ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) - দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন | HS Class 12 Political science Suggestion PDF
ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) - দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন | HS Class 12 Political science Suggestion PDF

ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) – দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন

HS Class 12 Political science Suggestion PDF

ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) – দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন | HS Class 12 Political science Suggestion PDF : ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন ও অধ্যায় ভিত্তিতে প্রশ্নোত্তর নিচে দেওয়া হল।  এবার পশ্চিমবঙ্গ উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান পরীক্ষায় বা দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান পরীক্ষায় ( WB HS Class 12 Political science Suggestion PDF  | West Bengal HS Class 12 Political science Suggestion PDF  | WBCHSE Board Class 12th Political science Question and Answer with PDF file Download) এই প্রশ্নউত্তর ও সাজেশন খুব ইম্পর্টেন্ট । আপনারা যারা আগামী দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান পরীক্ষার জন্য বা উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান  | HS Class 12 Political science Suggestion PDF  | WBCHSE Board HS Class 12th Political science Suggestion  Question and Answer খুঁজে চলেছেন, তারা নিচে দেওয়া প্রশ্ন ও উত্তর ভালো করে পড়তে পারেন। 

ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) – দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন | পশ্চিমবঙ্গ উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন/নোট (West Bengal Class 12 Political science Question and Answer / HS Political science Suggestion PDF)

পশ্চিমবঙ্গ উচ্চ মাধ্যমিক দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন (West Bengal HS Class 12 Political science Suggestion PDF / Notes) ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) – প্রশ্ন উত্তর – MCQ প্রশ্নোত্তর, অতি সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন উত্তর (SAQ), সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন উত্তর (Short Question and Answer), ব্যাখ্যাধর্মী বা রচনাধর্মী প্রশ্নোত্তর (descriptive question and answer) এবং PDF ফাইল ডাউনলোড লিঙ্ক নিচে দেওয়া রয়েছে

ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়)

অতি সংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর | ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) – দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন | HS Class 12 Political science Suggestion : 

১. রাষ্ট্রপতি কী কারণে হাইকোর্টের কোনো বিচারপতিকে পদচ্যুত করতে পারেন ? 

উত্তরঃ রাষ্ট্রপতি প্রমাণিত অসদাচরণ বা অক্ষমতার অভিযোগে হাইকোর্টের কোনো বিচারপতিকে পদচ্যুত করতে পারেন । 

২. সুপ্রিম কোর্টের বিচারকদের কে নিয়োগ করেন ? 

উত্তরঃ রাষ্ট্রপতি । 

৩. বিচারবিভাগীয় সক্রিয়তা বলতে কী বোঝায় ? 

উত্তরঃ বিচারবিভাগীয় সক্রিয়তা হলো আদালতের সেই ভূমিকা যা আইন বিভাগ ও শাসন বিভাগের কর্মক্ষেত্রের ওপর বিচার বিভাগের প্রাধান্য বিস্তারকে সূচিত করে । 

৪. রাষ্ট্রপতি কখন সুপ্রিম কোর্টের পরামর্শ গ্রহণ করেন ? 

উত্তরঃ রাষ্ট্রপতি যদি মনে করেন আইন বা তথ্য সংক্রান্ত বিষয়ে কোনো সর্বজনীন গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে বা উঠতে পারে , তা হলে তিনি সেই বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টের পরামর্শ চাইতে পারেন । ( ১৪৩ ( ১ ) নং ধারা ) । 

৫. সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের কীভাবে অপসারণ করা যায় ? 

উত্তরঃ সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের অপসারণ করার ক্ষেত্রে ইমপিচমেন্ট পদ্ধতির সাহায্য নেওয়া হয় । এই পদ্ধতি অনুযায়ী , রাষ্ট্রপতি কোনো বিচারপতিকে প্রমাণিত অসদাচরণ বা অসামর্থ্যের অভিযোগের ভিত্তিতে অপসারণ করতে পারেন । 

৬. ‘ আইনের যথাবিহিত পদ্ধতি ( Due process of Law ) বলতে কী বোঝায় ? 

উত্তরঃ ‘ আইনের যথাবিহিত পদ্ধতি ‘ – র বিষয়টি ‘ বিচারবিভাগীয় সমীক্ষা ‘ – র প্রকৃতি বিশ্লেষণের একটি উল্লেখযোগ্য দিক । মার্কিন সুপ্রিম কোর্টে এই পদ্ধতি অনুসৃত হয় । উক্ত পদ্ধতি অনুযায়ী , সুপ্রিম কোর্ট আইনটি যথাযথ সাংবিধানিক পদ্ধতি অনুসরণ করে প্রণীত হয়েছে কি না তা খতিয়ে দেখে এবং তা স্বাভাবিক ন্যায়নীতি লঙ্ঘন করেছে কি না তা – ও বিচার করে । উল্লেখ্য যে ভারতের সুপ্রিম কোর্টের এই ক্ষমতা নেই ।

৭. ‘ আইন নির্দিষ্ট পদ্ধতি ‘ বলতে কী বোঝায় ? 

উত্তরঃ ‘ আইন নির্দিষ্ট পদ্ধতি ‘ বলতে উপযুক্ত আইনসভা কর্তৃক বিধিসম্মতভাবে প্রণীত আইনের মাধ্যমে নির্ধারিত পদ্ধতিকে বোঝানো হয় । এখানে আইন বলতে পার্লামেন্ট ও রাজ্য আইনসভা প্রণীত আইনের কথা বলা হয়েছে । 

৮. সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের কার্যকাল কত দিন ? 

উত্তরঃ সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিরা ৬৫ বছর বয়স পর্যন্ত স্বপদে অধিষ্ঠিত থাকতে পারেন । 

৯. সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের কীভাবে নিযুক্ত করা হয় ? 

উত্তরঃ সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিরা রাষ্ট্রপতি কর্তৃক নিযুক্ত হন । তাঁদের নিয়োগের আগে রাষ্ট্রপতিকে অবশ্যই প্রধান বিচারপতির সাথে পরামর্শ করতে হবে । 

১০. হাইকোর ্টের বিচারপতিদের কার্যকালের মেয়াদ কত দিন ? 

উত্তরঃ হাইকোর্টের বিচারপতিরা ৬২ বছর বয়স পর্যন্ত স্বপদে অধিষ্ঠিত থাকতে পারেন । অবশ্য তার পূর্বেই তারা পদত্যাগ করতে পারেন অথবা পদচ্যুত হতে পারেন । 

১১. হাইকোর্টের বিচারপতির পদে নিযুক্ত হওয়ার যোগ্যতা কী ? 

উত্তরঃ হাইকোর্টের বিচারপতি পদে নিযুক্ত হওয়ার জন্য বিচারপতিকে অবশ্যই ভারতীয় নাগরিক হতে হবে । ও ভারতের কোনো বিচারালয়ে কমপক্ষে ১০ বছর যে কোনো বিচারবিভাগীয় পদে কাজের অভিজ্ঞতা অথবা অন্তত ১০ বছর কোনো হাইকোর্টে বা দুই বা ততোধিক হাইকোর্টে একাদিক্রমে আইনজীবী হিসেবে কাজ করার অভিজ্ঞতা থাকতে হবে । 

১২. লোক আদালত গঠনের উদ্দেশ্য কী ? 

উত্তরঃ সাধারণ মানুষের জন্য স্বল্প ব্যয়ে সহজ উপায়ে , দ্রুত বিরোধ নিষ্পত্তির ব্যবস্থা করাই লোক আদালত গঠনের উদ্দেশ্য । 

১৩. সুপ্রীমকোর্টের এক্তিয়ার বা এলাকাগুলি কী কী ? 

উত্তরঃ মূল এলাকা , আপিল এলাকা , পরামর্শদান এলাকা ও আদেশ , নির্দেশ ও লেখদান করার এলাকা। 

১৪. গণ আদালতের কার্যাবলি কী ? 

উত্তরঃ দীর্ঘদিন ধরে কোনো মামলা চললে তার নিস্পত্তি লোক আদালত করে থাকে । যদি উভয়পক্ষই সম্মত হয় । 

১৫. ভারতের সর্বোচ্চ আপিল আদালতের নাম কী ? 

উত্তরঃ সুপ্রিম কোর্ট । 

১৬. লোক আদালতের দু’টি উপযোগিতা উল্লেখ করো । 

উত্তরঃ লোক আদালতের দু’টি উপযোগিতা হলো– 1. লোক আদালত সমাজের দুর্বলতর শ্রেণিকে বিনামূল্যে আইনি সাহায্য দেওয়ার জন্য কাজ করে । 2. লোক আদালতগুলিতে মামলার নিষ্পত্তি দ্রুত হয়ে থাকে । 

১৭. ভারতের সর্বোচ্চ ফৌজদারি আদালতের নাম কী ?

উত্তরঃ সুপ্রিম কোর্ট । 

১৮. মৌলিক অধিকার বলবৎ করার জন্য দু’টি লেখ – এর নাম উল্লেখ করো । 

অথবা , ভারতের সুপ্রিম কোর্টের দু’টি লেখ উল্লেখ করো । 

উত্তরঃ মৌলিক অধিকার বলবৎ করার জন্য দু’টি লেখ হলো অধিকার পৃচ্ছা এবং পরমাদেশ । 

১৯. সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি কীভাবে নিযুক্ত হন ?

উত্তরঃ সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতিকে নিয়োগ করেন রাষ্ট্রপতি । 

অবশ্য নিয়োগের আগে রাষ্ট্রপতি প্রয়োজনমতো সুপ্রিম কোর্ট ও হাইকোর্টের বিচারপতিদের সঙ্গে পরামর্শ করতে পারেন । 

২০. বিচারবিভাগীয় স্বাতন্ত্র্য বলতে কী বোঝো ? উত্তরঃ বিচারপতিদের স্বাধীনতা ও নিরপেক্ষতা বজায় রাখার জন্য বিচার বিভাগের স্বাতন্ত্র্য জরুরি । বিচারবিভাগীয় স্বাতন্ত্র্য বলতে বোঝায় বিচার বিভাগকে আইন বিভাগ ও শাসন বিভাগের প্রভাব থেকে মুক্ত রাখা ।

MCQ সঠিক উত্তরটি নির্বাচন করো | ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) – দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন | HS Class 12 Political science Suggestion :

১. ভারতের বিচার ব্যাবস্থার প্রকৃতি হলো – (ক) খণ্ডিত (খ) অখণ্ড (গ) দ্বৈত (ঘ) যুক্তরাষ্ট্রীয়

উত্তরঃ (খ) অখণ্ড

২. হাইকোর্টের বিচারপতিকে নিয়োগ করেন – (ক) রাষ্ট্রপতি (খ) প্রধানমন্ত্রী (গ) উপরাষ্ট্রপতি (ঘ) আইনমন্ত্রী

উত্তরঃ (ক) রাষ্ট্রপতি

৩. বর্তমানে ভারতের হাইকোর্টে সংখ্যা – (ক) ১৮ (খ) ২০ (গ) ২১ (ঘ) ২৫ 

উত্তরঃ (গ) ২১ 

৪. সুপ্রিম কোর্টের আপিল এলাকার সংখ্যা – (ক) ৩ (খ) ৪ (গ) ৫ (ঘ) ৬

উত্তরঃ (খ) ৪ 

৫. স্বাধীন ভারতের প্রথম বিচারপতি – (ক) হরিলাল কেনিয়া (খ) ফতেমা বিবি (গ) পি. সদাশিবম (ঘ) কে. জি. বালাকৃষ্ণান

উত্তরঃ (ক) হরিলাল কেনিয়া

৬. কলকাতা হাইকর্টের বিচারপতিকে নিয়োগ করেন – (ক) রাজ্যপাল (খ) মুখ্যমন্ত্রী (গ) উপরাষ্ট্রপতি (ঘ) রাষ্ট্রপতি

উত্তরঃ (ঘ) রাষ্ট্রপতি

৭. সুপ্রিমকোর্টের বিচারপতি দের অবসর গ্রহণের বয়স – (ক) ৬০ (খ) ৬২ (গ) ৬৫ (ঘ) ৭০

উত্তরঃ (ক) ৬০ 

৮. জেলার সর্বচ্চ আদালত – (ক) দায়রা আদালত (খ) ন্যায় পঞ্চায়েত (গ) জেলা জজের আদালত (ঘ) মুনসেফ আদালত 

উত্তরঃ (গ) জেলা জজের আদালত 

৯. ভারতের সুপ্রিমকোর্ট পৃথিবী যে কোনো “সুপ্রিমকর্টের অপেক্ষা শক্তিশালী” – একথা বলেছেন ? (ক) এ. কে. আয়ার (খ) পি. এন ভগবত (গ) ডঃ বি – আর আম্বেদকর (ঘ) ডঃ রাজেন্দ্র প্রসাদ 

১০. সুপ্রিমকর্টের বিচারপতি হলে ন্যূনতম বয়স – (ক) ৩০ বছর (খ) ৩৫ বছর (গ) ৪৫ বছর (ঘ) বয়সের কোনো শর্ত নেই 

উত্তরঃ (খ) ৩৫ বছর 

১১. কলকাতা হাইকর্টের এলাকা রয়েছে – (ক) ওড়িশা (খ) বিহার (গ) ত্রিপুরা (ঘ) আন্দামান

উত্তরঃ (ঘ) আন্দামান

১২. সুপ্রিমকর্টের আছে – (ক) মূল এলাকা (খ) আপিল এলাকা (গ) পরামর্শদান এলাকা (ঘ) মূল এলাকা, আপিল এলাকা, পরামর্শদান এলাকা 

উত্তরঃ (ঘ) মূল এলাকা, আপিল এলাকা, পরামর্শদান এলাকা

১৩. সুপ্রিমকর্টের কার্যক্ষেত্রকে মূলত কটি ভাগে ভাগ করা যায় ? (ক) দুই ভাগে (খ) তিন ভাগে (গ) চার ভাগে (ঘ) পাঁচ ভাগে 

উত্তরঃ (গ) চার ভাগে 

১৪. সুপ্রিকোর্টের বিচারপতিদের পদচ্যুত করেন – (ক) প্রধানমন্ত্রী (খ) রাষ্ট্রপতি (গ) উপরাষ্ট্রপতি (ঘ) প্রধান বিচারপতি

উত্তরঃ (খ) রাষ্ট্রপতি

১৫. ভারতের অভিলেখ আদালত হলো – (ক) সুপ্রিমকোর্ট (খ) হাইকোর্ট (গ) লোক আদালত (ঘ) ন্যায় পঞ্চায়েত

উত্তরঃ (ক) সুপ্রিমকোর্ট

১৬. ভারতের বিচার ব্যাবস্থার শীর্ষে রয়েছে – (ক) সুপ্রিম কোর্ট (খ) হাইকোর্ট (গ) লোক আদালত (ঘ) ক্রেতা সুরক্ষা আদালত 

উত্তরঃ (ক) সুপ্রিম কোর্ট

রচনাধর্মী প্রশ্নোত্তর | ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) – দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন | HS Class 12 Political science Suggestion : 

১. ভারতের লোক আদালতের গঠন ও কার্যাবলি বিশ্লেষণ করো । 

উত্তরঃ লোক আদালত হলো জনগণের আদালত । স্বেচ্ছামূলক এই মঞ্চে কম সময়ে , বিনা খরচে সাধারণ মানুষ তুলনামূলকভাবে কম গুরুত্বপূর্ণ মামলার নিষ্পত্তি করতে পারেন । লোক আদালত দেওয়ানি আদালতের মর্যাদাভুক্ত ।

 গঠন : পশ্চিমবঙ্গ , ওড়িশা , উত্তরপ্রদেশ , গুজরাট , মহারাষ্ট্র , তামিলনাড়ু প্রভৃতি রাজ্যে লোক আদালত রয়েছে । 

  1. কর্মরত বা অবসরপ্রাপ্ত বিচারবিভাগীয় আধিকারিক ও 2. অপর কয়েকজন ব্যক্তিকে নিয়ে কোনো অঞ্চলের লোক আদালত গড়ে ওঠে । কোনো একজন খ্যাতনামা আইনজীবী ও একজন সমাজসেবীকে লোক আদালতের সদস্য হিসেবে নিয়োগ করা হয় । 

  ১৯৮৫ সালের ৬ অক্টোবর দিল্লিতে প্রথম লোেক আদালতের উদ্‌বোধন করা হয় । প্রথম দিন পাঁচটি আদালত গঠিত হয়েছিল । প্রতিটি আদালতে অবসরপ্রাপ্ত দু’জন বিচারপতি ছিলেন । ঐদিন ১৫০ টি মামলার নিষ্পত্তি হয়েছিল । সহজ পদ্ধতিতে সবার সামনে বিচার হয়েছিল । 

  ২০০১ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সারা দেশে ১,২৪,১৭০ টি লোক আদালত গঠিত হয়েছে । এই আদালতে প্রায় ১.৩৬ কোটি মামলার নিষ্পত্তি হয়েছে । আর লোক আদালতের মাধ্যমে ২০০১ সাল পর্যন্ত ৪০,৪০,৮৫০ জন মানুষ আইনি সাহায্য ও পরামর্শ পেয়েছেন । 

কার্যাবলি : জটিল প্রকৃতির মামলা নয় অথচ দীর্ঘদিন আদালতে পড়ে রয়েছে এমন মামলার বিচার হয় লোক আদালতে । বিবদমান একটি পক্ষ লোক আদালতে কোনো মামলার নিষ্পত্তির আবেদন করতে পারে । অপর পক্ষও যদি চায় লোক আদালতের মাধ্যমে মামলার নিষ্পত্তি হোক তবেই এটা সম্ভব । তখনই মামলাটি লোক আদালতে নিষ্পত্তির জন্য পাঠানো হয় । এই ধরনের মামলার নিষ্পত্তির জন্য লোক আদালতের দলিলপত্র তলব , সরকারি নথিপত্র তলব , সাক্ষ্য – প্রমাণ প্ৰহণ ইত্যাদির এক্তিয়ার রয়েছে । সংশ্লিষ্ট পক্ষ এই নিষ্পত্তি মেনে নিতে বাধ্য থাকে । কারণ এক্ষেত্রে লোক আদালতের রায় চূড়ান্ত । লোক আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে অন্য আদালতে আপিল করা যায় না ।

   প্রসঙ্গত , লোক আদালতে মামলা নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে সামান্য কোর্ট ফি লাগে আর তা ফেরত দেওয়ার ব্যবস্থাও রয়েছে । কম সময়ে , বিনা খরচে মামলার নিষ্পত্তি হয় বলে ইদানীং লোক আদালতের জনপ্রিয়তা বাড়ছে । তাছাড়া সম্প্রীতির আবহে লোক আদালতে আপসমূলক নিষ্পত্তি সম্ভব । চিরাচরিত আদালতে এই পরিবেশ দেখা যায় না ।

২. ভারতের বিচার ব্যবস্থার বৈশিষ্ট্যসমূহ আলোচনা করো । 

উত্তরঃ প্রত্যেক গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রেই বিচার বিভাগ বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে ৷ বিচার বিভাগের কর্মদক্ষতা সরকারের উৎকর্ষ বিচারের শ্রেষ্ঠ মানদণ্ড । তাই বিচার বিভাগের কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বৈশিষ্ট্য থাকে । ভারতের বিচার ব্যবস্থারও কয়েকটি উল্লেখযোগ্য গুরুত্বপূর্ণ বৈশিষ্ট্য দেখতে পাওয়া যায় । ভারতীয় বিচার ব্যবস্থার যেসকল উল্লেখযোগ্য বৈশিষ্ট্য দেখতে পাওয়া যায় সেগুলি হলো – 

1.অখণ্ড বিচার ব্যবস্থা : ভারতে এক অখণ্ড বিচার ব্যবস্থা প্রবর্তিত হয়েছে । এখানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মতো কেন্দ্রে এবং অঙ্গরাজ্যগুলিতে স্বতন্ত্র ও স্বাধীন সুপ্রিম কোর্ট নেই । ভারতের সুপ্রিম কোর্ট হলো দেশের সর্বোচ্চ আপিল আদালত । অঙ্গরাজ্যের হাইকোর্টগুলিকে সুপ্রিম কোর্টের অধীনে থেকে বিচারকার্য সম্পাদন করতে হয় । আবার হাইকোর্টের অধীনে থেকে নিম্নতম আদালতগুলিকে তাদের কাজকর্ম সম্পাদন করতে হয় । 

  1. একই ধরনের দেওয়ানি ও ফৌজদারি আইন : ভারতের অঙ্গরাজ্যগুলিতে পৃথক দেওয়ানি ও ফৌজদারি আইন অনুসারে বিচার করা হয় না । সমগ্র ভারতের জন্য প্রায় একই প্রকার দেওয়ানি ও ফৌজদারি আইন অনুসারে বিচারকার্য সম্পাদিত হয়ে থাকে । এখানে অঙ্গরাজ্যের জন্য আলাদা আলাদা দেওয়ানি ও ফৌজদারি আইন নেই । 
  2. প্রশাসনিক আদালত : ১৯৭৬ সালের ৪২ তম সংবিধান সংশোধনী আইন অনুযায়ী পার্লামেন্ট আইন প্রণয়নের মাধ্যমে প্রশাসনিক আদালত ( Administrative Tribunal ) গঠনের অধিকারী । যেকোনো সরকারি , স্থানীয় সংস্থা বা বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীগণের চাকুরি – সংক্রান্ত সকল বিরোধের মীমাংসার ভার ট্রাইব্যুনালের ওপর ন্যস্ত করা হয়েছে । এছাড়া শিল্প , ভূমি সংস্কার , খাদ্য সংগ্রহ ও বণ্টন ইত্যাদি বিষয়ে বিরোধ মীমাংসার জন্য সংশ্লিষ্ট আইনসভা আইন প্রণয়নের মাধ্যমে ট্রাইব্যুনাল গঠন করতে পারে ।
  3. আইনের চোখে সমতার অভাব :

আদালতের ক্ষমতা হ্রাস : ভারতে তত্ত্বগতভাবে আইনের চোখে সকল নাগরিকই সমান হলেও বাস্তবে কিন্তু এর ব্যতিক্রম রয়েছে । সুপ্রিম কোর্ট ও হাইকোর্টের বিচারপতি , রাষ্ট্রপতি , উপরাষ্ট্রপতি প্রমুখ ব্যক্তির বিচারের জন্য একটি বিশেষ পদ্ধতি অনুসরণ করা হয় । এমনকী রাষ্ট্রপতি , উপরাষ্ট্রপতি এবং লোকসভার অধ্যক্ষের নির্বাচনের ব্যাপারে আইনগত কোনো বিরোধ বাধলে তার বিচারের দায়িত্ব পার্লামেন্ট কর্তৃক গঠিত একটি সংস্থার ওপর ন্যস্ত হয় । ওই ব্যাপারে সাধারণ আদালতের কোনো ক্ষমতা নেই । অবশ্য ৪৪ তম সংবিধান সংশোধনের ফলে বর্তমানে রাষ্ট্রপতি এবং উপরাষ্ট্রপতির নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কোনো বিতর্কের সৃষ্টি হলে তার বিচার সুপ্রিম কোর্ট করতে পারে । আবার রাষ্ট্রপতি , উপরাষ্ট্রপতি , প্রধানমন্ত্রী , রাজ্যপাল প্রমুখ ব্যক্তির বিরুদ্ধে ফৌজদারি ও দেওয়ানি মামলার বিচার আদালত করতে পারে না । 

  1. দুর্বল যুক্তরাষ্ট্রীয় আদালত : ভারতের সুপ্রিম কোর্ট দেশের সর্বোচ্চ আদালত হলেও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্টের ন্যায় ব্যাপক ক্ষমতার অধিকারী নয় । মার্কিন সুপ্রিম কোর্টের মতো ভারতের সুপ্রিম কোর্ট আইনসভা প্রণীত কোনো আইন সংবিধান বিরোধী বলে বাতিল করে দিতে পারলেও আইনের যথাবিহিত পদ্ধতি ( Due Process of Law ) অনুসারে আইনের নীতি ও যৌক্তিকতা বিচার করতে পারে না । আবার সাধারণ অবস্থায় ভারতের সুপ্রিম কোর্ট নাগরিকের মৌলিক অধিকারগুলির রক্ষাকর্তা হলেও জরুরি অবস্থায় মৌলিক অধিকার রক্ষার ক্ষমতা সংকুচিত করা হয় । 
  2. বিচার বিভাগের ওপর শাসন বিভাগের নিয়ন্ত্রণ : তত্ত্বগতভাবে ভারতবর্ষের যুক্তরাষ্ট্রীয় ব্যবস্থায় পূর্ণ ক্ষমতাস্বতন্ত্রীকরণ নীতি গৃহীত হয়নি । কিন্তু এখানে পরিষ্কারভাবে ব শাসন বিভাগের নিয়ন্ত্রণ থেকে বিচার বিভাগকে মুক্ত রাখার কথা বলা হয়েছে , যাতে বিচার বিভাগের পক্ষে নিরপেক্ষ ও স্বাধীনভাবে বিচারকার্য সম্পাদন করা সম্ভবপর হয় । কিন্তু কার্যক্ষেত্রে তা সম্ভব হয়নি । ভারতবর্ষের বিচারপতিগণ আজও শাসন বিভাগ কর্তৃক নিযুক্ত হন । এমনকী প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছানুযায়ী তাঁরা নিযুক্ত হন । 
  3. নাগরিক বিচারকের অস্তিত্ব নেই : কোনো কোনো যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বি ব্যবস্থায় ‘ নাগরিক বিচারক ‘ – এর অস্তিত্ব দেখতে পাওয়া যায় । ভারতীয় বিচার ব্যবস্থায় কিন্তু সেরূপ কোনো নাগরিক বিচারকের ( Citizen Judge ) স্থান নেই । আবার গুরুতর ফৌজদারি মামলা কোনো কোনো ক্ষেত্রে জুরির সাহায্যে পরিচালিত হলেও জুরিগণের বিচারক্ষমতা অতি সংকীর্ণ গণ্ডির মধ্যে আবদ্ধ । জুরিগণ তথ্য সম্পর্কে মতামত প্রকাশ করতে পারলেও আইন সম্পর্কিত বিষয়ে তাদের কোনো ক্ষমতা নেই ।

FILE INFO : HS Class 12 Political science Suggestion PDF Download for FREE | দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন বিনামূল্যে ডাউনলোড করুণ | ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) – MCQ প্রশ্নোত্তর, অতি সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন উত্তর, সংক্ষিপ্ত প্রশ্নউত্তর, ব্যাখ্যাধর্মী প্রশ্নউত্তর

PDF Name : ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) – দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন | HS Class 12 Political science Suggestion PDF

Price : FREE

Download Link : Click Here To Download

পশ্চিমবঙ্গ উচ্চ মাধ্যমিক  রাষ্ট্রবিজ্ঞান পরীক্ষার সম্ভাব্য প্রশ্ন উত্তর ও শেষ মুহূর্তের সাজেশন ডাউনলোড। দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান পরীক্ষার জন্য সমস্ত রকম গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন। West Bengal HS  Political science Suggestion Download. WBCHSE HS Political science short question suggestion. HS Class 12 Political science Suggestion PDF download. HS Question Paper  Political science. WB HS 2022 Political science suggestion and important questions. HS Class 12 Political science Suggestion PDF.

Get the HS Class 12 Political science Suggestion PDF by winexam.in

 West Bengal HS Class 12 Political science Suggestion PDF  prepared by expert subject teachers. WB HS  Political science Suggestion with 100% Common in the Examination.

Class 12th Political science Suggestion

West Bengal HS  Political science Suggestion Download. WBCHSE HS Political science short question suggestion. HS Class 12 Political science Suggestion PDF  download. HS Question Paper  Political science.

দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন – ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) – প্রশ্ন উত্তর |  WB HS Political science  Suggestion

দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান (HS Political science) ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) – প্রশ্ন উত্তর। দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন – ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) – প্রশ্ন উত্তর |  WB HS Political science  Suggestion

ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) – উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন | Higher Secondary Political science Suggestion

দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান পশ্চিমবঙ্গ উচ্চ মাধ্যমিক বোর্ডের (WBCHSE) সিলেবাস বা পাঠ্যসূচি অনুযায়ী  দ্বাদশ শ্রেণির রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিষয়টির সমস্ত প্রশ্নোত্তর। সামনেই উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা, তার আগে winexam.in আপনার সুবিধার্থে নিয়ে এল ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) – উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন | Higher Secondary Political science Suggestion । রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিষয়ে ভালো রেজাল্ট করতে হলে অবশ্যই পড়ুন আমাদের দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন বই ।

ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) – দ্বাদশ শ্রেণির রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন | West Bengal Class 12th Suggestion

আমরা WBCHSE উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিষয়ের – ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) – দ্বাদশ শ্রেণির রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন | West Bengal Class 12th Suggestion আলোচনা করেছি। আপনারা যারা এবছর দ্বাদশ শ্রেণির রাষ্ট্রবিজ্ঞান পরীক্ষা দিচ্ছেন, তাদের জন্য আমরা কিছু প্রশ্ন সাজেশন আকারে দিয়েছি. এই প্রশ্নগুলি পশ্চিমবঙ্গ দ্বাদশ শ্রেণির রাষ্ট্রবিজ্ঞান পরীক্ষা  তে আসার সম্ভাবনা খুব বেশি. তাই আমরা আশা করছি HS রাষ্ট্রবিজ্ঞান পরীক্ষার সাজেশন কমন এই প্রশ্ন গুলো সমাধান করলে আপনাদের মার্কস বেশি আসার চান্স থাকবে।

দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন – ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) | HS Class 12 Political science Suggestion with FREE PDF Download

Political science Class XII, Political science Class Twelve, WBCHSE, syllabus, HS Political science, দ্বাদশ শ্রেণি রাষ্ট্রবিজ্ঞান, ক্লাস টোয়েলভ রাষ্ট্রবিজ্ঞান, উচ্চ মাধ্যমিকের রাষ্ট্রবিজ্ঞান, রাষ্ট্রবিজ্ঞান উচ্চ মাধ্যমিক – ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়), দ্বাদশ শ্রেণী – ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়), উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়), ক্লাস টেন ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়), HS Political science – ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়), Class 12th ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়), Class X ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়), ইংলিশ, উচ্চ মাধ্যমিক ইংলিশ, পরীক্ষা প্রস্তুতি, রেল, গ্রুপ ডি, এস এস সি, পি, এস, সি, সি এস সি, ডব্লু বি সি এস, নেট, সেট, চাকরির পরীক্ষা প্রস্তুতি, HS Suggestion, HS Suggestion , HS Suggestion , West Bengal Secondary Board exam suggestion, West Bengal Higher Secondary Board exam suggestion , WBCHSE , উচ্চ মাধ্যমিক সাজেশান, উচ্চ মাধ্যমিক সাজেশান , উচ্চ মাধ্যমিক সাজেশান , উচ্চ মাধ্যমিক সাজেশন, দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশান ,  দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশান , দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান , দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান, মধ্যশিক্ষা পর্ষদ, HS Suggestion Political science , দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান – ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) – সাজেশন | HS Class 12 Political science Suggestion PDF PDF, দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান – ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) – সাজেশন | HS Class 12 Political science Suggestion PDF PDF, দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান – ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) – সাজেশন | দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান – ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) – সাজেশন | HS Class 12 Political science Suggestion PDF PDF, দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান – ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) – সাজেশন | HS Class 12 Political science Suggestion PDF PDF,দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান – ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) – সাজেশন | HS Class 12 Political science Suggestion PDF PDF, দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান – ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) – সাজেশন | HS Class 12 Political science Suggestion PDF, HS Political science Suggestion PDF ,  West Bengal Class 12 Political science Suggestion PDF.

  এই (ভারতের বিচার বিভাগ (নবম অধ্যায়) – দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন | HS Class 12 Political science Suggestion PDF) পোস্টটি থেকে যদি আপনার লাভ হয় তাহলে আমাদের পরিশ্রম সফল হবে। আরোও বিভিন্ন স্কুল বোর্ড পরীক্ষা, প্রতিযোগিতা মূলক পরীক্ষার সাজেশন, অতিসংক্ষিপ্ত, সংক্ষিপ্ত ও রোচনাধর্মী প্রশ্ন উত্তর (All Exam Guide Suggestion, MCQ Type, Short, Descriptive Question and answer), প্রতিদিন নতুন নতুন চাকরির খবর (Job News in Political science) জানতে এবং সমস্ত পরীক্ষার এডমিট কার্ড ডাউনলোড (All Exam Admit Card Download) করতে winexam.in ওয়েবসাইট ফলো করুন, ধন্যবাদ।

Win exam telegram channel

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here