইকোর্টের বিচারপতিদের অবসরকালীন বয়স হলো

(a) ৬০ বছর (b) ৬২ বছর (c) ৬৫ বছর (d) ৭০ বছর

Ans. (b) ৬২ বছর

11. হাইকোর্টের ক্ষমতার এলাকা হলো—

(a) ২টি (b) ৩টি (c) ৪টি (d) ৫টি

Ans. (a) ২টি

12. কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতিদের নিয়োগ করেন—

(a) রাজ্যপাল (b) মুখ্যমন্ত্রী (c) রাষ্ট্রপতি (d) প্রধানমন্ত্রী

Ans. (c) রাষ্ট্রপতি

13. সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের নিয়োগ করেন

(a) প্রধানমন্ত্রী (b) উপরাষ্ট্রপতি (c) রাষ্ট্রপতি (d) স্পিকার

Ans. (c) রাষ্ট্রপতি

14. ভারতের যুক্তরাষ্ট্রীয় আদালত হলো –

(a) সুপ্রিম কোর্ট (b) হাইকোর্ট (c) লোক আদালত (d) অধস্তন আদালত

Ans. (a) সুপ্রিম কোর্ট

15. সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের অবসরগ্রহণের বয়স হলো

(a) ৬০ বছর (b) ৬২ বছর (c) ৬৫ বছর (d) ৭০ বছর

Ans. (c) ৬৫ বছর

16. ভারতের সংবিধানের ব্যাখ্যাকর্তা হলোহলেন –

(a) রাষ্ট্রপতি (b) প্রধানমন্ত্রী (c) আইনমন্ত্রী (d) সুপ্রিম কোর্ট

Ans. (d) সুপ্রিম কোর্ট

17. ভারতের সর্বোচ্চ আপিল আদালত হলো—

(a) সুপ্রিম কোর্ট (b) হাইকোর্ট। (c) লোক আদালত (d) অধস্তন আদালত

Ans. (a) সুপ্রিম কোর্ট

18. সুপ্রিম কোর্টের আপিল এলাকার সংখ্যা –

(a) ৩ (b) ৪(c) ৫ (d) ৬

Ans. (b) ৪

19. স্বাধীন ভারতের প্রথম প্রধান বিচারপতি হলেন –

(a) হরিলাল কেনিয়া (b) ফতেমা বিবি (c) পি. সদাশিবম (d) কে.জি. বালাকৃষ্নণ

Ans. (a) হরিলাল কেনিয়া

20. ভারতের অভিলেখ আদালত হলো –

(a) সুপ্রিম কোর্ট (b) হাইকোর্ট। (c) তোক আদালত (d) ন্যায় পঞ্চায়েত

Ans. (a) সুপ্রিম কোর্ট

21. লোক আদালত প্রথম গঠিত হয়েছিল –

(a) কলকাতায় (b) মুম্বাইতে (c) দিল্লিতে (d) চেন্নাইয়ে

Ans. (c) দিল্লিতে

22. ক্রেতা সুরক্ষা আইন তৈরি হয় –

(a) ১৯৮৫ খ্রি. (b) ১৯৮৬ খ্রি. (c) ১৯৮৭ খ্রি. (d) ১৯৮৮ খ্রি.

Ans. (b) ১৯৮৬ খ্রি.

23. ন্যায় পঞ্চায়েতের সদস্যসংখ্যা –

(a) ৩ (b) ৫ (c) ৭ (d) ৯

Ans. (b) ৫

24. ক্রেতা আদালতের প্রধান উদ্দেশ্য হলো –

(a) ক্রেতাকে উৎসাহ দেওয়া (b) ক্রেতাদের সুরক্ষা দেওয়া (c) জিনিসের মান ঠিক করা (d) জিনিসপত্রের অপচয় বন্ধ করা

Ans. (b) ক্রেতাদের সুরক্ষা দেওয়া

25. সুপ্রিম কোর্টের কার্যক্ষেত্রকে মূলত ক’টি ভাগে ভাগ করা যায়?

(a) দুই ভাগে (b) তিন ভাগে (c) চার ভাগে (d) পাঁচ ভাগে

Ans. (c) চার ভাগে

26. ত্রিস্তরবিশিষ্ট ক্রেতা আদালতের সর্বোচ্চ স্তরটির নাম কী ?

(a) ব্লক স্তর (b) জাতীয় স্তর (c) জেলা স্তর (d) রাজ্য স্তর

Ans. (c) জেলা স্তর

27. যথাবিহিত আইন পদ্ধতি অনুসারে বিচার করতে পারে

(a) ব্রিটেনের লর্ডসভা (b) ভারতের সুপ্রিম কোর্ট (c) মার্কিন সুপ্রিম কোর্ট (d) কলকাতার হাইকোর্ট

Ans. (c) মার্কিন সুপ্রিম কোর্ট

28. সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের পদচ্যুত করেন

(a) প্রধানমন্ত্রী (b) রাষ্ট্রপতি (c) উপরাষ্ট্রপতি (d) প্রধান বিচারপতি

Ans. (b) রাষ্ট্রপতি

29. সুপ্রিম কোর্টের গঠন বিষয়ে বলা আছে সংবিধানের

(a) ১২৪ নং ধারায় (b) ১২৬ নং ধারায়। (c) ১৩১ নং ধারায় (d) ১৩২ নং ধারায়

Ans. (a) ১২৪ নং ধারায়

অতিসংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর [ মান – ১ ]

1. রাষ্ট্রপতি কখন সুপ্রিম কোর্টের পরামর্শ গ্রহণ করেন?

Ans. রাষ্ট্রপতি যদি মনে করেন আইন বা তথ্য-সংক্রান্ত বিষয়ে কোনো সর্বজনীন গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে বা উঠতে পারে, তাহলে তিনি সেই বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টের পরামর্শ চাইতে পারেন। (১৪৩(১) নং ধারা)।

2.সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের কীভাবে অপসারণ করা যায়?

Ans. সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের অপসারণ করার ক্ষেত্রে ইমপিচমেন্ট পদ্ধতির সাহায্য। – নেওয়া হয়। এই পদ্ধতি অনুযায়ী, রাষ্ট্রপতি কোনো বিচারপতিকে প্রমাণিত অসদাচরণ বা অসামর্থ্যের অভিযোগের ভিত্তিতে অপসারণ করতে পারেন। 3. ভারতের সুপ্রিম কোর্টের কার্যনির্বাহী প্রধান বিচারপতিকে কে নিয়োগ করেন?

Ans. ভারতের রাষ্ট্রপতি।

4. সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের বেতন, ভাতা ইত্যাদি কোন তহবিল প্রদান করা হয় ?

Ans. ভারতের সঞ্চিত তহবিল থেকে।

5. ভারতীয় সুপ্রিম কোর্টের মূল এলাকা বলতে কী বোঝায়?

Ans. কোনো মামলা সরাসরি সুপ্রিম কোর্টের যে এলাকায় দাখিল করা যায় তাকেই এলাকা বলে।

6. আপিল এলাকা বলতে কী বোঝায়?

Ans. সুপ্রিম কোর্টের যে এলাকায় নিম্ন আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করা যায়। সেই এলাকাকেই বলে আপিল এলাকা।

7. ভারতীয় সংবিধানের কত নং ধারা অনুযায়ী মৌলিক অধিকার রক্ষার জন্য নাগরিকগণ সুপ্রিম কোর্টের কাছে আবেদন জানাতে পারে ?

Ans. ৩২ নং ধারা।

8. সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের কার্যকাল কত দিন?

Ans. সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিরা ৬৫ বছর বয়স পর্যন্ত স্বপদে অধিষ্ঠিত থাকতে পারেন।

9. সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের কীভাবে নিযুক্ত করা হয়?

Ans. সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিরা রাষ্ট্রপতি কর্তৃক নিযুক্ত হন। তাদের নিয়োগের আগে। রাষ্ট্রপতিকে অবশ্যই প্রধান বিচারপতির সাথে পরামর্শ করতে হবে।

10. হাইকোর্টের বিচারপতিদের কার্যকালের মেয়াদ কত দিন?

Ans. হাইকোর্টের বিচারপতিরা ৬২ বছর বয়স পর্যন্ত স্বপদে অধিষ্ঠিত থাকতে পারেন। অবশ্য তার পূর্বেই তারা পদত্যাগ করতে পারেন অথবা পদচ্যুত হতে পারেন।

11. হাইকোর্টের বিচারপতির পদে নিযুক্ত হওয়ার মোগ্যতা কী?

Ans. হাইকোর্টের বিচারপতি পদে নিযুক্ত হওয়ার জন্য — বিচারপতিকে অবশ্যই ভারতীয় নাগরিক হতে হবে। ভারতের কোনো বিচারালয়ে কমপক্ষে ১০ বছর যেকোনো বিচারবিভাগীয় পদে কাজের অভিজ্ঞতা অথবা অন্তত ১০ বছর কোনো হাইকোর্টে বা দুই বা ততোধিক। হাইকোর্টে একাদিক্রমে আইনজীবী হিসেবে কাজ করার অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

12. ভারতের সর্বোচ্চ আপিল আদালতের নাম কী ?

Ans. সুপ্রিম কোর্ট।

13. লোক আদালত গঠনের উদ্দেশ্য কী?

Ans. সাধারণ মানুষের জন্য স্বল্প ব্যয়ে, সহজ উপায়ে, দ্রুত বিরোধ নিষ্পত্তির ব্যবস্থা করাই তোক আদালত গঠনের উদ্দেশ্য।

14. লোক আদালতের এক্তিয়ারভুক্ত বিষয়গুলি কী?

Ans. লোক আদালতের এক্তিয়ারভুক্ত বিষয়গুলি হলো, পথ দুর্ঘটনা-সংক্রান্ত ক্ষতিপূরণ নির্ধারণ, সম্পত্তি বিষয়ক বিরোধ, দাম্পত্য বিরোধের মীমাংসা ইত্যাদি।

15. ভারতে অখণ্ড বিচার ব্যবস্থা বলতে কী বোঝো?

Ans. ভারতীয় যুক্তরাষ্ট্রে দ্বৈত বিচার ব্যবস্থার পরিবর্তে সারা দেশের জন্য অখণ্ড বিচার ব্যবস্থা প্রবর্তিত হয়েছে। এই অখণ্ড বিচার ব্যবস্থার শীর্ষে রয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। এছাড়া রয়েছে অঙ্গরাজ্যগুলির হাইকোর্ট এবং বিভিন্ন ধরনের অধস্তন আদালত। 16. ভারতের সর্বোচ্চ আদালত এবং সর্বনিম্ন আদালতের নাম লেখো।

Ans. ভারতের সর্বোচ্চ আদালতের নাম সুপ্রিম কোর্ট এবং সর্বনিম্ন আদালত হলো ন্যায় পঞ্চায়েত।

17. সুপ্রিম কোর্টের বিচারবিভাগীয় পর্যালোচনার ক্ষমতা বলতে কী বোঝায়?

Ans. কেন্দ্র ও অঙ্গরাজ্যগুলির দ্বারা প্রণীত সাংবিধানিক আইন, আদেশ বা নির্দেশের বৈধতা বিচারকে সুপ্রিম কোর্টের বিচারবিভাগীয় পর্যালোচনার ক্ষমতা বলে।

18. কোন কোন ক্ষেত্রে হাইকোর্ট সুপ্রিম কোর্টের চেয়ে বেশি ক্ষমতা ভোগ করে?

Ans. হাইকোর্ট সুপ্রিম কোর্টের থেকে বেশি ক্ষমতা ভোগ করে এমন দু’টি উল্লেখযোগ্য ক্ষেত্র হলো—নাগরিকদের মৌলিক অধিকার সংরক্ষণ ছাড়াও অন্য যে কোনো উদ্দেশ্যে। হাইকোর্ট লেখনির্দেশ জারি করতে পারে। কিন্তু এই ক্ষমতা ভারতের সুপ্রিম কোর্টের নেই। তাছাড়া জরুরি অবস্থাতেও হাইকোর্টের ‘বন্দি-প্রত্যক্ষীকরণ ইত্যাদি লেখ। জারির অধিকারকে সাময়িকভাবেও খর্ব করা যায় না।

19. ভারতের বিচার ব্যবস্থার দু’টি বৈশিষ্ট্য লেখো।

Ans. ভারতের বিচার ব্যবস্থার দুটি বৈশিষ্ট্য হলো- ভারতের বিচার ব্যবস্থা কেন্দ্রীভূত এবং অখণ্ড প্রকৃতির।

সারা দেশে প্রায় একই দেওয়ানি ও ফৌজদারি আইন অনুযায়ী বিচারকার্য সম্পাদন করা হয়।

20. আইনের যথাবিহিত পদ্ধতি (Due process of Law) বলতে কী বোঝায়?

Ans. আইনের যথাবিহিত পদ্ধতি’-র বিষয়টি বিচারবিভাগীয় সমীক্ষার প্রকৃতি বিশ্লেষণের একটি উল্লেখযোগ্য দিক। মার্কিন সুপ্রিম কোর্টে এই পদ্ধতি অনুসৃত হয়। উক্ত পদ্ধতি অনুযায়ী, সুপ্রিম কোর্ট আইনটি যথাযথ সাংবিধানিক পদ্ধতি অনুসরণ করে প্রণীত হয়েছে কি না তা খতিয়ে দেখে এবং তা স্বাভাবিক ন্যায়নীতি লঙ্ঘন করেছে কি না তা-ও বিচার করে। উল্লেখ্য যে ভারতের সুপ্রিম কোর্টের এই ক্ষমতা নেই।

21. আইন নির্দিষ্ট পদ্ধতি’ বলতে কী বোঝায়?

Ans. আইন নির্দিষ্ট পদ্ধতি’ বলতে উপযুক্ত আইনসভা কর্তৃক বিধিসম্মতভাবে প্রণীত আইনের মাধ্যমে নির্ধারিত পদ্ধতিকে বোঝানো হয়। এখানে আইন বলতে পার্লামেন্ট ও রাজ্য আইনসভা প্রণীত আইনের কথা বলা হয়েছে। ?

22. হাইকোর্টের মূল এলাকা কী?

Ans. রাজস্ব-সংক্রান্ত যাবতীয় বিষয় হাইকোর্টের মূল এলাকায় স্থান পেয়েছে। অনেক ক্ষেত্রে দেওয়ানি মামলাকেও মূল এলাকার অন্তর্ভুক্ত করা হয়। তবে সব হাইকোর্টের মূল এলাকাভুক্ত ক্ষমতা নেই। কেবলমাত্র কলকাতা, চেন্নাই ও মুম্বাই হাইকোর্টের এই ক্ষমতা রয়েছে।

23. লোক আদালতের দু’টি উপযোগিতা উল্লেখ করো।

Ans. লোক আদালতের দুটি উপযোগিতা হলো— লোক আদালত সমাজের দুর্বলতর শ্রেণিকে বিনামূল্যে আইনি সাহায্য দেওয়ার জন্য কাজ করে। এ লোেক আদালতগুলিতে মামলার নিষ্পত্তি দ্রুত হয়ে থাকে।

24. ভারতের সর্বোচ্চ ফৌজদারি আদালতের নাম কী ?

Ans. সুপ্রিম কোর্ট।

25. ভারতীয় সংবিধানের কত নং ধারা অনুযায়ী হাইকোর্ট নাগরিকদের মৌলিক অধিকার সংরক্ষণের ব্যবস্থা করতে পারে ?

Ans. ২২৬ নং ধারা।

26. সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি কীভাবে নিযুক্ত হন?

Ans. সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতিকে নিয়োগ করেন রাষ্ট্রপতি। অবশ্য নিয়োগের আগে রাষ্ট্রপতি প্রয়োজনমতো সুপ্রিম কোর্ট ও হাইকোর্টের বিচারপতিদের সঙ্গে পরামর্শ করতে পারেন।

27. বিচারবিভাগীয় স্বাতন্ত্র্য বলতে কী বোঝো?

Ans. বিচারপতিদের স্বাধীনতা ও নিরপেক্ষতা বজায় রাখার জন্য বিচার বিভাগের স্বাতন্ত্র জরুরি। বিচারবিভাগীয় স্বাতন্ত্র বলতে বোঝায় বিচার বিভাগকে আইন বিভাগ ও শাসন বিভাগের প্রভাব থেকে মুক্ত রাখা।

28. রাষ্ট্রপতি কী কারণে হাইকোর্টের কোনো বিচারপতিকে পদচ্যুত করতে পারেন?

Ans. রাষ্ট্রপতি প্রমাণিত অসদাচরণ বা অক্ষমতার অভিযোগে হাইকোর্টের কোনো বিচারপতিকে পদচ্যুত করতে পারেন।

29. সুপ্রিম কোর্টের বিচারকদের কে নিয়োগ করেন?

Ans. রাষ্ট্রপতি।
রচনাধর্মী প্রশ্নোত্তর [ মান – ৮ ]

1. বিচারবিভাগীয় সক্রিয়তা বলতে কী বোঝো? ভারতবর্ষে বিচারবিভাগীয় সক্রিয়তা রয়েছে কি?

2. বিচারবিভাগীয় সক্রিয়তা বলতে কী বোঝায়? ভারতীয় সুপ্রিম কোর্টের গঠন, ও কার্যাবলি ব্যাখ্যা করো।

3. ক্রেতা সুরক্ষা আদালত সম্পর্কে একটি টীকা লেখো।

4. বিচারবিভাগীয় সক্রিয়তা বলতে কী বোঝায়? ভারতীয় সুপ্রিম কোর্টের গঠন, ও কার্যাবলি ব্যাখ্যা করো।

5. ক্রেতা সুরক্ষা আদালত সম্পর্কে একটি টীকা লেখো।

6. হাইকোর্টের গঠন ও কার্যাবলি ব্যাখ্যা করো।

7. ভারতের তোক আদালতের গঠন ও কার্যাবলি বিশ্লেষণ করো।

8. ভারতের বিচার ব্যবস্থার বৈশিষ্ট্যসমূহ আলোচনা করো।

স্থানীয় স্বায়ত্তশাসন | উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন  | HS Political Science Suggestion 

MCQ প্রশ্নোত্তর [ মান – ১]

সঠিক উত্তরটি নির্বাচন করো।

1. পঞ্চায়েত ব্যবস্থার–স্তর হলো পঞ্চায়েত সমিতি।

(a) প্রথম (b) দ্বিতীয় (c) তৃতীয় (d) চতুর্থ

Ans. (b) দ্বিতীয়

2. পৌরসভার নির্বাচিত প্রতিনিধিদের বলা হয়

(a) মেয়র (b) কাউন্সিলর (c) সভাপতি (d) চেয়ারম্যান

Ans. (b) কাউন্সিলর

3. গ্রাম পায়েতের প্রথম সভা আহ্বান করেন—

(a) পঞ্চায়েত প্রধান (b) বিডিও (c) সভাপতি (d) সভাধিপতি

Ans. (b) বিডিও

4. পৌরসভার স্থায়ী কমিটির সংখ্যা –

(a) ৩ (b) ৪ (c) ৫ (d) ৬ ন্যায়

Ans. (a) ৩

5. পঞ্চায়েতের বিচারকদের কার্যকালের মেয়াদ কত?

(a) ৫ বছর (b) ৬ বছর (c) ৭ বছর (d) ৮ বছর

Ans. (a) ৫ বছর

6. পশ্চিমবঙ্গে ত্রিস্তর পঞ্চায়েত ব্যবস্থা চালু হয় –

(a) ১৯৭৭ সালে (b) ১৯৭৮ সালে (c) ১৯৮০ সালে (d) ১৯৮৫ সালে

Ans. (b) ১৯৭৮ সালে

7. পঞ্চায়েত ব্যবস্থার সর্বোচ্চ স্তর হলো।

(a) পঞ্চায়েত সমিতি (b) গ্রাম পঞ্চায়েত (c) জেলা পরিষদ (d) গ্রাম সংসদ

Ans. (c) জেলা পরিষদ

8. সংবিধানের ৭৪ তম সংশোধন আইন কোন বছর থেকে কার্যকর হয় ?

(a) ১৯৯৩ সাল (b) ১৯৯৪ সাল (c) ১৯৯৫ সাল (d) ১৯৯৬ সাল

Ans. (a) ১৯৯৩ সাল

9. পশ্চিমবঙ্গের জেলা পরিষদগুলিতে প্রতিটি ব্লক থেকে কতজন সদস্য জনগণের দ্বারা নির্বাচিত হন?

(a) ২ জন (b) ৩ জন (c) ৪ জন (d) ৫ জন

Ans. (a) ২ জন

10. পশ্চিমবঙ্গের পঞ্চায়েত আইন প্রণীত হয় –

(a) ১৯৪৭ সালে (b) ১৯৭৩ সালে (c) ১৯৭৭ সালে (d) এর কোনোটিই নয়

Ans. (b) ১৯৭৩ সালে

11. বর্তমানে কলকাতা পৌরনিগমে কাউন্সিলরের সংখ্যা হলো –

(a) ১৪১ (b) ১৪২ (c) ১৪৫ (d) ১৫০

Ans. (a) ১৪১

12. পশ্চিমবঙ্গের পায়ে ব্যবস্থার স্তর সংখ্যা –

(a) ২ (b) ৩ (c) ৪ (d) কোনো স্তর নেই

Ans. (b) ৩

13. গ্রাম পঞ্চায়েতের কার্যাবলি –

(a) ৩ ভাগে বিভক্ত (b) ৪ ভাগে বিভক্ত। (c) ৫ ভাগে বিভক্ত (d) ৬ ভাগে বিভক্ত

Ans. (a) ৩ ভাগে বিভক্ত

14. কলকাতাতে কত সালে কপোরেশন গড়ে ওঠে?

(a) ১৯০২ সালে (b) ১৯১০ সালে (c) ১৯২০ সালে (d) ১৯২৭ সালে

Ans. (d) ১৯২৭ সালে

15. বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গে মোট পৌরসভার সংখ্যা কত?

(a) ১১৮ (b) ১১৯ (c) ১২০ (d) ১২১

Ans. (d) ১২১

16. গ্রাম পঞ্চায়েতের সর্বাধিক সদস্যসংখ্যা –

(a) ১০ (b) ১৫ (c) ২০ (d) ৩০

Ans. (d) ৩০

17. ভারতীয় সংবিধানের কত নং ধারায় গ্রাম পঞ্চায়েত গঠনের কথা বলা হয়েছে?

(a) ৩৬ নং ধারা। (b) ৩৮ নং ধারা (c) ৩৯ নং ধারা (d) ৪০ নং ধারা

Ans. (d) ৪০ নং ধারা

18. ভারতে প্রথম পঞবার্ষিকী পরিকল্পনা কত সালে শুরু হয়?

(a) ১৯৪৮ সাল(b) ১৯৪৯ সাল (c) ১৯৫০ সাল (d) ১৯৫১ সাল

Ans. (d) ১৯৫১ সাল

19. সংবিধানের ৭৪তম সংশোধনী কবে করা হয়?

(a) ১৯৯১ সালে (b) ১৯৯২ সালে। (c) ১৯৯৩ সালে (d) ১৯৯৪ সালে

Ans. (a) ১৯৯১ সালে

20. জাতীয় উন্নয়ন পরিষদ কবে গঠিত হয়?

(a) ১৯৫৫ সালে (b)১৯৫৬ সালে । (c) ১৯৫৭ সালে (d) ১৯৫৮ সালে

Ans. (d) ১৯৫৮ সালে

21. গ্রাম সংসদের সভায় কোরামের জন্য কতজন সদস্যের উপস্থিতি প্রয়োজন?

(a) এক-তৃতীয়াংশ (b) এক-চতুর্থাংশ (c) এক-পঞমাংশ (d) একের কুড়ি অংশ

Ans. (d) একের কুড়ি অংশ

22. জেলা পরিষদের মুখ্য পদাধিকারী হলেন—

(a) প্রধান (b) সভাপতি (c) সভাধিপতি (d) কেউই নন

Ans. (c) সভাধিপতি

23. গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্যদের কার্যকালের মেয়াদ –

(a) ৫ বছর (b) ৬ বছর (c) ৭ বছর (d) ৯ বছর

Ans. (a) ৫ বছর

24. পঞ্চায়েত সমিতির প্রশাসনিক প্রধান হলেন –

(a) চেয়ারম্যান (b) বিডিও (c) এসডিও (d) সভাধিপতি

Ans. (b) বিডিও

25. কলকাতা কর্পোরেশনের ‘স-পরিষদ মেয়র’-এর। সদস্যসংখ্যা –

(a) ১০ (b) ১২ (c) ১৪ (d) ১৫

Ans. (b) ১২

26. পশ্চিমবঙ্গে গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধানকে বলা হয় –

(a) গ্রামপ্রধান (b) সরপ (c) সভাপতি (d) চেয়ারম্যান।

Ans. (a) গ্রামপ্রধান

27. গ্রাম পঞায়েতের কার্যকাল হলো –

(a) ৩ বছর (b) ৪ বছর (c) ৫ বছর (d) ৬ বছর

Ans. (c) ৫ বছর

28. পঞ্চায়েত সমিতির প্রধান হলেন –

(a) সভাপতি (b) সভাধিপতি (c) প্রধান (d) এসডিও

Ans. (b) সভাধিপতি

29. ৭৪তম সংবিধান সংশোধনী আইন পাশ হয় –

(a) ১৯৯২ সালে (b) ১৯৯৩ সালে (c) ১৯৯৫ সালে (d) ১৯৯৮ সালে

Ans. (a) ১৯৯২ সালে

30. পঞ্চায়েত সমিতির প্রশাসনিক আধিকারিক হলেন –

(a) এসডিও (b) বিডিও (c) সভাপতি (d) ডিএম গ্রাম

Ans. (b) বিডিও

31. পঞ্চায়েত গঠিত হয় –

(a) ৫-৩০ জন সদস্য নিয়ে (b) ৫-৩৫ জন সদস্য নিয়ে (c) ৩-৩০ জন সদস্য নিয়ে (d) ৫-৪০ জন সদস্য নিয়ে

Ans. (a) ৫-৩০ জন সদস্য নিয়ে
অতিসংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর [ মান – ১ ]

1.ক্ষুদ্র জেলাশাসক’ কাকে বলা হয়?

Ans. ক্ষুদ্র জেলাশাসক বলা হয় মহকুমা শাসককে (SDO)।

2. পশ্চিমবঙ্গের পৌরসভাগুলির আয়ের দুটি উৎস উল্লেখ করো।

Ans. পশ্চিমবঙ্গের পৌরসভাগুলির আয়ের দুটি উৎস হলো— (a) শহরবাসীর জমি ও বাড়ির ওপর ধার্য কর এবং (b) রাজ্য সরকারের কাছ থেকে প্রাপ্ত অর্থ সাহাৰ্য্য।

3. কর্পোরেশনের দু’টি অবশ্যকরণীয় কাজ কী?

Ans. কর্পোরেশনের দু’টি অবশ্যকরণীয় কাজ হলো— জল সরবরাহের ব্যবস্থা করা, ৩ আবর্জনা নিষ্কাশনের ব্যবস্থা করা। 4. নতুন পৌর আইনে পৌরসভার সদস্যদের কী বলা হয়?

Ans. পৌরসভার সদস্যদের নতুন আইনে কাউন্সিলর বলা হয়।

5. ব্লক প্রশাসনের দুটি কাজ লেখো।

Ans. ব্লক প্রশাসনের দুটি কাজ হলো — ব্লক স্তরে উন্নয়ন প্রকল্পগুলির দেখভাল করা এবং প্রশাসনের সঙ্গে জনগণের সরাসরি সংযোগ রক্ষার মাধ্যম হিসেবে কাজ করা।

6. গ্রাম সংসদের কাজ কী?

Ans. গ্রাম পঞ্চায়েতের নির্বাচনি এলাকার সব ভোটারকে নিয়ে গ্রাম সংসদ গাঠত হয়। এর কাজ হলো— নিজ নিজ এলাকার উন্নয়ন এবং ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠাকল্পে প্রয়োজনীয়। নির্দেশ ও উপদেশ দেওয়া; গ্রাম পঞ্চায়েতের বাজেট, বিগত ও পরবর্তী বছরের কাজকর্মের রিপোর্ট পর্যালোচনা করে প্রস্তাব দেওয়া ইত্যাদি।

7. গ্রাম পঞ্চায়েতের দুটি প্রধান কাজ উল্লেখ করো।

Ans. গ্রাম পায়েতের দু’টি কাজ হলো— পানীয় জল সরবরাহ করা, জলাধার পরিষ্কার ও জীবাণুমুক্ত রাখা। গ্রামের কুঁয়ো, পুকুর ও দিঘি খনন।

8. ন্যায় পঞ্চায়েত কী ?

Ans. ন্যায় পঞ্চায়েত বলতে বোঝায় গ্রাম স্তরে ছোটোখাটো দেওয়ানি ও ফৌজদারি মামলাগুলি নিষ্পত্তির জন্য গঠিত একটি স্বায়ত্তশাসিত সংস্থা। গ্রাম পঞ্চায়েত কর্তৃক নির্বাচিত পাঁচজন সদস্যকে নিয়ে ন্যায় পঞ্চায়েত গঠিত হয়।

9. জেলা পরিষদের স্থায়ী কমিটির গঠন পদ্ধতি ব্যাখ্যা করো।

Ans. জেলা পরিষদের স্থায়ী কমিটিগুলি জেলা পরিষদের সভাধিপতি, জেলা পরিষদ থেকে নির্বাচিত তিন থেকে পাঁচ জন সদস্য এবং সর্বাধিক তিন জন রাজ্য সরকারি কর্মচারী দ্বারা গঠিত।

10. নতুন পৌর আইনে কী হারে তপশিলি জাতি ও উপজাতিভুক্ত মহিলাদের জন্য। আসন সংরক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে?

Ans. নতুন পৌর আইন অনুসারে পৌরসভার মোট জনসংখ্যার আনুপাতিক হারে মোট আসনের এক-তৃতীয়াংশ আসন তপশিলি জাতি ও উপজাতির মহিলাদের জন্য সংরক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

11. নতুন পৌর আইনে পৌরসভার দৈনন্দিন কাজকর্ম পরিচালনার জন্য যে তিনটি কর্তৃপক্ষের সৃষ্টি করা হয়েছে সেই তিনটি কর্তৃপক্ষ কী?

Ans. নতুন পৌর আইনে দৈনন্দিন কার্য সম্পাদনের জন্য সৃষ্ট তিনটি কর্তৃপক্ষ লো— পৌরসভা, সভাপতি, স-পরিষদ সভাপতি।

12. কলকাতা কর্পোরেশনের সভা পরিচালনার দায়িত্ব কার? তিনি কত বছরের জন্য নির্বাচিত হন?

Ans. কলকাতা কর্পোরেশনের সভা পরিচালনার দায়িত্ব সভাপতি বা চেয়ারম্যানের। তিনি পাঁচ বছরের জন্য নির্বাচিত হন।

13. পঞ্চায়েত ব্যবস্থা ভারতীয় সংবিধানের কোন অংশে অন্তর্ভূক্ত হয়েছে?

Ans. সংবিধানের নবম অংশে।

14. পৌরসভার দুটি আবশ্যিক কাজ উল্লেখ করো। অথবা, মিউনিসিপ্যালিটির দুটি অবশ্যকরণীয় কাজ উল্লেখ করো।

Ans. পৌরসভার দুটি বাধ্যতামূলক কাজ হলো – জল সরবরাহ ও জল নিষ্কাশনের ব্যবস্থা করা এবং রাস্তাঘাট নির্মাণ।

15. পশ্চিমবঙ্গের পৌর অঞ্চলে তিনটি কর্তৃপক্ষ কী ?

Ans. পৌর অঞলের তিনটি কর্তৃপক্ষ হলো – পৌরসভা, স-পরিষদ চেয়ারম্যান এবং চেয়ারম্যান।

16. পৌরসভায় কয় প্রকার কমিটি আছে এবং সেগুলি কী?

Ans. পৌর আইন অনুসারে বর্তমানে পৌরসভায় ছয় ধরনের কমিটি আছে। যথা— ওয়ার্ড কমিটি, বরো কমিটি, যৌথ কমিটি, স্থায়ী কমিটি, ঐতিহ্য সংরক্ষণ কমিটি এবং বিশেষ কমিটি।

17. পৌরসভার চেয়ারম্যান কীভাবে নিযুক্ত হন?

Ans. নির্বাচনের পর কাউন্সিলর পরিষদের প্রথম সভায় চেয়ারম্যান নির্বাচন করা হয়। সাধারণ সংখ্যাগরিষ্ঠতার ভিত্তিতে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন অর্থাৎ চেয়ারম্যান নির্বাচনে যে সদস্য সর্বাধিক ভোট পান সংশ্লিষ্ট পৌরসভার চেয়ারম্যান হিসেবে তাকেই নিয়োগ করা হয়।

18. ওয়ার্ড কমিটি কীভাবে গঠিত হয়?

Ans. পৌরসভার প্রত্যেক ওয়ার্ডে একটি করে ওয়ার্ড কমিটি গঠন করা হয়। ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এবং অন্য কয়েকজন সদস্য নিয়ে এই কমিটি গঠিত হয়। ওয়ার্ড কমিটিতে কাউন্সিলর ব্যতীত সর্বাধিক ১৪ জন সদস্য থাকতে পারেন।

19. স্বায়ত্তশাসনের মূল লক্ষ্য কী?

Ans. ক্ষমতার বিকেন্দ্রীকরণের মাধ্যমে জনগণের ব্যাপক কল্যাণসাধন করা এবং গণতন্ত্রকে বিকশিত করে সর্বস্তরের মানুষের বেশিমাত্রায় যোগদান সুনিশ্চিত করাহ স্বায়ত্তশাসনের মূল লক্ষ্য।

20. কলকাতা কর্পোরেশনের তিনটি কর্তৃপক্ষ কী কী?

Ans. কলকাতা কর্পোরেশনের তিনটি কর্তৃপক্ষ হলো— কর্পোরেশন, স-পরিষদ মেয়র এবং মেয়র।

21. রাজ্য নির্বাচন কমিশনার কার দ্বারা নিযুক্ত হবেন?

Ans. রাজ্যপাল।

22. গ্রাম পঞ্চায়েতের নির্ণায়ক ভোট কী?

Ans. গ্রাম পঞ্চায়েতের কোনো সভায় কোনো প্রস্তাবের পক্ষে ও বিপক্ষে সমসংখ্যক ভোট পড়লে সভাপতি যে ভোট দিয়ে প্রস্তাবটির নিষ্পত্তি করেন, সেই ভোটকেই নির্ণায়ক ভোট বলে।

23. পঞ্চায়েত সমিতির স্থায়ী সমিতি’ কাদের নিয়ে গঠিত হয়?

Ans. পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি, পঞ্চায়েত সমিতির ৩-৫ জন সদস্য এবং রাজ্য সরকারের মনোনীত ৩ জন সরকারি কর্মচারী নিয়ে স্থায়ী সমিতি গঠিত হয়।

24. গ্রাম পঞ্চায়েত কীভাবে গঠিত হয়?

Ans. ১৯৭৩ সালের নতুন পঞ্চায়েত আইন অনুযায়ী কোনো একটি মৌজা বা সেটির কোনো অংশ অথবা পরস্পরের লাগোয়া কয়েকটি মৌজার সমষ্টি বা সেগুলির অংশ নিয়ে একটি গ্রাম পঞ্চায়েত গড়ে ওঠে। এর সদস্যসংখ্যা রাজ্য সরকারের ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক ঠিক করেন।

25. গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান ও উপপ্রধান কীভাবে নির্বাচিত হন?

Ans. নির্বাচনের পর নবগঠিত গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রথম সভায় সদস্যরা নিজেদের মধ্যে থেকে একজন প্রধান এবং একজন উপপ্রধান নির্বাচন করেন।

26. গ্রামসভা কাকে বলে?

Ans. গ্রাম পঞ্চায়েতের নির্বাচনি কেন্দ্রের সব নির্বাচককে নিয়ে যে সভা গঠিত হয় তাকে গ্রামসভা বলে।

27. গ্রাম সংসদ কী?

Ans. ১৯৯৪ সালের পঞ্চায়েত (সংশোধনী) আইন অনুসারে, পশ্চিমবঙ্গে প্রত্যেক গ্রাম পঞ্চায়েতের নির্বাচন কেন্দ্রের মধ্যে সব ভোটারকে নিয়ে গঠিত একটি সংস্থা হলো গ্রাম সংসদ।

28. গ্রাম সংসদের একটি কাজ লেখো।

Ans. গ্রাম সংসদের একটি কাজ এলাকার বিভিন্ন প্রকল্পের জন্য প্রয়োজনীয় নির্দেশ ও উপদেশ প্রদান।

29. পঞ্চায়েত ব্যবস্থার একটি গুরুত্ব লেখো।

Ans. পঞ্চায়েত ব্যবস্থায় জনগণের সরাসরি অংশগ্রহণ এবং নেতৃত্বদান সমাজের নিম্নবর্গের মানুষের মধ্যে একটি উল্লম্ব সামাজিক সচলতা সৃষ্টি করেছে।

30. গ্রাম সংসদের সভা কখন আহ্বান করা যায়?

Ans. গ্রাম সংসদের ষান্মাসিক সভা নভেম্বর মাসে ও বার্ষিক সভা মে মাসে আহূত হয়।

31. গ্রামসভা কাদের নিয়ে গঠিত হয়?

Ans. প্রতিটি গ্রাম পঞ্চায়েতের সকল ভোটদাতাকে নিয়ে গ্রামসভা গঠিত হয়।

32. পঞ্চায়েত সমিতির কার্যনির্বাহী আধিকারিক কে?

Ans. সংশ্লিষ্ট ব্লক উন্নয়ন আধিকারিক হলেন পঞ্চায়েত সমিতির কার্যনির্বাহী আধিকারিক।

33. ব্লক সংসদ কাদের নিয়ে গঠিত হয়?

Ans. পঞ্চায়েত সমিতির সব সদস্য এবং সংশ্লিষ্ট পঞ্চায়েত সমিতির অধীনস্থ সব গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্যদের নিয়ে ব্লক সংসদ গঠিত হয়।

34. জেলা পরিষদের প্রধান কে?

Ans. জেলা পরিষদের প্রধান হলেন সভাধিপতি।

35. গ্রাম পঞ্চায়েতের কার্যকালের মেয়াদ কতদিন?

Ans. নতুন সংশোধিত আইন অনুসারে পঞ্চায়েতের কার্যকাল ৫ বছর হয়েছে।

36. গ্রাম পয়েতের সদস্যদের কখন ও কেন অপসারণ করা যায়?

Ans. মহকুমা শাসক পঞ্চায়েতের যে সব সদস্য ফৌজদারি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত, পায়েতের তিনটি বৈঠকে অনুপস্থিত এবং যারা কর ফাঁকি দেয় তাদের পঞ্চায়েতের সদস্যপদ থেকে অপসারিত করতে পারে।

37. নবগঠিত গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রথম সভা কে আহ্বান করেন?

Ans. ব্লক উন্নয়ন আধিকারিক (B.D.O) নবগঠিত গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রথম সভা আহ্বান করতে পারেন।

38. পঞ্চায়েত সমিতির দুটি কাজ উল্লেখ করো।

Ans. সমিতির দু’টি কাজ হলো – গ্রামের জনহিতকর কার্যাবলি পরিচালনা করা। গ্রামের শিল্প, কৃষিকাজ, জনস্বাস্থ্য, জল সরবরাহ, শিক্ষার প্রসার প্রভৃতি বিষয় পরিচালনা করা।

39. পঞ্চায়েত সমিতির স্থায়ী কমিটিগুলি কাদের নিয়ে গঠিত হয়?

Ans. পঞ্চায়েতের স্থায়ী কমিটিগুলি সভাপতি ও সহ-সভাপতি দ্বারা গঠিত হয়।

40. জেলা পরিষদের দুটি কার্যাবলি উল্লেখ করো।

Ans. জেলা পরিষদের দু’টি কাজ হলো – রাজ্য সরকার প্রদত্ত কাজগুলি সম্পাদন করা। কৃষি, শিল্প, শিক্ষা, পশুপালন, সমবায় আন্দোলনের বিস্তার এবং জল সরবরাহ সুনিশ্চিত করা।

41. জেলা পরিষদের সভাধিপতির পদমর্যাদা কী ?

Ans. জেলা পরিষদের সভাধিপতির পদমর্যাদা একজন রাষ্ট্রমন্ত্রীর মর্যাদার সমান।

42. পৌরসভার দুটি স্বেচ্ছাধীন কাজের উল্লেখ করো।

Ans. পৌরসভার দুটি স্বেচ্ছাধীন কাজ হলো – পানীয় জল সরবরাহ পাঠাগার নির্মাণ করা।

43. জেলা পরিষদের দুটি প্রধান আয়ের উৎস উল্লেখ করো।

Ans. পশ্চিমবঙ্গে জেলা পরিষদের আয়ের দু’টি উৎস হলো – যানবাহন, খেয়াঘাট, সেচ প্রভৃতি থেকে সংগৃহীত কর এবং সরকারি ঋণ ও আর্থিক সাহায্য।

44. জেলা পরিষদের দুটি স্থায়ী কমিটির নাম লেখো।

Ans. জেলা পরিষদের দু’টি স্থায়ী কমিটি হলো – উন্নয়ন ও পরিকল্পনা-সংক্রান্ত। স্থায়ী কমিটি, পরিবেশ-সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটি।

45. গ্রাম পঞ্চায়েতের আয়ের যেকোনো দুটি উৎস উল্লেখ করো।

Ans. গ্রাম পঞ্চায়েতের আয়ের দুটি উৎস হলো— কেন্দ্রীয় ও রাজ্য সরকারের সাহায্য, অনুদান ও ঋণ এবং ৩ জমি ও ঘরবাড়ির থেকে প্রাপ্ত অর্থ।

46. পঞ্চায়েত সমিতির আয়ের দুটি উৎস লেখো।

Ans. পঞ্চায়েত সমিতির আয়ের দুটি উৎস হলো— রাজ্য সরকার কর্তৃক প্রদত্ত ভূমিরাজস্বের অংশ, কেন্দ্রীয় ও রাজ্য সরকারের দেওয়া ঋণ ইত্যাদি।

47. কলকাতা পৌরনিগমের ‘স-পরিষদ মেয়র’ কীভাবে গঠিত হয়?

Ans. কলকাতা পৌরনিগমের মেয়র, ডেপুটি মেয়র এবং অনধিক ১০ জন মেয়র পারিষদ। সহ মোট ১২ জনকে নিয়ে কলকাতা পৌরনিগমের ‘স-পরিষদ মেয়র’ গঠিত হয়।

FILE INFO : উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন | WB HS Political Science Suggestion | WEST BENGAL HIGHER SECONDARY Political Science SUGGESTION WBCHSE

File Details:
PDF Name : উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন  | HS Political Science Suggestion 
Language : Bengali
Size : 833.5 kb 
No. of Pages : 63
Download Link : Click Here To Download
বিভিন্ন স্কুল বোর্ড পরীক্ষা, প্রতিযোগিতা মূলক পরীক্ষার সাজেশন, অতিসংক্ষিপ্ত, সংক্ষিপ্ত ও রোচনাধর্মী প্রশ্ন উত্তর (All Exam Guide Suggestion, MCQ Type, Short, Descriptive Question and answer), প্রতিদিন নতুন নতুন চাকরির খবর (Job News in Bengali) জানতে এবং সমস্ত পরীক্ষার এডমিট কার্ড ডাউনলোড (All Exam Admit Card Download) করতে winexam.in ওয়েবসাইট ফলো করুন, ধন্যবাদ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here