দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন – বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – সমস্ত প্রশ্ন উত্তর | WBBSE Class 10th Life Science Suggestion PDF

0
31

দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন

WBBSE Class 10th Life Science Suggestion

দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন - বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ - সমস্ত প্রশ্ন উত্তর | WBBSE Class 10th Life Science Suggestion PDF
দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন – বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – সমস্ত প্রশ্ন উত্তর | WBBSE Class 10th Life Science Suggestion PDF

দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন – WBBSE Class 10th Life Science Suggestion – বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ অধ্যায় ভিত্তিতে প্রশ্নোত্তর  নিচে দেওয়া হল। এবার পশ্চিমবঙ্গ দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন পরীক্ষায় এই মাধ্যমিক দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন ( WB WBBSE Class 10th Life Science Suggestion  | West Bengal WBBSE Class 10th Life Science Suggestion | WBBSE Board Class 10th Life Science Question and Answer with PDF file Download) পরীক্ষার জন্য খুব ইম্পর্টেন্ট । আপনারা যারা আগামী দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন পরীক্ষার জন্য দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন  | WBBSE Class 10th Life Science Suggestion | WBBSE Board Madhyamik Class 10th (X) Life Science Suggestion Question and Answer খুঁজে চলেছেন, তারা নিচে দেওয়া প্রশ্ন ও উত্তর ভালো করে পড়তে পারেন। 

দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন | পশ্চিমবঙ্গ মাধ্যমিক সাজেশন/নোট (West Bengal WBBSE Class 10th Life Science Suggestion / Madhyamik Life Science Suggestion) | বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – MCQ, অতি সংক্ষিপ্ত, সংক্ষিপ্ত ও ব্যাখ্যাধর্মী প্রশ্নউত্তর

পশ্চিমবঙ্গ মাধ্যমিক দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন (West Bengal WBBSE Class 10th Life Science Suggestion / Notes) বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – প্রশ্ন উত্তর – MCQ প্রশ্নোত্তর, অতি সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন উত্তর (SAQ), সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন উত্তর (Short Question and Answer), ব্যাখ্যাধর্মী বা রচনাধর্মী প্রশ্নোত্তর (descriptive question and answer) এবং PDF ফাইল ডাউনলোড লিঙ্ক নিচে দেওয়া রয়েছে

বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ

দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন | বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – বহু বিকল্পভিত্তিক প্রশ্নোত্তর [MCQ]: [প্রতিটি প্রশ্নের মান-1]

1.একটি বিশুদ্ধ লম্বা মটরগাছের জিনােটাইপ হল—

        [A] TT      [B] Tt [C] tt     [D] TTtt

        [A] TT
2. দুটি সংকর লম্বা মটরগাছের মধ্যে সংকরায়ণ করা হলে F, জনুতে সংকর লম্বা মটর গাছ উৎপন্ন হবে—

        [A] 25%     [B] 50% [C] 75%     [D] 100%

        [B] 50%
3. ‘ফিলােজফিক জুয়লজিক’ গ্রন্থটির রচয়িতা হলেন—

        [A] ডারউইন     [B] ওপারিন [C] ভিস     [D] ল্যামার্ক

        [D] ল্যামার্ক
4. একজন স্বাভাবিক পুরুষ মানুষের ক্রোমােজোম সংযুক্তি হল—

        [A] 44A + XY     [B] 44A + XX [C] 44A + XYY      [D] 44A + XXY

        [A] 44A + XY
5. একটি শুদ্ধ কালাে (BB) ও একটি শুদ্ধ সাদা (bb) বর্ণের গিনিপিগের একসংকরায়ণ পরীক্ষায় F, জনুর কালাে ও সাদা অনুপাত হবে—

        [A] 1:2     [B] 2:1 [C] 1:3     [D] 3:1

        [D] 3:1
6. RrWw জিনােটাইপযুক্ত জীব থেকে যত প্রকার গ্যামেট সৃষ্টি হয় তার সংখ্যা—

        [A] 2টি     [B] 4টি [C] 6টি     [D] ৪টি

        [B] 4টি
7. একটি সংকর লম্বা মটরগাছের সঙ্গে একটি বেঁটে মটরগাছের সংকরায়ণ ঘটালে তাদের অপত্য হিসাবে কত ভাগ লম্বা মটর গাছ উৎপন্ন হবে?

        [A] 25%     [B] 50% [C] 75%      [D] 100%

        [B] 50%
8. মেণ্ডেলের একসংকর জননে জিনােটাইপের অনুপাত হল—

        [A] 3:1      [B]1:2:1 [C] 9:3:3:1      [D] 1:1:1:1

        [B]1:2:1
9. একটি ক্রোমােজোমের ওপর জিনের অবস্থান বিন্দুকে বলে—

         [A] অ্যালিন      [B] লােকাস [C] ফ্যাক্টর     [D] ট্রেইট

        [B] লােকাস
10. অটোজোমবাহিত জিনগত রােগ হল—

         [A] বর্ণান্ধতা     [B] রাতকানা [C] থ্যালাসেমিয়া     [D] হিমােফিলিয়া

        [C] থ্যালাসেমিয়া
11. বংশগতিবিদ্যার জনক হলেন—

         [A] গ্রেগর জোহান মেন্ডেল      [B] চার্লস ডারউইন [C] মিলার      [D] জোহানসেন

        [A] গ্রেগর জোহান মেন্ডেল
12. মেণ্ডেলের দ্বিসংকর জননে F, জনুতে ফিনােটাইপের অনুপাত হলাে—

        [A] 3:1      [B] 1:2:1   [C] 9:3:3:1   [D] 9:7

        [C] 9:3:3:1

দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন | বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – শূন্যস্থান প্রশ্নোত্তর : [প্রতিটি প্রশ্নের মান-1]

1. হিমােফিলিয়া _________________ বাহিত রােগ।

    Answer : অ্যালােজোম বা যৌন ক্রোমােজোম।
2. বংশগতির একক হল ______________

    Answer : জিন।
3. ক্রোমােজোমের পরিবর্তনের ফলে জীবের সৃষ্টি হয় ______________ ।

    Answer : প্রকরণ।
4. রােলার জীবের জন্য মানুষের __________________ ক্রোমােজোমের জিন দায়ী।

    Answer : অষ্টম।
5. বিপরীতধর্মী জিনযুক্ত জীবকে বলে _______________ ।

    Answer : হেটোরােজাইগাস।
6. _____________ রােগে দেহে লােহা জমে।

    Answer : থ্যালাসেমিয়া।
7. IR-৪, পদ্মা হল অধিক ফলনশীল – _________

    Answer : ধান।
8. ক্রোমােজোমের যে নির্দিষ্ট স্থানে অ্যালিন অবস্থান করে তাকে ______________ বলে।

    Answer : লােকাস।
9. নীল সংবেদী কোশে _____________ নামক রঞ্জক থাকে।

    Answer : সায়ানােলােব।
10. কোন্ প্রজাতির সমষ্টিগত ফিনােটাইপ নিয়ন্ত্রণকারী জিনগুলি বলে – ______________

    Answer : জিনপুল।
11. মানুষের চোখের রেটিনার ________________ প্রােটিন সবুজ ও লাল বর্ণ শনাক্ত করতে সাহায্য করে।

    Answer : অপসিন।
12. রােড আইল্যান্ড হল সংকর প্রজাতির – _________________ ।

    Answer : মুরগি।
13. ক্রোমােজোমের কোন্ অংশ একাধিকবার বর্তমান থাকলে তাকে, ____________________ বলে।

    Answer : ডুপ্লিকেশন।
14. মেণ্ডেলের সূত্রে একটি ব্যতিক্রমী ঘটনা হল _________________ ।

    Answer : অসম্পূর্ণ প্রকটতা।
15. ________________ -কে বংশগতির ধারক ও বাহক বলে।

    Answer : DNA
16. বাবা থেকে পরের প্রজন্মে কন্যায় বা কন্যা থেকে পুত্র বা নাতি___________তে জিনের সারণকে __ বলে।

    Answer : ক্রিসক্রস, উত্তরাধিকার।

দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন | বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – সত্য-মিথ্যা প্রশ্নোত্তর : [ প্রতিটি প্রশ্নের মান-1]

1. সংকর লম্বা মটর গাছের জিনােটাইপ হল Tt।

    Answer : সত্য
2. II জিনােটাইপ দ্বারা বিশুদ্ধ বেঁটে মটর গাছকে বােঝানাে হয়।

     Answer : মিথ্যা
3. মুক্ত ও যুক্ত কানের লতি মানুষের একপ্রকার প্রকরণ।

     Answer : মিথ্যা
4. থ্যালাসেমিয়া রােগে যকৃত, প্লীহার বৃদ্ধি ঘটে।

    Answer : সত্য
5. জীবের প্রকরণের প্রধান কারণ হল পরিবেশের প্রভাব।

     Answer : মিথ্যা
6. 44A + XY-হল একজন স্বাভাবিক মানুষের ক্রোমােজোম সংখ্যা।

    Answer : সত্য
7. একসংকর জনন টেস্টস অনুপাত হল 3:1।

    Answer : মিথ্যা
8. মেণ্ডেলের আবিষ্কৃত দ্বিতীয় সূত্রটি হল পৃথকীকরণের সূত্র।

     Answer : মিথ্যা
9. লাল ও সবুজ বর্ণান্ধতা বেশি দেখা যায়।

     Answer : সত্য
10. অ্যান্টি হিমােফিলিক ফ্যাক্টর হল—ফ্যাক্টর VIll.

     Answer : সত্য
11. সিকল সেল অ্যানিমিয়া রােগটির কারণ হল হিমােগ্লোবিন অণুর ত্রুটি।

     Answer : সত্য
12. হাইড্রপস্ ফিটালিস হল আসলে ভাইরাস ঘটিত রােগ।

     Answer : মিথ্যা
13. ডাউন সিনড্রোম রােগটি হল অটোজোম বাহিত।

     Answer : সত্য

দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন | বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – অতিসংক্ষিপ্ত উত্তরভিত্তিক প্রশ্নোত্তর : [প্রতিটি প্রশ্নের মান-1]

1. ডিম্বাণু ও শুক্রাণুর ক্রোমােজোম সংখ্যা কত?

    Answer : মানুষের দেহে ডিম্বাণু ও শুক্রাণুর প্রত্যেকটিতে 23টি করে ক্রোমােজোম থাকে।
2. বংশগতিতে প্রকট জনু বলতে কী বােঝাে?

    Answer : দুটি বিশুদ্ধ বিপরীত বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন জীবের মধ্যে পরিনিষেক ঘটালে প্রথম অপত্য বংশে (F1 জনু) উৎপন্ন সংকর জীবে যে বৈশিষ্ট্যটি প্রকাশিত হয় তাকে প্রকট বৈশিষ্ট্য বলে।
3. অটোজোমাল জিন কাকে বলে?

    Answer : যে সমস্ত জিনগুলি অটোজোমের মাধ্যমে বংশপরম্পরায় বাহিত হয় তাদের অটোজোমাল জিন বলে।
4. বংশগতিতে ক্রস’ কথাটির অর্থ কী?

    Answer : ক্রস’ কথাটির অর্থ হল যৌন জনন। একটি পুংগ্যামেট ও একটি স্ত্রী গ্যামেটের নিষিক্তকরণ বা মিলনই হল ‘ক্রস।
5. থ্যালাসেমিয়া রােগের লক্ষণ কী?

    Answer : এই রােগের লক্ষণ হল—অ্যানিমিয়া দেখা যায়। যার ফলে রক্তের অক্সিজেন পরিবহন ক্ষমতা কমে যায়।
6. মানুষের লিঙ্গ নির্ধারণ পদ্ধতিটি কী নামে পরিচিত?

    Answer : XX-XY লিঙ্গ নির্ধারণ পদ্ধতি বা হেটোরাগ্যামেটিক মেল পদ্ধতি নামে পরিচিত।
7. জীবদেহে প্রকরণ সৃষ্টির কারণ কী কী?

    Answer : জীবদেহে প্রকরণ সৃষ্টির কারণ হল মিউটেশন এবং পুনঃ সংযুক্তি বা রিকম্বিনেশন।
8. প্রকরণ কাকে বলে?

    Answer : জীবের জিনবস্তুর মধ্যে আকস্মিক পরিবর্তনের ফলে প্রকাশিত বৈশিষ্ট্যসমূহ বা বংশপরম্পরায় সারণের মাধ্যমে বিবর্তন ঘটায় তাকে প্রকরণ বলে।।
9. মেণ্ডেলবাদ কী?

    Answer : একসংকর ও দ্বিসংকর জনন থেকে প্রাপ্ত মেন্ডেলের সূত্রগুলিকে সাধারণভাবে মেণ্ডেলবাদ বলা হয়।
10. একটি TT জিনােটাইপ যুক্ত মটর গাছের সঙ্গে অপর একটি Tt জেনােটাইপ যুক্ত মটর গাছের সংকরায়ণ ঘটালে প্রথম অপত্য জনুতে প্রতিটি জিনােটাইপের উদ্ভিদ শতকরা কত ভাগ করে পাওয়া যাবে?

    Answer : বিশুদ্ধ লম্বা (T) = 50% সংকর লম্বা (Tt) = 50%
11. মানুষের দুটি জিনগত বৈশিষ্ট্য উল্লেখ করাে।

    Answer : মানুষের দুটি জিনগত বৈশিষ্ট্য হল—টাক পড়া ও চোখের মণির রং।
12. কে প্রথম হিমােফিলিয়া রােগটি আবিষ্কার করেন?

    Answer : বিজ্ঞানী John Otto (1803) প্রথম হিমােফিলিয়া রােগটি আবিষ্কার করেন।
13. মানুষের দেহে গ্লোবিন জিন কোন্ ক্রোমােজোমে থাকে?

    Answer : মানুষের দেহে 0 গ্লোবিন জিন 16নং ক্রোমােজোমে থাকে।

দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন | বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – সংক্ষিপ্ত উত্তরভিত্তিক প্রশ্নোত্তর :[ প্রতিটি প্রশ্নের মান-2]

1. বিশুদ্ধ বৈশিষ্ট্য কাকে বলে?

    Answer : ক্রোমােজোমের নির্দিষ্ট লােকাসে অবস্থিত দুটি সমআকৃতির অ্যালিল দ্বারা নিয়ন্ত্রিত জীবের বৈশিষ্ট্যকে বিশুদ্ধ বৈশিষ্ট্য বলে। উদাহরণ-মটর গাছের বিশুদ্ধ লম্বা কাণ্ড (TT}, বিশুদ্ধ খর্ব কাণ্ড (tt) ইত্যাদি।
2. লােকাস কাকে বলে?

    Answer : ক্রোমােজোমের যে নির্দিষ্ট স্থানে নির্দিষ্ট বৈশিষ্ট্যের জন্য দায়ী নির্দিষ্ট জিন অবস্থান করে, সেই স্থানকে ওই জিনের লােকাস বলে। যেমন—একজোড়া সমসংস্থ ক্রোমােজোমের কোনাে একটি নির্দিষ্ট স্থানে লম্বা বৈশিষ্ট্যের জন্য দায়ী জিন I অবস্থিত। এটিই হল লােকাস।
3. প্রকট জিন কাকে বলে? উদাহরণ দাও।

    Answer : কোনাে নির্দিষ্ট বৈশিষ্ট্য প্রকাশের জন্য প্রয়ােজনীয় যুগ্ম জিনের মধ্যে যে জিনটি হােমােজাইগাস ও হেটারাে জাইগাস উভয় অবস্থাতেই বৈশিষ্ট্যের প্রকাশ ঘটে, তাকে প্রকট জিন বলে। উদাহরণ-মটর গাছের লম্বা বৈশিষ্ট্যের জন্য দায়ী । জিনটি হােমােজাইগাস (TT) এবং হেটারােজাইগাস (Tt} উভয় অবস্থাতেই ‘লম্বা বৈশিষ্ট্যটির প্রকাশ ঘটায়। সুতরাং T জিনটি একটি প্রকট জিন।
4. জিনােম কী?

    Answer : কোনাে জীবের হ্যাপ্লয়েড (n) ক্রোমােজোম সেটে উপস্থিত সমস্ত জিনকে একত্রে জিনােম বলে।। মানুষের ক্ষেত্রে মােট ক্রোমােজোম 46টি, কিন্তু 23টি ক্রোমােজোমে যে পরিমাণ জিন উপস্থিত তাই তার জিনােম।
5. সংকরায়ণ কাকে বলে? সংকর কী?

    Answer : সংকরায়ণ—একই প্রজাতিভুক্ত বিপরীতধর্মী বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন দুটি জীবের মিলন ঘটানােকে সংকরায়ণ বলে। সংকর-সংকরায়ণ পদ্ধতিতে উৎপন্ন অপত্য জীবকে সংকর জীব বলা হয়।
6. ব্যাক ক্রস কাকে বলে?

    Answer : প্রথম অপত্য জনুর (F; জনু) সংকর জীবের সঙ্গে যে কোনাে জনিতৃ জনুর জীবের সংকরায়ণ ঘটানাের পদ্ধতিকে ব্যাক ক্রস বলে। লম্বা মটর গাছ। খর্ব মটর গাছ। tt গ্যামেট – Tt (সংকর লম্বা মটর গাছ) ব্যাক ক্রস : (i) Ttx TT (ii) Tt x tt
7. মেণ্ডেলীয় অস্বাভাবিকতা বলতে কী বােঝাে?

    Answer : কিছু কিছু ক্ষেত্রে দেখা যায় জনিতৃ জনু থেকে অপত্য জনুতে এমন কিছু চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য প্রকাশ পায় যা মেণ্ডেলের সূত্রগুলিকে মেনে চলে না। এই ঘটনাকে মেণ্ডেলীয় অস্বাভাবিকতা বলা হয়। ইহা তিন প্রকার। যথা- (i) সহপ্রকটতা : সন্ধ্যা মালতি ফুলের গােলাপি [Rr] বর্ণ ধারণ। (ii) সহপ্রকটতা : মানুষের MN রক্ত গ্রুপ। (ii) মাল্টিপল অ্যালিল :মানুষের ABO রক্ত গ্রুপ।
8. মানুষের বিভিন্ন ধরনের বর্ণান্ধতা সম্পর্কে উল্লেখ করাে।

    Answer : মানুষের বর্ণান্ধতা তিন প্রকারের হয়। (i) প্রােটানােপিয়া—লাল বর্ণান্ধতা। (ii) ডিউটেরােনােপিয়া—সবুজ বর্ণান্ধতা। (iii) সায়ানােপিয়া—নীল বর্ণান্ধতা।
9. মেন্ডেলের বংশগতির দ্বিতীয় সূত্রটি কী?

    Answer : দুই বা তার বেশি বিপরীতধর্মী যুগ্ম বৈশিষ্ট্যের উপাদানগুলি জনিতৃ থেকে অপত্য জনুতে সঞ্চারিত হলেও তারা মিশ্রিত হয় না বরং অপত্যের জনন কোশ তৈরির সময়ে এরা পরস্পর থেকে পৃথক হয় এবং সম্ভাব্য সকল প্রকার সমন্বয়ে স্বাধীনভাবে জননকোশে সারিত হয়। এটিই মেন্ডেলের বংশগতির দ্বিতীয় সূত্র বা স্বাধীন বিন্যাস সূত্র।
10. মেন্ডেলের বংশগতির প্রথম সূত্রটি কী?

    Answer : কোনাে জীবের নির্দিষ্ট একটি চরিত্রের অন্তর্গত একজোড়া বিপরীত বৈশিষ্ট্যের উপাদানগুলি জনিতৃ থেকে অপত্যে সঞ্চারিত হলেও তারা পরস্পর মিশে যায় না বরং অপত্যের গ্যামেট তৈরির সময়ে পরস্পর থেকে পৃথক হয়ে যায়। এটিই মেন্ডেলের বংশগতির প্রথম সূত্র বা পৃথকীভবনের সূত্র।

দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন | বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – দীর্ঘ উত্তরভিত্তিক প্রশ্নোত্তর : [প্রতিটি প্রশ্নের মান-5]

1. বংশগতির জনক কাকে বলা হয় ।

    Answer : গ্রেগার জোহান মেন্ডেলকে বংশগতির জনক বলা হয়।
মেন্ডেল নির্বাচিত মটর গাছের একজোড়া বিপরীতধর্মী বৈশিষ্ট্য : (i) বিশুদ্ধ লম্বা (TT) মটর গাছ ও (ii) বিশুদ্ধ খর্ব বা বেঁটে (tt) মটর গাছ।

পরীক্ষা পদ্ধতি ও পর্যবেক্ষণ :
(i) মেন্ডেল প্রথমে একটি বিশুদ্ধ লম্বা মটর গাছ ও একটি বিশুদ্ধ খর্ব মটর গাছের মধ্যে ইতর পরাগযােগ ঘটান।
(ii) নিষেকের ফলে উৎপন্ন বীজ অঙ্কুরিত হয়ে কেবলমাত্র লম্বা মটর গাছ উৎপন্ন করল।
(iii) এই জনকে ‘প্রথম অপত্য জন’ বা ‘F1 জনু’রুপে উল্লেখ করা হয়।
(iv) মেন্ডেল এরপর F1 জনুর গাছগুলির মধ্যে স্বপরাগযােগ ঘটালেন।
(v) দ্বিতীয় অপত্য জনু’ বা ‘F, জনুতে’ উৎপন্ন বীজগুলি অঙ্কুরিত হয়ে 3 ভাগ লম্বা ও 1 ভাগ খর্ব মটর গাছ সৃষ্টি করে।

2. মানুষের লিঙ্গ নির্ধারণ পদ্ধতি বর্ণনা করাে।

    Answer : মানুষের লিঙ্গ নির্ধারণ দুটি স্তরে নিয়ন্ত্রিত হয়, যথা—(i) প্রাথমিক লিঙ্গ নির্ধারণ, (ii) গৌণ লিঙ্গ নির্ধারণ। প্রাথমিক লিঙ্গ নির্ধারণ নির্ভর করে যৌন ক্রোমােজোমের প্রকৃতির ওপর। পক্ষান্তরে, যৌন হরমােনের দ্বারা গৌণ লিঙ্গ নির্ধারিত হয়।

(i) প্রাথমিক লিঙ্গ নির্ধারণ : মানুষের দেহকোশে 23 জোড়া হােমােলােগাস ক্রোমােজোম বা 46টি ক্রোমােজোম থাকে। এর মধ্যে 2টি ক্রোমােজোম লিঙ্গ নির্ধারণ করে বলে তাদের যৌন ক্রোমােজোম বা সেক্স ক্রোমােজোম বা অ্যালােজোম বলা হয়। অন্যান্য ক্রোমােজোমগুলি বিভিন্ন দেহজ বৈশিষ্ট্য নির্ধারণ করে বলে তাদের অটোজোম বলে। স্ত্রী দেহে যৌন ক্রোমােজোম দুটি অঙ্গসংস্থানগতভাবে একই প্রকারের হয়, এদেরকে X ক্রোমােজোম বলা হয়। কিন্তু পুরুষদের যৌন ক্রোমােজোম দুটি ভিন্ন প্রকৃতির হয়। এদের একটিকে X ক্রোমােজোম, অপরটিকে Y ক্রোমােজোম বলা হয়। স্ত্রীদেহের ক্রোমােজোম বিন্যাস—44A + XX এবং পুরুষ দেহের ক্রোমােজোম বিন্যাস–44A + XY। পুরুষের দেহে শুক্রাশয় থেকে উৎপন্ন শুক্রাণুগুলি দুই প্রকারের–22A + Y (অ্যান্ড্রোস্পার্ম) এবং 22A + X (গাইনােস্পার্ম)। কিন্তু স্ত্রী দেহের ডিম্বাশয় থেকে উৎপন্ন ডিম্বাণু এক প্রকারের—22A + X। এই কারণে পুরুষকে হেটেরােগ্যামেটিক এবং স্ত্রীকে হােমােগ্যামেটিক লিঙ্গ বলা হয়। ডিম্বাণু যদি অ্যান্ড্রোস্পার্ম দ্বারা নিষিক্ত হয় তাহলে সেই ভ্ৰূণ পুরুষরূপে (44A + XY) বিকাশ লাভ করে। অপরপক্ষে কোনাে ডিম্বাণু যদি গাইনােস্পার্ম দ্বারা নিষিক্ত হয় তাহলে সেই সূণ স্ত্রী রূপে (44A + XX) বিকাশ লাভ করে।
(ii) গৌণ লিঙ্গ নির্ধারণ : প্রাথমিকভাবে লিঙ্গ নির্ধারিত হওয়ার পরে বিভিন্ন প্রকার পুরুষ ও স্ত্রী যৌন হরমােনের প্রভাবে যথাক্রমে পুরুষ ও স্ত্রী গৌণ যৌন লক্ষণগুলি প্রকাশ পায়।

3. মিউটেশন তত্ত্বের প্রবক্তা কে? মিউটেশনের দুটি উপকারী এবং একটি ক্ষতিকর প্রভাব উল্লেখ করাে। মানুষের ক্ষেত্রে প্রকরণের একটি উদাহরণ দাও।

    Answer : মিউটেশন তত্ত্ব : ডাচ জীববিজ্ঞানী হুগাে দ্য ভিস 1901 খ্রিস্টাব্দে ইনােথেরা ল্যামার্কিয়ানাে উদ্ভিদের মধ্যে আকস্মিক পরিবর্তন লক্ষ করে মিউটেশন তত্ত্বের প্রবর্তন করেন।

মিউটেশনের দুটি উপকারী প্রভাব :

(i) অভিব্যক্তিতে মিউটেশনের প্রভাব : মিউটেশন বিবর্তনে সাহায্য করে। পৃথিবীতে জৈব বিবর্তনের শুরু থেকে স্বতঃস্ফূর্তভাবে মিউটেশন ঘটে চলেছে। জিন মিউটেশনের ফলে মিউট্যান্ট অ্যালিলের সৃষ্টি হয়, ফলে প্রকরণ বাড়ে এবং এর থেকেই নতুন প্রজাতির সৃষ্টি হয়।

(ii) কৃষিক্ষেত্রে মিউটেশনের প্রয়ােগ বা প্রভাব : বর্তমানে কৃষিবিজ্ঞানীরা বিভিন্ন ক্রোমােজোমীয় মিউটেশন প্রণােদিতভাবে ঘটিয়ে উচ্চফলনশীল ধান, গম, ভুট্টা, তুলাে, বার্লি এবং বীজহীন ফল তৈরিতে সক্ষম হয়েছেন। বার্লি, গম, ধান প্রভৃতির মিউট্যান্ট ভ্যারাইটি রােগ প্রতিরােধে সক্ষম। সােনালি আপেল, বীজহীন আঙুর, গােল্ডেন রাইস মিউটেশনের ফলে তৈরি হয়েছে।

মিউটেশনের একটি ক্ষতিকর প্রভাব : জিন মিউটেশনের ফলে অনেক সময় মানুষ সহ অন্যান্য প্রাণীর নানারকম রােগ দেখা যায়। যেমন—অটোজোমস্থিত একটি মিউট্যান্ট জিনের প্রভাবে হিমােগ্লোবিনের ত্রুটিজনিত কারণে কোশ অ্যানিমিয়া রােগ। আমাদের ক্রোমােজোমীয় মিউটেশনের ফলেও ক্রাই-ডু-চ্যাট সিনড্রোম ও ডাউন সিনড্রোম প্রভৃতি রােগ দেখা যায়।
মানুষের ক্ষেত্রে প্রকরণের দুটি উদাহরণ হল—রােলার জিভ ও সংযুক্ত কানের লতি। এক্ষেত্রে স্বাভাবিক জিনের জন্য দায়ী জিনটির মিউটেশনের ফলে যে অ্যালিল সৃষ্টি হয়, সেটি রােলার জিভের বা সংশ্লিষ্ট লতির জন্য দায়ী।

4. থ্যালাসেমিয়া কী? এর প্রকারভেদগুলি সম্পর্কে সংক্ষেপে লেখাে।

    Answer : থ্যালাসেমিয়া : জিনগত ত্রুটির কারণে সৃষ্ট যে বংশগত রােগে হিমােগ্লোবিনের গ্লোবিন অংশে কোনাে একটি পেপটাইড শৃঙ্খল সংশ্লেষিত হয় না অথবা স্বাভাবিক মাত্রার তুলনায় কম সংশ্লেষিত হয়, সেই বংশগত রােগকেই থ্যালাসেমিয়া বলে। এই রােগ হলে হিমােগ্লোবিনের পরিমাণ হ্রাস পায়, লােহিত রক্ত কণিকা ক্ষুদ্র হয়। এবং স্বল্পদিন বাঁচে। ফলস্বরূপ অ্যানিমিয়া বা রক্তাল্পতার লক্ষণ প্রকাশ পায়।

থ্যালাসেমিয়ার প্রকারভেদ : থ্যালাসেমিয়া প্রধানত দুই প্রকারের হয়।

যথা—(i) আলফা (0) থ্যালাসেমিয়া এবং (ii) বিটা (B) থ্যালাসেমিয়া।

(i) আলফা (0) থ্যালাসেমিয়া : হিমােগ্লোবিনের আলফা পেপটাইড শৃঙ্খলের সংশ্লেষণ হ্রাস পেলে বা বন্ধ হলে, তাকে আলফা 0 থ্যালাসেমিয়া বলে। মানুষের 16নং ক্রোমােজোম জোড়ার প্রতিটিতে দুটি করে মােট চারটি ৫ শৃঙ্খল উৎপাদনকারী অ্যালিল থাকে। এর মধ্যে দুটি অ্যালিলের মিউটেশন হলে a. থ্যালাসেমিয়া মাইনর ও চারটিতেই মিউটেশন ঘটলে @ থ্যালাসেমিয়া মেজর দেখা যায়।

(ii) বিটা (B) থ্যালাসেমিয়া : হিমােগ্লোবিনের বিটা পেপটাইড শৃঙ্খলের উৎপাদন বন্ধ হলে বা হ্রাস পেলে তাকে বিটা থ্যালাসেমিয়া বলে। বিটা থ্যালাসেমিয়ার আবিষ্কর্তা আমেরিকান চিকিৎসক থমাস বেনটন কুলির নামানুসারে একে কুলির অ্যানিমিয়া বলে। এটিও মেজর ও মাইনর দুই প্রকার হয়। 11নং ক্রোমােজোম জোড়ায় অবস্থিত B শৃঙ্খল সংশ্লেষণকারী দুটি অ্যালিলের মিউটেশন ঘটলে B থ্যালাসেমিয়া মেজর ও একটিতে মিউটেশন ঘটলে B থ্যালাসেমিয়া মাইনর ঘটে।

FILE INFO : WBBSE Class 10th Life Science Suggestion with PDF Download for FREE | দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন বিনামূল্যে ডাউনলোড | বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – প্রশ্ন উত্তর – MCQ প্রশ্নোত্তর, অতি সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন উত্তর, সংক্ষিপ্ত প্রশ্নউত্তর, ব্যাখ্যাধর্মী, প্রশ্নউত্তর

File Details:
PDF Name : দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন – বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – সমস্ত প্রশ্ন উত্তর | WBBSE Class 10th Life Science Suggestion PDF
Language : Bengali
Size : 848.3 kb
No. of Pages : 9
Download Link : Click Here To Download

পশ্চিমবঙ্গ মাধ্যমিক  জীবন বিজ্ঞান পরীক্ষার সম্ভাব্য প্রশ্ন উত্তর ও শেষ মুহূর্তের সাজেশন ডাউনলোড। দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন পরীক্ষার জন্য সমস্ত রকম গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন। West Bengal Madhyamik  Life Science Suggestion Download. WBBSE Madhyamik Life Science short question suggestion. WBBSE Class 10th Life Science Suggestion download. Madhyamik Question Paper Life Science. WB Madhyamik 2019 Life Science suggestion and important questions. WBBSE Class 10th Life Science Suggestion  pdf.

Get the WBBSE Class 10th Life Science Suggestion by winexam.in

 West Bengal WBBSE Class 10th Life Science Suggestion  prepared by expert subject teachers. WB Madhyamik Life Science Suggestion with 100% Common in the Examination.

Class 10th Life Science Suggestion

West Bengal Madhyamik  Life Science Suggestion Download. WBBSE Madhyamik Life Science short question suggestion. WBBSE Class 10th Life Science Suggestion  download. Madhyamik Question Paper Life Science.

বিষয় দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন – বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – প্রশ্ন উত্তর |  WB Madhyamik Life Science Suggestion

দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন (Madhyamik Life Science) বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – প্রশ্ন উত্তর

দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন | বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ

দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন পশ্চিমবঙ্গ মাধ্যমিক বোর্ডের (WBBSE) সিলেবাস বা পাঠ্যসূচি অনুযায়ী  দশম শ্রেণির জীবন বিজ্ঞান বিষয়টির সমস্ত প্রশ্নোত্তর। সামনেই মাধ্যমিক পরীক্ষা, তার আগে winexam.in আপনার সুবিধার্থে নিয়ে এল দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন সাজেশান – বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – প্রশ্ন উত্তর । জীবন বিজ্ঞানে ভালো রেজাল্ট করতে হলে অবশ্যই পড়ুন । আমাদের দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন

দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন | বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ

আমরা WBBSE মাধ্যমিক পরীক্ষার জীবন বিজ্ঞান বিষয়ের – বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – প্রশ্ন উত্তর – সাজেশন নিয়ে বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – প্রশ্ন উত্তর নিয়ে আলোচনা করেছি। আপনারা যারা এবছর দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন পরীক্ষা দিচ্ছেন, তাদের জন্য আমরা কিছু প্রশ্ন সাজেশন আকারে দিয়েছি. এই প্রশ্নগুলি পশ্চিমবঙ্গ দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন পরীক্ষা  তে আসার সম্ভাবনা খুব বেশি. তাই আমরা আশা করছি Madhyamik জীবন বিজ্ঞান পরীক্ষার সাজেশন কমন এই প্রশ্ন গুলো সমাধান করলে আপনাদের মার্কস বেশি আসার চান্স থাকবে।

WiN EXAM Institute

 এই (দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন – বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – সমস্ত প্রশ্ন উত্তর | WBBSE Class 10th Life Science Suggestion PDF) পোস্টটি থেকে যদি আপনার লাভ হয় তাহলে আমাদের পরিশ্রম সফল হবে। আরোও বিভিন্ন স্কুল বোর্ড পরীক্ষা, প্রতিযোগিতা মূলক পরীক্ষার সাজেশন, অতিসংক্ষিপ্ত, সংক্ষিপ্ত ও রোচনাধর্মী প্রশ্ন উত্তর (All Exam Guide Suggestion, MCQ Type, Short, Descriptive Question and answer), প্রতিদিন নতুন নতুন চাকরির খবর (Job News in Life Science) জানতে এবং সমস্ত পরীক্ষার এডমিট কার্ড ডাউনলোড (All Exam Admit Card Download) করতে winexam.in ওয়েবসাইট ফলো করুন, ধন্যবাদ।
Tags:Life Science ix, Life Science x, Life Science class ix, Life Science class x, Life Science ix and x, Life Science nine and ten, Life Science nine, Life Science ten, Life Science class nine, Life Science class ten, Life Science class nine and ten, class ix geograpgy, class x Life Science, class ix and x Life Science, wbbse, syllabus, madhyamik Life Science, madhyamik Jibon bigan, Jibon bigan madhyamik, class x Jibon bigan, madhyamiker Jibon bigan, madhyomik Jibon bigan, madhyomik Life Science, nobom shreni Jibon bigan, doshom shreni Jibon bigan, nobom and doshom shreni Jibon bigan, nabam shreni Jibon bigan, dasham shreni Jibon bigan, exam preparation, examination preparation, gr D preparation, group D preparation, preparation, rail, net, set, wbcs, psc, ssc, csc, upsc, poriksha prostuti, pariksha prastuti, দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন, দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন, মাধ্যমিক মাধ্যমিক, নবম শ্রেণি জীবন বিজ্ঞান, দশম শ্রেণি জীবন বিজ্ঞান, নবম শ্রেণি জীবন বিজ্ঞান, দশম শ্রেণি জীবন বিজ্ঞান, ক্লাস টেন জীবন বিজ্ঞান, মাধ্যমিকের জীবন বিজ্ঞান, জীবন বিজ্ঞান মাধ্যমিক – বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ, দশম শ্রেণী – বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ, মাধ্যমিক জীবন বিজ্ঞান বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ, ক্লাস টেন বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ, Madhyamik Life Science – বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ, Class 10th বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ, Class X বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ, লাইফ সায়েন্স, মাধ্যমিক লাইফ সায়েন্স, পরীক্ষা প্রস্তুতি, রেল, গ্রুপ ডি, এস এস সি, পি, এস, সি, সি এস সি, ডব্লু বি সি এস, নেট, সেট, চাকরির পরীক্ষা প্রস্তুতি, Madhyamik Suggestion, Madhyamik Suggestion , Madhyamik Suggestion , West Bengal Secondary Board exam suggestion, West Bengal Secondary Board exam suggestion , WBBSE,  WBBSE , মাধ্যমিক সাজেশান, মাধ্যমিক সাজেশান , মাধ্যমিক সাজেশান , মাধ্যমিক সাজেশন, দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন সাজেশান , দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন সাজেশান , দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন , দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন, মধ্যশিক্ষা পর্ষদ, Madhyamik Suggestion Life Science , WBBSE Class 10th Life Science Suggestion , WBBSE Class 10th Life Science Suggestion

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here