সিন্ধুতীরে – সৈয়দ আলাওল – কবিতা | মাধ্যমিক বাংলা সাজেশন | Madhyamik Bengali Suggestion WBBSE with PDF | WiN EXAM

0
26

মাধ্যমিক বাংলা – Madhyamik Bengali

সিন্ধুতীরে - সৈয়দ আলাওল - কবিতা | মাধ্যমিক বাংলা সাজেশন | Madhyamik Bengali Suggestion WBBSE with PDF | WiN EXAM

মাধ্যমিক বাংলা – Madhyamik Bengali অধ্যায় ভিত্তিতে প্রশ্নোত্তর  নিচে দেওয়া হল।  এবার পশ্চিমবঙ্গ মাধ্যমিক বাংলা পরীক্ষায় এই মাধ্যমিক দশম শ্রেণীর বাংলা সাজেশন ( WB Madhyamik Bengali Suggestion  | West Bengal Madhyamik Bengali Suggestion | WBBSE Board Class 10th Bengali Question and Answer with PDF file Download)  পরীক্ষার জন্য খুব ইম্পর্টেন্ট । আপনারা যারা আগামী মাধ্যমিক বাংলা পরীক্ষার জন্য মাধ্যমিক বাংলা সাজেশন  | Madhyamik Bengali Suggestion  | WBBSE Board Madhyamik Class 10th (X) Bengali Suggestion  Question and Answer খুঁজে চলেছেন, তারা নিচে দেওয়া প্রশ্ন ও উত্তর ভালো করে পড়তে পারেন। 

পশ্চিমবঙ্গ মাধ্যমিক দশম শ্রেণীর বাংলা নোট / সাজেশন (West Bengal WBCHSE Madhyamik Class X 10th Bengali Notes / Suggestion) | সিন্ধুতীরে – সৈয়দ আলাওল – কবিতা – MCQ প্রশ্নোত্তর, এককথায় প্রশ্নউত্তর, সংক্ষিপ্ত প্রশ্নউত্তর, ব্যাখ্যাধর্মী, প্রশ্নউত্তর

পশ্চিমবঙ্গ মাধ্যমিক দশম শ্রেণীর বাংলা সাজেশন (West Bengal WBCHSE Madhyamik Class X 10th Bengali Notes / Suggestion) সিন্ধুতীরে – সৈয়দ আলাওল – কবিতা – MCQ প্রশ্নোত্তর, এককথায় প্রশ্নউত্তর, সংক্ষিপ্ত প্রশ্নউত্তর, ব্যাখ্যাধর্মী, রচনাধর্মী প্রশ্নোত্তর এবং PDF ফাইল ডাউনলোড লিঙ্ক নিচে দেওয়া রয়েছে।

সিন্ধুতীরে – সৈয়দ আলাওল – কবিতা

বহুবিকল্পীয় প্রশ্ন (প্রশ্নমান-১)
সঠিক উত্তরটি নির্বাচন করো
১. ‘সিন্ধুতীরে’ কাব্যাংশটি ‘পদ্মাবতী’ কাব্যের কোন্ খণ্ডেব তৰ্গত ?
(ক) দেশযাত্রা (খ) খিলখণ্ড (গ) পদ্মা-সমুদ্রখণ্ড (ঘ) রত্নসেন-সাথীখণ্ড
Answer : (গ) পদ্মা-সমুদ্রখণ্ড
২. “দিব্য পুরী সমুদ্র মাঝার”-এ নিপতিতা হয়েছিল
(ক) কবি (খ) পদ্মাবতী (গ) রত্নসেন (ঘ) সমুদ্রকন্যা
Answer : (খ) পদ্মাবতী
৩. “কন্যারে ফেলিল যথা…!”–কন্যাকে ফেলেছিল
(ক) সমুদ্রতীরে (খ) রাজপুরীতে (গ) সমুদ্রের মাঝখানে (ঘ) পুষ্প কাননে
Answer : (গ) সমুদ্রের মাঝখানে
৪. দিব্য পুরী সমুদ্র মাঝার।’—“দিব্য পুরী’ বলতে এখানে বোঝানো হয়েছে
(ক) রাজপুরী (খ) স্বর্গীয় পুরী (গ) কুৎসিতপুরী (ঘ) পাতালপুরী
Answer : (খ) স্বর্গীয় পুরী
৫. “নাহি তথা দুঃখ ক্লেশ…”—কোথায় ‘দুঃখ ক্লেশ’ ছিল না?
(ক) রাজপুরীতে (খ) স্বর্গলোকে (গ) মর্ত্যলোকে (ঘ) দিব্যপুরীতে
Answer : (ঘ) দিব্যপুরীতে
৬. “সমুদ্রনৃপতি সুতা…।”—সমুদ্রপতি সুতা কে?
(ক) পদ্মা (খ) গঙ্গা (গ) যমুনা (ঘ) বেহুলা
Answer : (ক) পদ্মা
৭. সিন্ধুতীরের উপরের পর্বত ছিল
(ক) ঘরবাড়িতে পূর্ণ (খ) ফল-ফুলে সজ্জিত (গ) পশুপাখিতে ভরা (ঘ) জল-মানুষে পূর্ণ
Answer : (খ) ফল-ফুলে সজ্জিত
৮. “তাহাতে বিচিত্র টঙ্গি…।”—“টঙ্গি’ হল
(ক) দড়ি (খ) ছবি (গ) প্রাসাদ (ঘ) ফুল
Answer : (গ) প্রাসাদ
৯. “সখীগণ করি সঙ্গে…।”—সখীদের সঙ্গে নিয়ে পদ্মাবতী কোথায় আসত?
(ক) উদ্যানে (খ) রাজপুরীতে (গ) খেলার মাঠে (ঘ) রাজদরবারে
Answer : (ক) উদ্যানে
১০. “রূপে অতি রম্ভা জিনি…।”–রম্ভা হল
(ক) পদ্মাবতীর সখী (খ) সতী নারী (গ) স্বর্গের অপ্সরাবিশেষ (ঘ) নারদের স্ত্রী
Answer : (গ) স্বর্গের অপ্সরাবিশেষ
১১. সমুদ্রকন্যা কীসে রম্ভাকে জয় করেছে?
(ক) কথায় (খ) রূপে (গ) অর্থে (ঘ) জীবনী শক্তিতে
Answer : (খ) রূপে
১২. “বিস্মিত হইল বালা…।”—বালা কী দেখে বিস্মিত হয়েছিল?
(ক) নিপতিতা কন্যার অচৈতন্য অবস্থা দেখে (খ) নিপতিতা কন্যার কুৎসিত রূপ দেখে (গ) নিপতিতা কন্যার রূপের বাহার দেখে (ঘ) নিপতিতা কন্যার চাহনি দেখে
Answer : (গ) নিপতিতা কন্যার রূপের বাহার দেখে
১৩. অনুমান করে নিজ চিতে।” –‘নিজ চিতে’ বলতে বোঝানো হয়েছে
(ক) নিজ মনে (খ) নিজ হাতে (গ) নিজ বুদ্ধিতে (ঘ) নিজ কর্মফলে
Answer : (ক) নিজ মনে
১৪. “বেথানিত হৈছে কেশ-বেশ।”–‘বেথানিত’ অর্থে
(ক) বেদনাযুক (খ) অসংবৃত (গ) দৃষ্টিগোচর (ঘ) ব্যাথায় নত
Answer : (খ) অসংবৃত
১৫. “বাহুর কন্যার জীবন।”—‘বাহরক’ শব্দের অর্থ হল
(ক) হস্তদ্বারা (খ) ফিরে আসুক (গ) অবসান হোক (ঘ) বেরিয়ে যাক
Answer : (খ) ফিরে আসুক
১৬. “দণ্ড চারি এই মতে…।”—‘দণ্ড চারি’ হল
(ক) ৬০ মিনিট (খ) ৭০ মিনিট (গ) ৯০ মিনিট (ঘ) ৯৬ মিনিট
Answer : (ঘ) ৯৬ মিনিট
১৭. “বহু যত্নে চিকিৎসিতে”–চেতনা ফিরে পেল
(ক) পঞ্চকন্যা (খ) চিতোরের কন্যা (গ) চিতোরের রানি (ঘ) নাগকন্যা
Answer : (ক) পঞ্চকন্যা

অতিসংক্ষিপ্ত উত্তরধর্মী প্রশ্ন (প্রশ্নমান – ১)
১. “কন্যারে ফেলিল যথা…।”–কন্যাকে কোথায় ফেলা হয়েছিল?
Answer : কন্যাকে ফেলা হয়েছিল সমুদ্রের মাঝখানে দিব্যপুরীতে।
২. “অতি মনোহর দেশ…।”—কোন্ দেশকে ‘অতি মনোহর’ বলা হয়েছে?
Answer : সমুদ্রের মাঝে দিব্যপুরীকে ‘অতিমনোহর দেশ’ বলা হয়েছে।
৩. “তার পাশে রচিল উদ্যান।।”—কার পাশে উদ্যান রচনা করা হয়েছিল?
Answer : সমুদ্রতীরে যে-দিব্যস্থান ছিল—তার ওপরে ফল-ফুলে সজ্জিত পর্বতের পাশে উদ্যান রচনা হয়েছিল।
৪. “তাহাতে বিচিত্র টঙ্গি”—কোথাই ‘বিচিত্র টঙ্গি’ ছিল?
Answer : সিন্ধুতীরে দিব্যস্থানে যে-সুন্দর উদ্যান—সেই উদ্যানেই ছিল বিচিত্র টঙ্গি।
৫. “তথা কন্যা থাকে সর্বক্ষণ।”—উদ্ধৃতাংশে কার সম্পর্কে কথাটি বলা হয়েছে ?
Answer : উদ্ধৃতাংশে রূপকথার সমুদ্রপুরীর সমুদ্রকন্যা সম্পর্কে কথাটি বলা হয়েছে।
৬. “সিন্ধুতীরে রহিছে মাস।।” – উদ্ধৃতাংশে ‘মাঞ্জস’ কথাটির অর্থ কী? তা কীসের জন্য রয়েছে?
Answer : উদ্ধৃতাংশে ‘মাঞ্জস’ কথাটির অর্থ হল ভেলা জাতীয় জলযান বিশেষ। এটি সমুদ্রকন্যা পদ্মার যাতায়াতের জন্য রয়েছে।
৭. “অনুমান করে নিজ চিতে।”—কে, কী অনুমান করে ?
Answer : সমুদ্রকন্যা পদ্মা নিজের হৃদয়ে অনুমান করে যে, হয়তো কোনো স্বর্গীয় অপ্সরী দেবরাজ ইন্দ্রের অভিশাপে স্বর্গভ্রষ্ট হয়ে মর্তে অচৈতন্য অবস্থায় মাটিতে পড়ে আছে।
৮. “দেখে চারি সখী চারিভিত।” – উদ্ধৃতাংশে কোন্ চার সখীর কথা বলা হয়েছে ?
Answer : উদ্ধৃতাংশে মূৰ্ছিতা পদ্মাবতীর চারদিকে যে চারজন সখী অচৈতন্য অবস্থায় পড়েছিল, তাদের কথা বলা হয়েছে।
৯. “বেকত দেখিয়ে আঁখি”—উদ্ধৃতাংশটি কোন কবিতার অন্তর্গত? ‘বেকত | কথাটির অর্থ কী?
Answer : উদ্ধৃতাংশটি ‘সিন্ধুতীরে’ শীর্ষক কবিতার অন্তর্গত এবং ‘বেকত’ কথাটির অর্থ হল প্রকাশিত।
১০. “মোহিত পাইয়া সিন্দু-ক্লেশ।।”—কথাটির অর্থ কী?
Answer : সমুদ্রকন্যা পদ্মা মূৰ্ছিত পদ্মাবতীকে দেখে অনুমান করেছেন যে, হয়তো সমুদ্রের প্রবল ঝড়ে নৌকা ভেঙে সমুদ্র-ক্লেশে পীড়িত হয়ে অচৈতন্য অবস্থায় পড়ে আছে।
১১. “বাহুরক কন্যার জীবন।”–‘বাহুরক’কথাটির অর্থ কী? কোন কন্যার জীবন সম্পর্কে এ কথা বলা হয়েছে?
Answer : ‘বাহুরক’কথাটির অর্থ হল ফিরে আসুক। অচৈতন্য কন্যা পদ্মাবতী সম্পর্কে এ কথা বলা হয়েছে।
১২. “বিধি মোরে না কর নৈরাশ।।”—উক্তিটি কার? তার এরূপ উক্তির কারণ কী?
Answer : উক্তিটি সমুদ্রকন্যা পদ্মার। সে স্নেহপ্রবণ মন থেকে অচৈতন্য পদ্মাবতীর চেতনা ফিরিয়ে আনার জন্য যে চেষ্টা করছে, তার থেকে যেন সে বঞ্চিত না-হয়। চেতনা ফিরিয়ে আনাটাই তার মুখ্য প্রত্যাশা। তাই সে এমন উক্তি করেছে।
১৩. “উদ্যানের মাঝে নিল/পঞজনে বসনে ঢাকিয়া।” –কে, কাদের উদ্যানের মাঝে নিল?
Answer : সমুদ্রকন্যা পদ্মার নির্দেশে তার সখীরা অচৈতন্য চার সখীসহ পদ্মাবতীকে উদ্যানের মাঝে নিল।
১৪. “পঞ্চকন্যা পাইলা চেতন।”—পকন্যা কীভাবে চেতনা ফিরে পেল?
Answer : সমুদ্রকন্যা পদ্মা তার সখীদের নিয়ে অচৈতন্য পঞ্চকন্যাদের বহু যত্নে সেবা শুশ্রুষা করে চেতনা ফিরিয়ে আনল।
১৫. “চিকিৎসিমু প্রাণপণ /কৃপা কর নিরঞ্জন”—এ আবেদন কার ?
Answer : ‘সিন্ধুতীরে’ কবিতাংশে এ-আবেদন পদ্মার।
১৬. সখীরা অচৈতন্য কন্যার কতক্ষণ চিকিৎসা করেছিল ?
Answer : সখীরা অচৈতন্য কন্যার চারদণ্ড ধরে চিকিৎসা করেছিল।

ব্যাখ্যাভিত্তিক সংক্ষিপ্ত উত্তরধর্মী প্রশ্ন (প্রশ্নমান – ৩)
১. “সত্য ধর্ম সদা সদাচার।”—কোন্ স্থান সম্পর্কে কথাটি বলা হয়েছে ? সেই স্থানের বিশেষত্ব সংক্ষেপে লেখো। ১+২
২. “অতি মনোহর দেশ……।”- “সিন্ধুতীরে’ কবিতা অনুসরণে মনোহর দেশের বর্ণনা দাও।
৩. “তথা কন্যা থাকে সর্বক্ষণ।।–কন্যা কে? কন্যা কেথায় সর্বক্ষণ থাকে?
৪. “সখীগণ করি সঙ্গে আসিতে উদ্যানে রঙ্গে।
সিন্ধুতীরে রহিছে মাঞ্জস।।”
—সমুদ্রতীরে অবস্থিত উদ্যানে আসার জন্য কার ভেলা পাড়ে রয়েছে।
তিনি সিন্ধুতীরে এসে কী ঘটনা প্রত্যক্ষ করলেন, তা সংক্ষেপে বিবৃত করে। ১+২
৫. “নিপতিতা চেতন রহিত।”—কার লেখা, কোন্ কবিতার পঙক্তি এটি ? কার সম্পর্কে এ কথা বলা হয়েছে ? ১+২
৬. “দেখিয়া রূপের কলা বিস্মিত হইল বালা অনুমান করে নিজ চিতে।”
– উদ্ধৃতাংশটি কোন্ কবিতার অন্তর্গত? রূপের কলা দেখে বিস্মিত হয়ে উদ্দীষ্ট ব্যক্তি কী অনুমান করলেন? ১+২
৭. “বেথানিত হৈছে কেশ-বেশ।”—বেথানিত’ শব্দের অর্থ কী ? কেন কন্যার কেশ-বেশ বেথানিত হয়েছে বলে পদ্মাবতীর ধারণা ? ১+২
৮. “কিঞ্চিৎ আছয় মাত্র শাস।”—কার সম্পর্কে, কেন এ কথা বলা হয়েছে, তা সংক্ষেপে লেখো।
৯. “বাহুরক কন্যার জীবন।”—‘বাহুরক’ শব্দের অর্থ কী? কী ভেবে অচৈতন্য কন্যার জীবন ফিরিয়ে আনতে চাওয়া হয়েছে?
১০. “পিতার পুণ্যের ফলে মোহর ভাগ্যের বলে বাহুরক কন্যার জীবন।”
– উদ্ধৃতাংশটির বস্তা কে? তিনি কন্যার জীবন ফেরানোর জন্য কী ব্যবস্থা করেছিলেন ?
১১. “সিতীরে দেখি দিব্যথান।”– সিন্ধুতীরে দিব্যস্থান’কে দেখেছিলেন? দিব্যস্থান দেখে তিনি কী করলেন এবং এই কার্যাবলির মাধ্যমে তার কোন মানসিকতা প্রকাশ পেয়েছে?
১২. “পঞ্চকন্যা পাইলা চেতন।”—পঞকন্যা কীভাবে তাদের চেতনা ফিরে পেল, তা সংক্ষেপে লেখো।
রচনাধর্মী প্রশ্ন (প্রশ্নমান – ৫)
১. ‘সিন্ধুতীরে’ কবিতার বিষয়বস্তু সংক্ষেপে বিবৃত করো।
২. সিন্ধুতীরে’ কবিতাটির নামকরণের সার্থকতা বিচার করো।
৩. সিন্ধুতীরে’ শীর্ষক কবিতার অল্প পরিসরে যেভাবে সৈয়দ আলাওলের কবিপ্রকৃতির বৈশিষ্ট্য ফুটে উঠেছে, তা সংক্ষেপে বিবৃত করো।
৪. ‘সিন্ধুতীরে’ কাব্যাংশটি কোন কাব্যের অন্তর্গত? ‘সিন্ধুতীরে শাষণ কবিতাটির বিষয়বস্তু বিশ্লেষণ করে সমুদ্রকন্যার চরিত্রটি সংক্ষেপে বর্ণনা করো। ১+২
৫. “বাহুরক কন্যার জীবন।”—‘বাহরক’ শব্দের অর্থ কী? কোন্ কন্যার কথা বলা হয়েছে? কন্যার জীবন কে ফিরিয়ে আনতে চায় ? কীভাবে সে কন্যার জীবন ফিরিয়ে এনেছিল?
৬. “পঞ্চকন্যা পাইলা চেতন।”—পঞ্চকন্যা কারা? তারা কীভাবে চেতনা ফিরে পেল?
১+১+১+২

পাঠ্যগত ব্যাকরণ
বহুবিকলীয় প্রশ্ন (প্রশ্নমান – ১)
সঠিক উত্তরটি নির্বাচন করো
কারক-বিভক্তি
১. “সিন্ধুতীরে দেখি দিব্যস্থান।”—রেখাঙ্কিত পদটি হবে
(ক) করণকারকে ‘রে’ বিভক্তি (খ) কর্মকারকে ‘এ’ বিভক্ত (গ) অধিকরণ কারকে ‘এ’ বিভক্তি (ঘ) কর্তৃকারকে ‘এ’ বিভক্তি
Answer : (গ)
২. “তার পাশে রচিল উদ্যান।”—রেখাঙ্কিত পদটি হবে
(ক) কর্তৃকারকে ‘শূন্য’ বিভক্তি (খ) কর্মকারকে ‘শূন্য’ বিভক্তি (গ) অধিকরণ কারকে ‘শূন্য’ বিভক্তি (ঘ) করণকারকে ‘শূন্য’ বিভক্তি
Answer : (খ)
৩. “তুরিত গমনে আসি…।”—রেখাঙ্কিত পদটি হবে
(ক) কর্মকারকে ‘শূন্য’ বিভক্তি (খ) অধিকরণ কারকে ‘এ’ বিভক্তি (গ) করণকারকে ‘এ’ বিভক্তি (ঘ) সম্বন্ধপদে ‘এ’ বিভক্তি
Answer : (গ)
৪. “বিস্মিত হইল বালা…”—রেখাঙ্কিত পদটি হবে
(ক) করণকারকে ‘শূন্য’ বিভক্তি (খ) সম্বন্ধপদে ‘শূন্য’ বিভক্তি (গ) কর্তৃকারকে ‘শূন্য’ বিভক্তি (ঘ) অধিকরণ কারকে ‘শূন্য’ বিভক্তি
Answer : (গ)
৫. “পজনে বসনে ঢাকিয়া।”—রেখাঙ্কিত পদটি হবে
(ক) সম্বোধন পদে ‘এ’ বিভক্তি (খ) করণকারকে ‘এ’ বিভক্তি (গ) অধিকরণ কারকে ‘এ’ বিভক্তি (ঘ) কর্মকারকে ‘শূন্য’ বিভক্তি
Answer : (খ)
সমাস
৬. “অতি মনোহর দেশ।”—রেখাঙ্কিত পদটি হবে
(ক) মন এবং হর–দ্বন্দ্ব সমাস (খ) মনকে হরণ করে যে—উপপদ তৎপুরুষ সমাস (গ) মনকে হরকর্ম তৎপুরুষ সমাস (ঘ) মনের ন্যায় হর-উপমান কর্মধারয় সমাস
Answer : (খ)
৭. “সিন্ধুতীরে দেখি দিব্যস্থান।”—রেখাঙ্কিত পদটি হবে
(ক) সিন্ধুরূপ তীরে—রূপক কর্মধারয় সমাস (খ) সিন্ধুর তীর-সম্বন্ধ তৎপুরুষ সমাস, তাতে (গ) সিন্ধু নামক তীরে—মধ্যপদলোপী কর্মধারয় সমাস (ঘ) সিন্ধু এবং তীরে—দ্বন্দ্ব সমাস
Answer : (গ)
৮. “ইন্দ্রশাপে বিদ্যাধরি।”—রেখাঙ্কিত পদটি হবে
(ক) ইন্দ্র নামক শাপে—মধ্যপদলোপী কর্মধারয় সমাস (খ) ইন্দ্রের দ্বারা শাপেকর্ম তৎপুরুষ সমাস। (গ) ইন্দ্রের শাপ-সম্বন্ধ তৎপুরুষ সমাস, তাতে (ঘ) ইন্দ্র এবং শাপে—দ্বন্দ্ব সমাস।
Answer : (খ)
৯. “ইন্দ্রশাপে বিদ্যাধরি।”—রেখাঙ্কিত পদটি হবে
(ক) বিদ্যার ধরিসম্বন্ধ তৎপুরুষ সমাস (খ) বিদ্যা নামক ধরি-মধ্যপদলোপী কর্মধারয় সমাস (গ) বিদ্যাকে ধারণ করে যে-উপপদ তৎপুরুষ সমাস (খ) বিদ্যা ও ধরি—দন্দু সমাস
Answer : (গ)
১০. “তন্ত্রে মন্ত্রে মহৌষধি দিয়া।”-রেখাঙ্কিত পদটির ব্যাসবাক্যসহ সমাস
(ক) মহারূপ ঔষধি-রূপক কর্মধারয় সমাস (খ) মহা নামক ঔষধি-মধ্যপদলোপী কর্মধারয় সমাস (গ) মহা যে ঔষধি–কর্মধারয় সমাস (ঘ) মহায় ঔষধির ন্যায়—উপমিত কর্মধারয় সমাস
Answer : (গ)
বাক্য
১১. “অতি মনোহর দেশ”—বাক্যটিকে জটিল বাক্যে রূপান্তর করলে দাঁড়ায়।
(ক) দেশটা খুব খারাপ ছিল (খ) দেশ অতিমনোহর না-হয়ে যায় না (গ) দেশটি যা ছিল তা অতিমনোহর (ঘ) দেশ কিন্তু অতি মনোহর ছিল
Answer : (গ)
১২. “সিন্ধুতীরে রহিছে মাঞ্জস”—বাক্যটিকে জটিল বাক্যে রূপান্তর করলে দাঁড়ায়
(ক) সিন্ধু নামক তীরে রহিছে মাঞ্জস (খ) যেখানে সিন্ধুতীর সেখানে একটি মাঞ্জস রয়েছে (গ) সিন্ধুতীরে মাঞ্জস ছাড়া অন্য কিছু নেই (ঘ) মাঞ্জস রহিছে এবং সেটি সিন্ধুতীরেই রয়েছে
Answer : (খ)
১৩. “কিঞ্চিৎ আছয় মাত্র শ্বাস।”—বাক্যটিকে জটিল বাক্যে রূপান্তর করলে দাঁড়ায়
(ক) শ্বাস যা ছিল তা কিঞ্চিত্মাত্র (খ) শ্বাস ছিল এবং তা খুব কিঞ্চিত্মাত্র (গ) খুব বেশি শ্বাস ছিল না (ঘ) কিঞ্চিৎমাত্র শ্বাস ছিল না
Answer : (ক)
১৪. “পিতৃপুরে ছিল নিশি/নানাসুখে খেলি হাসি”—এটি কোন্ বাক্যের রূপ?
(ক) যৌগিক বাক্য (খ) সরলবাক্য (গ) জটিল বাক্য (ঘ) প্রশ্নবোধক বাক্য
Answer : (খ)
১৫. “অতি মনোহর দেশ/নাহি তথা দুঃখ ক্লেশ।”—বাক্যটি অত্যৰ্থক বাক্যে হবে
(ক) অতি মনোহর দেশে দুঃখ ক্লেশ নেই (খ) দেশটি মনোহর, তাই সেখানে দুঃখ ক্লেশ নেই (গ) অতিমনোহর দেশ বলে দুঃখ ক্লেশ নেই (ঘ) এটি দুঃখকষ্টবিহীন অতিমনোহর দেশ
Answer : (ঘ)
বাচ্য
১৬. “পওজনে বসনে ঢাকিয়া।”—বাক্যটিকে কর্মবাচ্যে রূপান্তর করলে দাঁড়ায়
(ক) পঞ্চজনের দ্বারা বসনে ঢাকা হইয়া (খ) পঞ্চজনে ঢাকিয়াছে এবং বসনে ঢাকিয়াছে (গ) পজানে বসনে না-ঢাকিয়া পারেনি (ঘ) পঙ্কজন ছাড়া অন্য কেউ বসনে ঢাকেনি
Answer : (ক)
১৭. “অনুমান করে নিজ চিতে।”—বাক্যটিকে ভাববাচ্যে রূপান্তর করলে দাঁড়ায়
(ক) অনুমান না-করিয়া পারেনি নিজ চিতে (খ) অনুমান করা হয় নিজ চিতে (গ) অনুমান করা হইয়াছে নিজ চিতের দ্বারা (ঘ) অনুমান করা হয়েছে এবং নিজ চিতেই করা হয়েছে
Answer : (খ)
১৮. “কন্যারে ফেলিল যথা”—বাক্যটির কর্মবাচ্যের রূপ হবে
(ক) কন্যাকে ফেলা হল (খ) কন্যারে যথারীতি ফেলা হল (গ) যথা ফেলা হল কন্যাকে (ঘ) কোনোটিই নয়
Answer : (খ)
১৯. “তথা কন্যা থাকে সর্বক্ষণ,”—বাক্যটি কোন বাচ্যে রয়েছে?
(ক) কর্মবাচ্যে (খ) কর্তৃবাচ্যে (গ) কর্মকর্তৃবাচ্য (ঘ) ভাববাচ্যে
Answer : (খ)
২০. “পঞ্চকন্যা পাইলা চেতন”—বাক্যটিকে ভাববাচ্যে পরিণত করলে হবে
(ক) পঞ্চকন্যার চেতনা পাওয়া হল (খ) পকন্যা চেতনা পেল (গ) পঞ্চকন্যার দ্বারা চেতন পাওয়া হল (ঘ) পঞ্চকন্যাও চেতনা পেল
Answer : (ক)

অতিসংক্ষিপ্ত উত্তরধর্মী প্রশ্ন (প্রশ্নমান – ১)
কারক-বিভক্তি
১. “কন্যারে ফেলিল যথা”—নিম্নরেখাঙ্কিত পদটির কারক-বিভক্তি নির্দেশ করো।
Answer : কন্যারে–কর্মকারকে ‘রে’ বিভক্তি।
২. “সিন্ধুতীরে দেখি দিব্যস্থান।”—‘সিন্ধুতীরে’পদটির কারক-বিভক্তি নির্দেশ করো।
Answer : সিন্ধুতীরে—অধিকরণ কারকে ‘এ’ বিভক্তি।
৩. “তার পাশে রচিল উদ্যান।”—‘উদ্যান’ পদটির কারক-বিভক্তি কী হবে?
Answer : উদ্যান—কর্মকারকে ‘শূন্য’ বিভক্তি।
৪. ‘তথা কন্যা থাকে সর্বক্ষণ।।”—‘কন্যা’ পদটির কারক-বিভক্তি লেখো।
Answer : কন্যা–কর্তৃকারকে ‘শূন্য’ বিভক্তি।
৫. “পিতৃপুরে ছিল নিশি..।”—“পিতৃপুরে’ পদটির কারক-বিভক্তি নির্দেশ করো।
Answer : পিতৃপুরে অধিকরণ কারকে ‘এ’ বিভক্তি।
সমাস
৬. “অতি মনোহর দেশ”—নিম্নরেখাঙ্কিত পদটির সমাস নির্ণয় করো।
Answer : মনোহর—মন হরণ করে যা-উপপদ তৎপুরুষ সমাস।
৭. “সমুদ্রনৃপতি সুতা/পদ্মা নামে গুণযুতা।”—নিম্নরেখাঙ্কিত পদটির ব্যাসবাক্যসহ সমাস নির্ণয় করো।
Answer : সমুদ্রনৃপতি—সমুদ্রের নৃপতি-সম্বন্ধ তৎপুরুষ সমাস।
৮. “সিন্ধুতীরে দেখি দিব্যস্থান।”—‘সিন্ধুতীরে’ পদটির সমাস নির্ণয় করো।
Answer : সিন্ধুতীরে—সিন্দুর তীরে-সম্বন্ধ তৎপুরুষ সমাস।
৯. “পিতৃপুরে ছিল নিশি…।”—নিম্নরেখাঙ্কিত পদটির সমাস নির্ণয় করো।
Answer : পিতৃপুরে—পিতার নির্মিত পুর, তাতে—মধ্যপদলোপী কর্মধারয় সমাস।
১০. “তন্ত্রে মন্ত্রে মহৌষধি দিয়া।”—নিম্নরেখাঙ্কিত পদটির ব্যাসবাক্যসহ সমাস লেখো।
Answer : মহৌষধি—মহান যে ঔষধি—উপমান কর্মধারয় সমাস।
বাক্য
১১. “অতি মনোহর দেশ/নাহি তথা দুঃখ ক্লেশ।”—সরলবাক্যে পরিণত করো।
Answer : দুঃখ-ক্লেশহীন অতি মনোহর দেশ।
১২. “দেখিয়া রূপের কলা/বিস্মিত হইল বালা।”—যৌগিক বাক্যে রূপান্তর করো।
Answer : বালা রূপের কলা দেখল এবং বিস্মিত হল।
১৩. “নিপতিতা মনোরমা/কিঞ্চিৎ আছয় মাত্র শ্বাস।”—জটিল বাক্যে রূপ দাও।
Answer : যে মনোরমা নিপতিতা তার মধ্যে কিঞিজ্ঞাত্র শ্বাস আছে।
১৪. “সখী সবে আজ্ঞা দিল/উদ্যানের মাঝে নিল/পঞজনে বসনে ঢাকিয়া।”—সরলবাক্যে কী হবে?
Answer : সব সখীকে আজ্ঞা দেওয়ার পর তারা পঞজনকে বসনে ঢেকে উদ্যানের মাঝখানে নিল।
১৫. “মধ্যেতে যে কন্যাখানি/রূপে অতি রম্ভা জিনি/নিপতিতা চেতন রহিত।।” —জটিল বাক্যে পরিবর্তন করো।
Answer : যে কন্যাটি অচৈতন্য অবস্থায় মাঝখানে শায়িত সে রূপে রম্ভাকেও জয় করে।
বাচ্য
১৬. “কন্যারে ফেলিল যথা–কর্মবাচ্যে কী হবে?
Answer : কন্যারে যথারীতি ফেলা হল।
১৭. “তার পাশে রচিল উদ্যান।”—কর্মবাচ্যে পরিবর্তন করো।
Answer : তার পাশে রচিত হল উদ্যান অথবা, তার পাশে রচনা করা হল উদ্যান।
১৮. “তথা কন্যা থাকে সর্বক্ষণ।”—ভাববাচ্যে রূপান্তর করো।
Answer : তথা কন্যার থাকা হয় সর্বক্ষণ।
১৯. “সিন্ধুতীরে রহিছে মাঞ্জস।।”-কর্মবাচ্যে রূপ দাও।
Answer : সিন্ধুতীরে রাখা হয়েছে মাঞ্জস।
২০. “দেখে চারি সখী চারিভিত।”—কর্মবাচ্যে লেখো।
Answer : দেখা হয় চারি সখী চারিভিতে।

FILE INFO : Madhyamik Bengali Suggestion – WBBSE with PDF Download for FREE | মাধ্যমিক বাংলা সাজেশন বিনামূল্যে ডাউনলোড | সিন্ধুতীরে – সৈয়দ আলাওল – কবিতা (অতিসংক্ষিপ্ত ও সংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর)

File Details:
PDF Name : সিন্ধুতীরে – সৈয়দ আলাওল – কবিতা | মাধ্যমিক বাংলা সাজেশন
Language : Bengali
Size : 335.0 kb 
No. of Pages : 7
Download Link : Click Here To Download
বিভিন্ন স্কুল বোর্ড পরীক্ষা, প্রতিযোগিতা মূলক পরীক্ষার সাজেশন, অতিসংক্ষিপ্ত, সংক্ষিপ্ত ও রোচনাধর্মী প্রশ্ন উত্তর (All Exam Guide Suggestion, MCQ Type, Short, Descriptive Question and answer), প্রতিদিন নতুন নতুন চাকরির খবর (Job News in Bengali) জানতে এবং সমস্ত পরীক্ষার এডমিট কার্ড ডাউনলোড (All Exam Admit Card Download) করতে winexam.in ওয়েবসাইট ফলো করুন, ধন্যবাদ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here