Categories: History

অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস প্রশ্ন ও উত্তর | History Question and Answer PDF

অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস প্রশ্ন ও উত্তর | History Question and Answer

অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস প্রশ্ন ও উত্তর | History Question and Answer : বন্ধুরা, আজকে আপনাদের জন্য আলোচনা করা হলো অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস প্রশ্ন ও উত্তর | History Question and Answer । স্কুল, কলেজ ও সমস্ত সরকারি চাকরীর পরীক্ষাতে বা প্রতিযোগিতা মূলক পরীক্ষার জন্য (All Comparative Exam: WBPSC, WBCS, WBP SI, WBP Constable, SSC, School Service, Railway exam etc) অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস খুবি গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। এই অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস প্রশ্ন ও উত্তর | History Question and Answer পড়লেই নিশ্চিত কমন পাবেন।

  ইতিহাসে ভালো রেজাল্ট করতে হলে অবশ্যই পড়ুন এই অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস প্রশ্ন ও উত্তর | History Question and Answer in Bengali । আপনারা যারা বিভিন্ন পরীক্ষার জন্য অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস প্রশ্ন ও উত্তর | History Question and Answer in Bengali খুঁজে চলেছেন, তারা নিচে দেওয়া প্রশ্ন ও উত্তর ভালো করে পড়তে পারেন। সাথে পিডিফ ফাইলের ডাউনলোড (PDF File Download) লিঙ্ক নীচে দেওয়া হয়েছে।

অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস

অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ ( সপ্তম খ্রিস্টাব্দ থেকে দ্বাদশ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত ) :

অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ : সপ্তম খ্রিস্টাব্দ থেকে দ্বাদশ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ গুলোর বিস্তারিত আলোচনা লোৱা হলো।

হর্ষবর্ধন ( ৬০৬-৬৪৭ খ্রিস্টাব্দ ) :

  • হর্ষবর্ধন ছিলেন পুষ্যভূতি বংশের এবং প্রভাকর বর্ধনের পুত্র ।
  • প্রকৃতপক্ষে তাদের রাজধানী ছিল থানেশ্বরে কিন্তু রাজধানী কনৌজ – এ স্থানান্তরিত হয়েছিল । ( হর্ষবর্ধনের মৃত্যুর পর তার উত্তরসূরিদের কাছ থেকে প্রতিহারগণ রাজ্য দখল করে । পাঞ্জাব , কনৌজ , বাংলা , বিহার এবং ওড়িশা এই পাঁচটি অঞ্চল তারা করায়ত্ত করেন ) ।
  • ৬২০ খ্রিস্টাব্দে নর্মদা নদীর তীরে মহান চালুক্যরাজকে দ্বিতীয় পুলকেশী পরাজিত করেন । দ্বিতীয় । পুলকেশী ‘সকলােত্তর – পথ – নাথ’ বা সমগ্র উত্তরের অধিকারী হিসাবে খেতাব গ্রহণ করেন ।
  • পরিব্রাজকের রাজকুমার চিনদেশীয় তীর্থ পর্যটক ফা – হিয়েন হর্ষবর্ধনের রাজত্বকালে পরিদর্শনে । এসেছিলেন । তিনি আটবছর ( ৬৩৫-৬৪৩ খ্রিস্টাব্দ ) হর্ষবর্ধনের রাজ্যে ছিলেন এবং তার বন্ধুত্ব । গ্রহণ করেছিলেন । হিউয়েন সাঙ ৬৪৩ খ্রিস্টাব্দে কনৌজে অনুষ্ঠিত মহা সম্মেলনের বিশদ বিবরণ রেখে গিয়েছেন হিন্দুধর্ম ও জৈনধর্মের প্রতিনিধির উপস্থিতির মাধ্যমে । প্রতি পাঁচ বছর অন্তর এলাহাবাদের নিকট প্রয়াগে হর্ষবর্ধন এক বিরাট মেলার আয়ােজন করতেন ।
  • হর্ষবর্ধন ছিলেন শিক্ষাদীক্ষার পৃষ্ঠপােষক । নালন্দায় তিনি একটি বিরাট মঠ স্থাপন করেন । বানভট্ট যিনি তাঁর রাজসভা অলংকৃত করতেন তিনি হর্ষচরিত ও কাদম্বরী রচনা করেছিলেন । হর্ষবর্ধন । নিজে প্রিয়দর্শিকা , রত্নাবলি এবং নাগানন্দ নামে তিনখানি নাটক রচনা করেছিলেন ।
  • ৬৪৭ খ্রিস্টাব্দে হর্ষবর্ধনের মৃত্যুর পর তার রাজ্য পুনরায় ছােটো ছােটো রাজ্যে বিভক্ত হয়।
  • ৬৭০ খ্রিস্টাব্দে ইংসিয়াং নামে অন্য এক চিনা তীর্থ পর্যটক ভারতে এসেছিলেন ।

ভুকটাকাস বংশ :

  • চালুক্যর উত্থানের আগে পর্যন্ত ভকটাকাস দাক্ষিণাত্য থেকে মধ্য ভারতের অংশ শাসন করতে ।
  • ব্রাত্মণ রাজ্যের প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন বিন্ধ্যশক্তি ।
  • প্রথম প্রবরসেন ছিলেন এই বংশের বিক্রমশালী রাজা যিনি চারবার অশ্বমেধ যজ্ঞ করেছিলেন ।
  • ভকটাক রাজা দ্বিতীয় রুদ্রসেনের কন্যা প্রভাবতীকে দ্বিতীয় চন্দ্রগুপ্ত বিবাহ করেন ।

বাতাপি – এর চালুক্য বংশ ( বাদামি ) :

  • এই বংশের প্রতিষ্ঠাতা হলেন প্রথম পুলকেশী ।
  • তাঁরা বাতাপি – তে রাজধানী স্থাপন করেন ( বর্তমান কর্ণাটকের বাদামি অঞ্চল ) । দ্বিতীয় পুলকেশী এই বংশের সর্বাপেক্ষা প্রসিদ্ধ রাজা যিনি হর্ষবর্ধনের সমসাময়িক ছিলেন । পারস্যের রাজা দ্বিতীয় । খুসরাের কাছে তিনি একজন দূত পাঠিয়েছিলেন । তার সভাকবি ছিলেন রবিকীর্তি যিনি আইহােল প্রশস্তি রচনা করেন । হিউয়েন সাঙ তার রাজ্য পরিদর্শন করেন ।
  • তাদের সময়ে তারা নৌবাহিনীতে পারদর্শী ছিলেন ।
  • চালুক্য রাজাদের আমলে অজন্তা ও ইলােরা গুহায় অনেক চিত্রাঙ্কন কাজের সমাপ্তি ঘটেছিল । তারা বেশ কয়েকটি সুন্দর মন্দির নির্মাণ করেছিল আইহােল এবং অন্যান্য স্থানে।
  • ভারতীয় মন্দির স্থাপত্যের দোলনা বলা হত আইহােল – কে ।

রাষ্ট্রকুট বংশ :

  • দান্তিদুর্গ এই বংশের প্রতিষ্ঠাতা ।
  • বাদামির চালুক্যদের অধীনে জেলা কর্মচারী ছিলেন ।
  • ইলােরার কৈলাশ মন্দিরে বিখ্যাত পাথর কাটা স্থাপত্যের জন্য তাদের রাজা প্রথম কৃয় স্মরণীয় । কবিরাজ মার্গ এবং প্রশ্নোত্তর নামে দুখানি কানাড়া ভাষায় কবিতার বই লেখেন । তার রাজধানীতে । মান্য ক্ষেত্র শহর নির্মাণ করেন ।
  • তাদের রাজা তৃতীয় কৃয় রামেশ্বরম জয় স্তম্ভ ও একটি মন্দির নির্মাণ করেন ।
  • এলিফেন্টার গুহা চিত্র নির্মাণের জন্য রাষ্ট্রকুটরা স্বনামধন্য । এই গুহা মহেশের প্রতিমূর্তি স্বরূপ শিবকে উৎসর্গ করা হয়েছিল যা ত্রিমূর্তি নামে সুপরিচিত । এই সময়ে ভারতের চিত্রকলার প্রভূত বিকাশ লাভ করে । শিবের তিনটি মূর্তি হল — সৃষ্টিকর্তা , রক্ষাকর্তা এবং ধ্বংসকর্তা ।

গঙ্গা বংশ :

  • গঙ্গা বংশকে ওড়িশার চেদগঙ্গা বলা হয়।
  • কোনারকের সূর্য মন্দির রাজা । নরসিংহদেব নির্মাণ করেন ।
  • পুরীতে বিখ্যাত জগন্নাথদেবের মন্দির নির্মাণ করেন গত্যা বাংশের । রাজা অনন্তবর্মন গঙ্গা নামে রাজা ।
  • কেসারি যিনি গঙ্গা রাজাদের আগে ওড়িশার শাসনকর্তা ছিলেন তিনি ভুবনেশ্বরের লিঙ্গরাজ মন্দির নির্মাণ করেন ।

পল্লব বংশ :

  • পল্লব বংশের প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন সিংহ বিষু । চেন্নাইয়ের দক্ষিণে কাঞ্চিতে তারা রাজকন্যা স্থ্যাপন করেন ।
  • প্রথম নরসিংহবর্মন তাদের শ্রেষ্ঠ রাজা ছিলেন । তিনি মমলপুরম ( মহাবলিপুরম ) শহর প্রতিষ্ঠা করেন । সুন্দর পাথর কেটে রথ বা সাত প্যাগােড়া নির্মাণ করে তিনি প্রসিদ্ধ হন । তাঁর রাজত্বকালে হিউয়েন সাঙ কাঞি পরিদর্শন করেন । তিনি রাজা দ্বিতীয় পুলকেশীকে পরাজিত করেন এবং ভটাপিকোন্দা ( Vatapikanda ) উপাধিধারণ করেন ।

চোল বংশ ( ৮৪৬-১২৭৯ খ্রিস্টাব্দ ) :

  • চোল বংশের প্রতিষ্ঠাতা বিজয়ালয়া । এর রাজধানী তারে ।
  • নবম শতাব্দীর শেষ দিকে বিজয়ালয়ার উত্তরসূরি প্রথম আদিত্য কাঞ্জির পল্লবদের বিতাড়িত করে এবং পাণ্ড্যদের দুর্বল করে দক্ষিণ তামিল রাজ্য তার করায়ত্ত্ব করেন । কিন্তু তারা রাষ্ট্রকুটদের সম্মুখীন হয়েছিল ।
  • প্রথম পুরাণটক মাদুরাই দখল করে কিন্তু টাকোলামের যুদ্ধে রাষ্ট্রকুট শাসক তৃতীয় কৃষ্ণুের নিকট তিনি পরাজিত হন । যদিও পরবর্তীকালে রাষ্ট্রকুটেরা পরাজিত হয়েছিল ।
  • মহানতম চোল শাসনকর্তারা ছিলেন প্রথম রাজারাজা ( ৯৮৫-১০১৪ খ্রিস্টাব্দ ) এবং তার পুত্র প্রথম রাজেন্দ্র ( ১০১৪-১০৪৪ খ্রিস্টাব্দ ) ।
  • দক্ষিণ ভারতে বৃহত্তম রাজ্য স্থাপন করেছিলেন রাজারাজা ।
  • শৈলেন্দ্র সাম্রাজ্যের ( মালয় পেনিনসুলা ) বিরুদ্ধে তিনি নৌবাহিনী অভিযানের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন । এবং চিনের সঙ্গে ব্যাবসা – বাণিজ্য চালু করেছিলেন ।
  • উত্তর শ্রীলঙ্কা পর্যন্ত তিনি রাজ্য বিস্তার করেছিলেন এবং নামকরণ করেছিলেন মুম্মাদি চোলমণ্ডল । মালদ্বীপও তিনি জয় করেছিলেন ।
  • তাঞ্জাভুরে তিনি রাজরাজেশ্বরী মন্দির ( বৃহদেশ্বর শিব মন্দিরও বলা হয় ) নির্মাণ করেন । তাঁর পুত্র প্রথম রাজেন্দ্র পুরাে শ্রীলঙ্কা রাজ্যভুক্ত করেন । উত্তরে দূরবর্তী গঙ্গা পর্যন্ত এবং পালরাজা মহীপালের রাজ্য পর্যন্ত গিয়েছিলেন । এর পর তিনি গাইকোণ্ড ’ উপাধি গ্রহণ করেন এবং ‘ গঙ্গাইকোপ্ত চোলপুরম ’ নামে রাজধানী স্থাপন করেন ।
  • এর পরে শ্রীবিজয় ( সুমাত্রা ) দখলের জন্য নৌবহর প্রেরণ করেন । + কিছু দিনের জন্য চোল নৌবহর ছিল সর্বাপেক্ষা শক্তিশালী নৌবহর ।
  • তার পুত্র – প্রথম রাজাধিরাজ অশ্বমেধ যজ্ঞ করেছিলেন ।
  • ১১১৫ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত সিংহল ছাড়া প্রথম কুলটুগার অধীনে চোল সাম্রাজ্য অপ্রতিরােধ্য ছিল । পূর্ব উপকূলে কৃয়ার সমগ্র দক্ষিণাঞ্চল এবং তুঙ্গভদ্রা থেকে গােদাবরী পর্যন্ত তিনি নিজ রাজ্যের সঙ্গে যুক্ত করেন । তৃতীয় কুলটুঙ্গ ( ১১৭৮-১২১০ খ্রিস্টাব্দ ) ছিলেন শেষ চোল রাজা । সাম্রাজ্যকে ছয়টি ভাগ ভাগে করা হয় অর্থাৎ ছয়টি মণ্ডলে বা প্রদেশে ভাগ করা হয় এবং রাজ্যপাল কর্তৃক শাসনব্যবস্থার ব্যবস্থা করা হয়েছিল । মণ্ডলম গুলিকে ভালানাডাস , ভালানাডাস গুলিকে নাড়াস – এবং নাডাসগুলিকে টেনিয়ার – এ ভাগ করা হয় । আর ছিল সাধারণ গ্রামের সংগঠন । গ্রামের সকল সভ্যই ‘ আর ’ – এর সভ্য হতে পারত ।
  • এই সময়কালেই নৃত্য শিবের নাম দেওয়া হয়েছিল নটরাজ ।
  • চোল মন্দিরগুলি বিরাটাকার বিমান বা টাওয়ার এবং খােলামেলা প্রাঙ্গণ । প্রবেশদ্বার গুলি বিরাট গােপুরম বা সিংহদরজা ।
  • সেখানে স্থানীয় সরকার প্রথা চালু ছিল ( এর থেকেই পঞ্চায়েতি রাজ – এর ধারণা গৃহীত হয়েছে ) ।

বাংলার পাল বংশ ( রাজধানী মুঙ্গের ) :

  • অষ্টম শতাব্দীর মাঝামাঝি পাল রাজারা ক্ষমতা লাভ করে । এর প্রতিষ্ঠাতা হলেন গােপাল ( ৭৫০ খ্রিস্টাব্দ ) , তার দলপতি হওয়ার শৌর্য ও দক্ষতার জন্য তিনি সিংহাসনে উপবেশন করার জন্য নির্বাচিত হন ।
  • তারপর ধর্মপাল এসেছিলেন এবং কনৌজ দখল করেছিলেন ।
  • তারপর রাজা হন দেবপাল এবং তিনি ওড়িশা ও অসম জয় করেন । তিনি প্রতিহার রাজা ভােজকে এবং রাষ্ট্রকুট রাজা অমােঘবর্ষকে পরাজিত করেন ।
  • এর পর রাজা হন মহীপাল যিনি রাজেন্দ্র চোল কর্তৃক আক্রান্ত হন এবং পরাজিত হন । বৌদ্ধধর্মের পৃষ্ঠপােষক ধর্মপাল বিক্রমশীলা বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করেন এবং নালন্দা বিশ্ববিদ্যালয়ের পুনর্জীবন দান করেন ।
  • সুলেইমান নামে এক আরব ব্যবসায়ী এগুলি পরিদর্শন করে অনুপ্রাণিত হয়েছিলেন ।
  • বাংলায় পাল বংশের পরে আবির্ভাব হয় সেন বংশের ।
  • পাল রাজারা দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার সঙ্গে ব্যাবসা – বাণিজ্য করত ।

প্রতিহার বা গুর্জর প্রতিহার বংশ :

  • ষষ্ঠ শতাব্দীর মাঝামাঝি বর্তমান যােধপুরে প্রতিহার বংশের হরিচন্দ্রের নেতৃত্বে একটি শাখা স্থাপন করা হয় ।
  • অপর একটি শাখা স্থাপিত হয় মালওয়ায় এবং উজ্জয়িনী ছিল এই শাখার রাজধানী । এবং এই শাখার সর্বপ্রথম রাজা ছিলেন প্রথম নাগভট্ট ; আরবদের সাফল্যের সঙ্গে প্রতিরােধ করার জন্য তিনি বিখ্যাত হন । রাষ্ট্রকুটের শাসনকর্তা দন্তিদুর্গের বিরুদ্ধে তিনি যুদ্ধ করেছিলেন ।
  • এই বংশের মহান রাজা ছিলেন ভােজ । যিনি মিহির , আদিবরাহ নামে পরিচিত ছিলেন তার কারণ তিনি ছিলেন বিয়ুর উপাসক । তিনি কনৌজ পুনরুদ্ধার করেন ।
  • তার উত্তরসূরি ছিলেন প্রথম মহেন্দ্রপাল । তার শিক্ষক ছিলেন রাজাশেখর — যিনি ছিলেন নামকরা কবি , নাট্যকার এবং সমালােচক । তিনি কপূরমঞ্জরী , কাব্যমীমাংসা , বাল রামায়ণ , ভুবনকোশ , হরবিলাস , বালভারত , বিধসাল , ত্ৰিঞ্জিকা , প্রপঞ্চ পাণ্ডব প্রভৃতি গ্রন্থ রচনা করেন ।

রাজপুত বংশ :

  • নবম ও দশম শতাব্দীতে রাজনৈতিক গুরুত্বের উত্থান । জন্য এসেছিল ।
  • মনে করা হয় যে তারা হল আসলে বিদেশি যাযাবর জাতি এবং পশ্চিম ভারতে বাস করার জন্য এসেছিল।
  • রাজপুতদের মধ্যে চারটি উপজাতি ছিল । ( ক ) দক্ষিণ রাজস্থানের প্রতিহার বা পরিহার বংশ ( খ ) পূর্ব রাজস্থানের চোল বংশ ( গ ) কাটিহারের চালুক্য বা সােলাঙ্কি বংশ ( ঘ ) মালওয়ার পারমার বংশ বা পাওয়ার বংশ ।
  • পুরাণের মতানুযায়ী তারা দাবি করে যে মাউন্ট আবুর নিকটে হােমকুণ্ড থেকে তারা অবতরণ করে । সেজন্য তাদের বলা হয় অগ্নিকুল বা অগ্নি পরিবার ।
  • রাজপুতদের প্রধান দুটি উপজাতি হল- ( ক ) সূর্যবংশ ( সূর্য পরিবার ) ও ( খ ) চন্দ্রবংশ ( চন্দ্র পরিবার ) ।
  • ১০০০ শতাব্দীতে বুন্দেলখণ্ডের চান্দেলা খাজুরাহাে – য় কেন্দ্রীয় মহাদেব মন্দির নির্মাণ করেছিলেন ।
  • মাউন্ট আবুতে পশ্চিম ভারতীয় স্থাপত্য রীতিতে গুজরাটের সােলাঙ্কি রাজবংশ দিলওয়ারা মন্দির নির্মাণ করেন ।
  • মালওয়ার পারমার রাজবংশের মহান রাজা ছিলেন ভােজ ( ১০২০-১০৫৫ খ্রিস্টাব্দ ) এবং তিনি কবিরাজ হিসাবে প্রসিদ্ধ ছিলেন । তিনি আয়ুর্বেদসর্ব ( চিকিৎসা সম্বন্ধীয় ) এবং সমরাঙ্গনাসূত্রধর ( স্থাপত্যশিল্প সম্বন্ধীয় ) সহ দুই ডজন বই লিখেছিলেন ।
  • এই সময়কালে জাতিভেদ প্রথা অধিকতর কঠোর ছিল ।
  • এই সময়কার বিখ্যাত সাহিত্যকর্ম – 1) সােমদেব রচনা করেন কথাসরিতসাগর ‘ ( গল্পের নদীর সমুদ্র ) । 2) বিলহন রচনা করেন বিক্রমদেব চরিত্র ‘ ( এটি হল চালুক্য রাজা ষষ্ঠ বিক্রমদেবের আত্মজীবনী ) । 3) ভাস্কর দ্বিতীয় “ সিদ্ধান্ত শিরােমণি ” ( গণিত ও জ্যোতির্বিজ্ঞান সম্বন্ধীত পুস্তক যা নিউটন ও লিবনিজ – এর আগে প্রকাশিত হয়েছিল ) লিখেছিলেন । তিনি অন্তরকলন ক্যালকুলাস আবিষ্কার করেন । শিরােমণিকে চার ভাগে ভাগ করা হয় । যথা লীলাবতী , বীজগণিত , গ্রহগতি এবং গােল অধ্যায় । 4) কলহন রচনা করেন ‘ রাজতরঙ্গিনী ‘ ( কাশ্মীরের ইতিহাস ) । 5) জয়দেব রচনা করেন ‘ গীতগােবিন্দ ’ ( সংস্কৃত ভাষায় ) । 6) চাচনামা রচনা করেন ‘ সিন্দ – এর ইতিহাস ।

অন্য কয়েকটি সূত্র :

দ্বিতীয় সূর্যবর্মন কম্বােডিয়ায় আঙ্কোরভাট মন্দির নির্মাণ করেন এবং এটি বিষুকে উৎসর্গ করা হয় । দ্রাবিড়ীয় আকারে এটি নির্মিত হয় । এটিই হল পৃথিবীর মহানতম ধর্মীয় মিনার ।

FILE INFO : অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস প্রশ্ন ও উত্তর | History Question and Answer with PDF Download for FREE

PDF Name : অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস | History Question and Answer PDF

Formet : PDF File

Price : Free

Download Link : Click Here To Download

Get the History Suggestion Question and Answer by winexam.in

 West Bengal and All India Job preparation  Suggestion Question and answer prepared by expert subject teachers. History Suggestion with 100% Common in the Examination.

History Suggestion Question and Answer

History Suggestion Question and Answer Download. History short question suggestion. All Comparative exam History Suggestion  download. History All exam Question Paper  download.

অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস প্রশ্ন ও উত্তর – History Question and Answer in Bengali

অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস – প্রশ্ন উত্তর | অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস প্রশ্ন ও উত্তর (History Question and Answer in Bengali) । অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস – প্রশ্ন উত্তর | অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস প্রশ্ন ও উত্তর (History Question and Answer in Bengali)।

অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ ইতিহাস প্রশ্ন ও উত্তর – History Question and Answer in Bengali

অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ ইতিহাস – প্রশ্ন উত্তর | অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস প্রশ্ন ও উত্তর (History Question and Answer in Bengali) । অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ ইতিহাস – প্রশ্ন উত্তর | অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস প্রশ্ন ও উত্তর (History Question and Answer in Bengali)। অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ ইতিহাস – প্রশ্ন উত্তর

প্রাচীন ভারত ইতিহাস প্রশ্ন ও উত্তর – History Question and Answer in Bengali

প্রাচীন ভারত ইতিহাস – প্রশ্ন উত্তর | অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস প্রশ্ন ও উত্তর (History Question and Answer in Bengali) । প্রাচীন ভারত ইতিহাস – প্রশ্ন উত্তর | অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস প্রশ্ন ও উত্তর (History Question and Answer in Bengali)। প্রাচীন ভারত ইতিহাস প্রশ্ন ও উত্তর।

অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস সাজেশন – History Suggestion

অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস সাজেশন পশ্চিমবঙ্গ তথা ভারতবর্ষের সমস্ত চাকরির পরীক্ষার সিলেবাস বা পাঠ্যসূচি অনুযায়ী  অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস বিষয়টির সমস্ত প্রশ্নোত্তর। সামনেই পরীক্ষা, তার আগে winexam.in শিক্ষার্থীদের সুবিধার্থে নিয়ে এল অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস – প্রশ্ন উত্তর । ইতিহাসে ভালো রেজাল্ট করতে হলে অবশ্যই পড়ুন । আমাদের অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস প্ৰশ্ন ও উত্তর

অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস – প্রশ্ন ও উত্তর | History Suggestion Question and Answer with FREE PDF Download

WBCS History, School Service History, SSC History, History GK, History Quiz, History QNA, History FAQ, বিভিন্ন পরীক্ষা প্রস্তুতি, রেল, গ্রুপ ডি, এস এস সি, পি, এস, সি, সি এস সি, ডব্লু বি সি এস, নেট, সেট, চাকরির পরীক্ষা প্রস্তুতি, অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস ,  অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস প্রসব ও উত্তর, অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস | History Suggestion PDF, 

  এই “অন্যান্য রাজবংশ এবং শাসকগণ (প্রাচীন ভারত) ইতিহাস | History PDF” পোস্টটি থেকে যদি আপনার লাভ হয় তাহলে আমাদের পরিশ্রম সফল হবে। আরোও বিভিন্ন স্কুল বোর্ড পরীক্ষা, প্রতিযোগিতা মূলক পরীক্ষার সাজেশন, অতিসংক্ষিপ্ত, সংক্ষিপ্ত ও রোচনাধর্মী প্রশ্ন উত্তর (All Exam Guide Suggestion, MCQ Type, Short, Descriptive Question and answer), প্রতিদিন নতুন নতুন চাকরির খবর (Job News in Physical Science) জানতে এবং সমস্ত পরীক্ষার এডমিট কার্ড ডাউনলোড (All Exam Admit Card Download) করতে winexam.in ওয়েবসাইট ফলো করুন, ধন্যবাদ।

WiN EXAM

Recent Posts

অষ্টম শ্রেণি ইতিহাস সাজেশন | WBBSE Class 8th History Suggestion PDF

অষ্টম শ্রেণি ইতিহাস সাজেশন WBBSE Class 8th History Suggestion অষ্টম শ্রেণি ইতিহাস সাজেশন - WBBSE…

2 hours ago

অষ্টম শ্রেণি ইতিহাস – ভারতীয় সংবিধান : গণতন্ত্রের কাঠামো ও জনগণের অধিকার (অষ্টম অধ্যায়) প্রশ্ন উত্তর | Class 8th History PDF

অষ্টম শ্রেণি ইতিহাস ভারতীয় সংবিধান : গণতন্ত্রের কাঠামো ও জনগণের অধিকার (অষ্টম অধ্যায়) প্রশ্ন উত্তর…

1 week ago

অষ্টম শ্রেণি ইতিহাস – সাম্প্রদায়িকতা থেকে দেশভাগ (সপ্তম অধ্যায়) প্রশ্ন উত্তর | Class 8th History PDF

অষ্টম শ্রেণি ইতিহাস সাম্প্রদায়িকতা থেকে দেশভাগ (সপ্তম অধ্যায়) প্রশ্ন উত্তর | Class 8th History অষ্টম…

1 week ago

অষ্টম শ্রেণি ইতিহাস – ভারতের জাতীয় আন্দোলনের আদর্শ ও বিবর্তন (ষষ্ঠ অধ্যায়) প্রশ্ন উত্তর | Class 8th History PDF

অষ্টম শ্রেণি ইতিহাস অষ্টম শ্রেণীর ইতিহাস - ভারতের জাতীয় আন্দোলনের আদর্শ ও বিবর্তন (ষষ্ঠ অধ্যায়)…

1 week ago

অষ্টম শ্রেণি ইতিহাস – জাতীয়তাবাদের প্রাথমিক বিকাশ (পঞ্চম অধ্যায়) প্রশ্ন উত্তর | Class 8th History PDF

অষ্টম শ্রেণি ইতিহাস অষ্টম শ্রেণীর ইতিহাস - জাতীয়তাবাদের প্রাথমিক বিকাশ (পঞ্চম অধ্যায়) প্রশ্ন উত্তর |…

2 weeks ago

অষ্টম শ্রেণি ইতিহাস – ঔপনিবেশিক শাসনের প্রতিক্রিয়া : সহযোগিতা ও বিদ্রোহ (চতুর্থ অধ্যায়) প্রশ্ন উত্তর | Class 8th History PDF

অষ্টম শ্রেণি ইতিহাস অষ্টম শ্রেণীর ইতিহাস - ঔপনিবেশিক শাসনের প্রতিক্রিয়া : সহযোগিতা ও বিদ্রোহ (চতুর্থ…

2 weeks ago