মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) - দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান সাজেশন | HS Class 12 Education Suggestion PDF
মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) - দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান সাজেশন | HS Class 12 Education Suggestion PDF

মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) – দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান সাজেশন

HS Class 12 Education Suggestion PDF

মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) – দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান সাজেশন | HS Class 12 Education Suggestion PDF : মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান সাজেশন ও অধ্যায় ভিত্তিতে প্রশ্নোত্তর নিচে দেওয়া হল।  এবার পশ্চিমবঙ্গ উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বিজ্ঞান পরীক্ষায় বা দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান পরীক্ষায় ( WB HS Class 12 Education Suggestion PDF  | West Bengal HS Class 12 Education Suggestion PDF  | WBCHSE Board Class 12th Education Question and Answer with PDF file Download) এই প্রশ্নউত্তর ও সাজেশন খুব ইম্পর্টেন্ট । আপনারা যারা আগামী দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান পরীক্ষার জন্য বা উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বিজ্ঞান  | HS Class 12 Education Suggestion PDF | WBCHSE Board HS Class 12th Education Suggestion  Question and Answer খুঁজে চলেছেন, তারা নিচে দেওয়া প্রশ্ন ও উত্তর ভালো করে পড়তে পারেন। 

মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) – দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান সাজেশন | পশ্চিমবঙ্গ উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বিজ্ঞান সাজেশন/নোট (West Bengal Class 12 Education Question and Answer / HS Education Suggestion PDF)

পশ্চিমবঙ্গ উচ্চ মাধ্যমিক দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান সাজেশন (West Bengal HS Class 12 Education Suggestion PDF / Notes) মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) – প্রশ্ন উত্তর – MCQ প্রশ্নোত্তর, অতি সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন উত্তর (SAQ), সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন উত্তর (Short Question and Answer), ব্যাখ্যাধর্মী বা রচনাধর্মী প্রশ্নোত্তর (descriptive question and answer) এবং PDF ফাইল ডাউনলোড লিঙ্ক নিচে দেওয়া রয়েছে

মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়)

অতিসংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর | মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) – দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান সাজেশন | HS Class 12 Education Suggestion : 

১. SABE- এর পুরো কথাটি কী ? 

উত্তরঃ স্টেট অ্যাডভাইসারি বোর্ড অব এডুকেশন । 

২. মুদালিয়র শিক্ষা কমিশন উচ্চতর মাধ্যমিক শিক্ষার জন্য কত সময় বরাদ্দ করেছে ? 

উত্তরঃ মুদালিয়র শিক্ষা কমিশন উচ্চতর মাধ্যমিক শিক্ষার জন্য ৪ বছরের সুপারিশ করেছে ।

৩. মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশনের পাঠক্রমের মূল বিভাগ কয়টি ভাগে বিভক্ত ও কী কী ?

উত্তরঃ মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশনের পাঠক্রমের মূল বিভাগ ৭ টি ভাগে বিভক্ত । সেগুলি হলো — মানবীয় বিদ্যা , বিজ্ঞান , কারিগরি বিদ্যা , বাণিজ্য , কৃষি , চারুকলা , গার্হস্থ্য বিজ্ঞান । 

৪. মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশনের একটি উল্লেখযোগ্য লক্ষ্য উল্লেখ করো । 

উত্তরঃ শিক্ষার্থীদের মধ্যে এমন শিক্ষার প্রসার ঘটাতে হবে যাতে তারা গণতান্ত্রিক দেশের নাগরিক হিসাবে জাতি , ধর্ম নির্বিশেষে তাদের দায়িত্বগুলি সঠিকভাবে পালন করতে পারে । 

৫. মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশনের শিরোনাম কী ছিল ? 

উত্তরঃ মাদ্রাজ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড . লক্ষ্মণস্বামী মুদালিয়রের সভাপতিত্বে মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন ( ১৯৫২ ) গঠিত হয় । সেজন্য এর শিরোনাম ছিল মুদালিয়র কমিশন । 

৬. CRC- এর পুরো কথাটি কী ? 

উত্তরঃ CRC – এর সম্পূর্ণ কথাটি হলো – Cumulative Record Card .

৭. Core পাঠ্যক্রম কী ? 

উত্তরঃ মুদালিয়র কমিশন মাধ্যমিক শিক্ষার পাঠক্রমকে ২ টি অংশে বিভক্ত করে । এর একটি হলো মূল বা Core পাঠক্রম , অন্যটি ঐচ্ছিক অংশ । Core অংশে থাকবে 1. মাতৃভাষা অথবা হিন্দি / ইংরেজি 2. সমাজবিজ্ঞান 3. গণিত ও সাধারণ জ্ঞান 4. হস্তশিল্প । 

৮. মুদালিয়র কমিশন প্রস্তাবিত মাধ্যমিক শিক্ষার দু’টি গুরুত্বপূর্ণ উদ্দেশ্য উল্লেখ করো । 

উত্তরঃ মাধ্যমিক শিক্ষার দু’টি গুরুত্বপূর্ণ উদ্দেশ্য– ১ ) উপযুক্ত নাগরিক তৈরি করা ২ ) জাতীয় সম্পদ বাড়িয়ে তোলা । 

৯. মুদালিয়র কমিশন প্রস্তাবিত উচ্চ মাধ্যমিক পাঠক্রমে ভাষা ব্যতীত অন্যান্য কেন্দ্রীয় বিষয়গুলি ( Core Subject ) কী ? 

উত্তরঃ সমাজবিজ্ঞান , গণিত ও সাধারণ বিজ্ঞান এবং হাতের কাজ বা হস্তশিল্প । 

১০. প্রথম কোন কমিশন Cumulative Record card এর কথা উল্লেখ করে ? 

উত্তরঃ মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন ।

সঠিক উত্তরটি নির্বাচন করো | মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) – দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান সাজেশন | HS Class 12 Education Suggestion :

১. মুদালিয়র কমিশন মুদালিয়র কমিশনে ভারতীয় সদস্যসংখ্যা—  (ক) 8 / (খ) ৫/ (গ) ৭ / (ঘ) ৯ ।

উত্তরঃ (গ) ৭ / 

২. ১৯৪৮ খ্রিস্টাব্দে মাধ্যমিক শিক্ষা পুনর্গঠনের জন্য কমিটি গঠনের প্রস্তাব দেয় – (ক) রায়চাঁদ কমিটি / (খ) যশপাল কমিটি / (গ) তারাচাঁদ কমিটি / (ঘ) রেড্ডি কমিটি । 

উত্তরঃ (গ) তারাচাঁদ কমিটি /

৩. মুদালিয়র কমিশনের মতে হায়ার সেকেন্ডারি বা উচ্চ মাধ্যমিক স্তর হবে— (ক) ৬ বছরের জন্য / (খ) ৩ বছরের জন্য / (গ) ৪ বছরের জন্য / (ঘ) ৫ বছরের জন্য । 

উত্তরঃ (গ) ৪ বছরের জন্য /

৪. মুদালিয়র কমিশনের মতে , জুনিয়র বেসিক বা নিম্নবুনিয়াদি স্তরের পর শিক্ষার্থীদের কোন ভাষা শেখানোর ব্যবস্থা করতে হবে ? (ক) বাংলা ও ইংরেজি / (খ) বাংলা ও উর্দু / (গ) ইংরেজি ও হিন্দি / (ঘ) উর্দু ও হিন্দি । 

উত্তরঃ (গ) ইংরেজি ও হিন্দি / 

৫. মুদালিয়র কমিশন উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে বিভিন্ন প্রবাহের ( Stream ) বিষয়গুলিকে ক’টি গ্রুপে ভাগ করেছে ? (ক) ৫ টি / (খ) ৬ টি / (গ) ৭ টি / (ঘ) ৯ টি । 

উত্তরঃ (গ) ৭ টি /

৬. মুদালিয়র কমিশনের অপর নাম হলো – (ক) প্রাথমিক শিক্ষা কমিশন / (খ) মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন / (গ) মহাবিদ্যালয় শিক্ষা কমিশন / (ঘ) বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষা কমিশন । 

উত্তরঃ (খ) মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন /

৭. মুদালিয়র কমিশনের মতে কোন শ্রেণির ছাত্র – ছাত্রীরা পছন্দমতো পাঠ্যসমূহ নির্বাচনে সক্ষম ? (ক) দশম শ্রেণি / (খ) অষ্টম শ্রেণি / (গ) দ্বাদশ শ্রেণি / (ঘ) নবম শ্রেণি । 

উত্তরঃ (ঘ) নবম শ্রেণি । 

৮  মুদালিয়র কমিশন গঠন করা হয়— (ক) ১৯৪৮ খ্রিস্টাব্দে / (খ) ১৯৫০ খ্রিস্টাব্দে (গ) ১৯৫১ খ্রিস্টাব্দে / (ঘ) ১৯৫২ খ্রিস্টাব্দে । 

উত্তরঃ (ঘ) ১৯৫২ খ্রিস্টাব্দে ।

৯. মুদালিয়র কমিশনের সদস্যসংখ্যা— (ক) ৫ / (খ) ৬ / (গ) ৭ / (ঘ) ৯ । 

উত্তরঃ (ঘ) ৯ ।

১০. মুদালিয়র কমিশনের রিপোর্ট সরকারের কাছে জমা পড়ে— (ক) ১৯৫২ খ্রিস্টাব্দে / (খ) ১৯৫৩ খ্রিস্টাব্দে / (গ) ১৯৫৬ খ্রিস্টাব্দে / (ঘ) ১৯৬৫ খ্রিস্টাব্দে। 

উত্তরঃ (খ) ১৯৫৩ খ্রিস্টাব্দে / 

১১. মুদালিয়র কমিশনের রিপোর্টে অধ্যায় সংখ্যা – (ক) ৯ অধ্যায় / (খ) ১২ অধ্যায় / (গ) ১৬ অধ্যায় / (ঘ) ২০ অধ্যায় । 

উত্তরঃ (গ) ১৬ অধ্যায় / 

১২. মাধ্যমিক শিক্ষায় 7 টি প্রবাহের অবতারণা করে – (ক) হান্টার কমিশন / (খ) মুদালিয়র কমিশন / (গ) বিশ্ববিদ্যালয় কমিশন / (ঘ) সার্জেন্ট কমিশন । 

উত্তরঃ (খ) মুদালিয়র কমিশন /

রচনাধর্মী প্রশ্নোত্তর | মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) – দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান সাজেশন | HS Class 12 Education Suggestion : 

১. মুদালিয়র কমিশন বর্ণিত সাধারণ শিক্ষার কাঠামো সংক্রান্ত সুপারিশগুলি আলোচনা করো । 

উত্তরঃ মুদালিয়র কমিশন বর্ণিত সাধারণ শিক্ষার কাঠামো সংক্রান্ত সুপারিশগুলি নিম্নরূপ : 

( 1 ) শিক্ষণকাল : 

মুদালিয়র কমিশন সম্পূর্ণ বিদ্যালয় শিক্ষার কালকে ১২ বছর করার সুপারিশ করেছে । 

( 2 ) প্রাথমিক শিক্ষাস্তর : কমিশন ৪ বা ৫ বছরের প্রাথমিক বা নিম্ন বুনিয়াদি শিক্ষস্তরের পর মাধ্যমিক শিক্ষা শুরুর সুপারিশ করেছে । মাধ্যমিক শিক্ষাস্তরটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হলেও সুপরিকল্পিতভাবে শিক্ষার পূর্ববর্তী ও পরবর্তী পর্যায়ের সঙ্গে সংগতি রেখে তার পুনর্গঠনের কাজ করার সুপারিশ করেছে মুদালিয়র কমিশন । 

( 3 ) মাধ্যমিক শিক্ষাস্তর : কমিশন মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষায় দু’টি পর্যায়ের সুপারিশ করেছে । যথা – 1) নিম্ন মাধ্যমিক 2) উচ্চতর মাধ্যমিক । 

( 4 ) বিকল্প শিক্ষাকাঠামো : মুদালিয়র কমিশন বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ও অভিভাবক – অভিভাবিকাদের অসুবিধার বিষয়টি বিবেচনা করে বিকল্প মাধ্যমিক শিক্ষাকাঠামোর প্রস্তাব করে । এই প্রস্তাব অনুযায়ী প্রচলিত ব্যবস্থায় ১০ বছরের বিদ্যালয় হবে ১১ বছরের । কলেজ স্তরে শিক্ষার যে ইন্টারমিডিয়েট স্তরটি ছিল , সেটাকে দু’টি পর্যায়ে ভাগ করে প্রথম ভাগটি মাধ্যমিক শিক্ষার সঙ্গে এবং দ্বিতীয় ভাগটি স্নাতক স্তরের সঙ্গে যোগ করে ৩ বছরের ডিগ্রি কোর্স চালুর সুপারিশ করেছিল মুদালিয়র কমিশন ।

( 5 ) অন্যান্য সুপারিশ : (ক) দশম শ্রেণির বিদ্যালয়গুলিকে একাদশ শ্রেণির বিদ্যালয়ে উন্নীত করার ব্যবস্থা । 

(খ) দশম শ্রেণির পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পর এক বছরের প্রাকৃবিশ্ববিদ্যালয় কোর্স অধ্যয়ন করে স্নাতক স্তরে পড়ার যোগ্যতা অর্জন করতে হবে । 

(গ) একাদশ শ্রেণির পাঠ , উচ্চতর মাধ্যমিক ( H.S ) এবং প্রাকৃবিশ্ববিদ্যালয় ( P.U ) ) ) কোর্স শেষ করবে যেসব ছাত্র – ছাত্রী তারাই পেশাগত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হওয়ার যোগ্য বলে বিবেচ্য হবে । 

(ঘ) বৃত্তিমূলক শিক্ষার সুযোগ রয়েছে এমন কলেজে এক বছরের প্রাকৃবৃত্তিমূলক কোর্স চালুর সুপারিশ করে। 

( ঙ ) কমিশন ছাত্র – ছাত্রীদের নিজ রুচি , প্রবণতা ও সামর্থ্য অনুযায়ী শিক্ষার্জনের সুযোগদানের জন্য বহুমুখী বিদ্যালয় স্থাপনের সুপারিশও করেছে । 

( চ ) সব রাজ্য সরকারকে কমিশন গ্রামীণ বিদ্যালয় স্থাপনের সুপারিশ করেছে এবং কলেজ স্তরে কর্মমুখী শিক্ষা যেমন কৃষিবিদ্যা , পশুপালন , কুটিরশিল্প ইত্যাদি শিক্ষার সুযোগ দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছে । 

২. মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বিভিন্ন রূপ ও সর্বার্থসাধক উচ্চবিদ্যালয় প্রসঙ্গে মুদালিয়র কমিশনের অভিমত সংক্ষেপে লেখো । 

উত্তরঃ মুদালিয়র কমিশনের অভিমত অনুযায়ী , মাধ্যমিক শিক্ষাস্তরে ছাত্র – ছাত্রীদের রুচি , প্রবণতা ও সামর্থ্য অনুসারে শিক্ষাদানের ব্যবস্থা করতে হবে । এজন্য কমিশন মোট সাতটি । প্রবাহ বা বিভাগের সুপারিশ করেছে । এই প্রবাহ অনুযায়ী শিক্ষাদানের জন্য কমিশন  নানা ধরনের বিদ্যালয় প্রসঙ্গে তার মতামত ব্যক্ত করে । এপ্রসঙ্গে নীচে আলোচনা করা হলো— 

  • 1. নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় : প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে পাশ করে আসা শিক্ষার্থীদের জন্য এখানে ৩ বছরের শিক্ষার ব্যবস্থা থাকবে । ফলে এখানে ৩ টি শ্রেণি থাকবে বলে মুদালিয়র কমিশন সুপারিশ করে । 
  • 2. উচ্চ বিদ্যালয় : দশম শ্রেণি পর্যন্ত বিদ্যালয়গুলি এই বিভাগে পড়বে । : 
  • 3. উচ্চতর বিদ্যালয় : শিক্ষার্থীরা নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পাঠ শেষ করে এখানে চার বছর পড়াশোনা করতে পারবে । অষ্টম শ্রেণি থেকে একাদশ শ্রেণি পর্যন্ত পঠন – পাঠনের ব্যবস্থা থাকবে এখানে । 
  • 4. বহুমুখী বা সর্বার্থসাধক উচ্চবিদ্যালয় : যেখানে বেশি সুযোগসুবিধা রয়েছে বা যেখানে সুযোগ পাওয়া যাবে , সেখানে সর্বার্থসাধক বা বহুমুখী বিদ্যালয় স্থাপনের সুপারিশ করেছে কমিশন । 
  • 5. কৃষিশিক্ষার বিদ্যালয় : গ্রামাঞ্চলে কৃষি বিদ্যালয় স্থাপন করে সেখানে কৃষিবিদ্যার পাশাপাশি পশুপালন , বাগান তৈরি ও কুটিরশিল্পের সুপারিশ করেছে কমিশন। 
  • 6. কারিগরি শিক্ষার বিদ্যালয় : শিল্পাঞ্চলের আশেপাশে কারিগরি শিক্ষার বিদ্যালয় স্থাপন করতে হবে । 
  • 7. আবাসিক বিদ্যালয় : কমিশন গ্রামাঞ্চলে আবাসিক বিদ্যালয় স্থাপনের সুপারিশ করেছে । অভিভাবকরা যেখানে ছেলে – মেয়েদের দেখাশোনা করার সুযোগ পান না সেখানে আবাসিক বিদ্যালয় গড়ে তোলা জরুরি । 
  • 8. প্রতিবন্ধী বিদ্যালয় : দৈহিক ও মানসিকভাবে প্রতিবন্ধকতার শিকার ছেলে – মেয়েদের জন্য মুদালিয়র কমিশন প্রতিবন্ধী বিদ্যালয় স্থাপনের সুপারিশ করেছে । 
  • 9. বালিকা বিদ্যালয় : প্রতিটি রাজ্যের নানা স্থানে ছেলেদের পাশাপাশি মেয়েদের জন্যও পৃথক বিদ্যালয় স্থাপনের সুপারিশ করেছে কমিশন । ঐ বিদ্যালয়ে সংগীত , শিল্পকলা , পুষ্টিবিজ্ঞান , গার্হস্থ্যবিজ্ঞান পড়াতে হবে ।

৩. মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন পরীক্ষা ও মূল্যায়ন ব্যবস্থা সম্পর্কে কী সুপারিশ করেছিল তা আলোচনা করো । 

উত্তরঃ মাদ্রাজ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড : লক্ষ্মণস্বামী মুদালিয়রের নেতৃত্বে 1952 সালের 23 সেপ্টেম্বর মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন গঠন করা হয় । এই কমিশন মুদালিয়র কমিশন নামেও পরিচিত । 

  পরীক্ষা ও মূল্যায়নের উন্নতি বিষয়ে মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশনের দু’টি গুরুত্বপূর্ণ সুপারিশ হলো— 1. শুধু বার্ষিক পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের প্রমোশন দেওয়া যাবে না । অভ্যন্তরীণ পরীক্ষার ফলাফল ও ছাত্র – ছাত্রীদের অন্যান্য কাজের রেকর্ডও বিবেচনা করা দরকার হবে । এছাড়া 2. নৈর্ব্যক্তিক পরীক্ষার উপর গুরুত্ব দিতে হবে । 

  এক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন প্রসঙ্গে মুদালিয়র কমিশনের সুপারিশে বলা হয় , প্রচলিত পরীক্ষা ব্যবস্থার সংস্কার করে শিক্ষার্থীদের অগ্রগতির মূল্যায়নের জন্য অভ্যন্তরীণ পরীক্ষা ও শিক্ষকদের দ্বারা রক্ষিত বিদ্যালয়ের রেকর্ডের উপর যথাযথ গুরুত্ব দিতে হবে । অন্যদিকে প্রশ্নপত্রে রচনাধর্মী প্রশ্নের পাশাপাশি নৈর্ব্যক্তিক অভীক্ষারও প্রবর্তন করতে হবে । 

   মুদালিয়র কমিশন মাধ্যমিক স্তরের শেষে শুধুমাত্র একটি সাধারণ বহিস্থ পরীক্ষা গ্রহণের সুপারিশ করেছিল । কমিশন শিক্ষার্থীদের লিখিত পরীক্ষার মূল্যায়নের জন্য নম্বরের পরিবর্তে পাঁচটি গ্রেডের সুপারিশ করেছিল । এগুলি হলো— A Distinction , B – Credit C – Pass , D and E – Failure । আবার শিক্ষার্থীদের কাজের মূল্যায়ন প্রসঙ্গেও মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন পাঁচটি স্কেলের সুপারিশ করেছিল । এগুলি হলো— A – Execellent , B – Good , C – Fair and Average , D – Poor এবং E – Very Poor 

  প্রসঙ্গত , পরীক্ষা একটি প্রয়োজনীয় ক্ষতিকারক প্রক্রিয়া । এর সঠিক বিকল্প এখনও আবিষ্কৃত হয়নি । এজন্য মুদালিয়র কমিশন গতানুগতিক পরীক্ষা ব্যবস্থাকে আধুনিক বিষয়াত্মক পরীক্ষা ব্যবস্থার দ্বারা নির্ভরযোগ্য করে তোলার সুপারিশ করে । কিন্তু এই সংস্কারের কোনো সঠিক নির্দেশ না থাকায় মাধ্যমিক স্তরের মূল্যায়ন আজও পরীক্ষা – শাসনে জর্জরিত । ফলে এখনও এই স্তরে অপচয় ও অনুত্তীর্ণতার অভিশাপ একইভাবে কাজ করে চলেছে । 

৪. মুদালিয়র কমিশনের মাধ্যমিক শিক্ষার পাঠক্রম সম্পর্কে আলোচনা করো । 

উত্তরঃ ভূমিকা : দেশ স্বাধীন হওয়ার পর ভারতীয় শিক্ষাক্ষেত্রকে ঢেলে সাজানো এবং জাতীয় শিক্ষানীতির পরিকাঠামো ভেঙে ফেলার লক্ষ্যে বিভিন্ন কমিশন ও কমিটি গড়ে তোলা হয় । যেমন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কমিশন , মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন ইত্যাদি । ড . এ . লক্ষ্মণস্বামী মুদালিয়য়ের সভাপতিত্বে ১৯৫২ খ্রিস্টাব্দে মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন গড়ে ওঠে , ভারতীয় শিক্ষার ইতিহাসে এই কমিশন মুদালিয়র কমিশন নামেই অধিক পরিচিত । 

পাঠক্রম : মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশনের মতে , প্রচলিত মাধ্যমিক শিক্ষার পাঠক্রমের সঙ্গে বাস্তবের সংযোগ অত্যন্ত ক্ষীণ । তাই এই পাঠক্রমের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের জীবনের চাহিদাগুলি পূরণ করা সম্ভব হয়নি । 

মুদালিয়র কমিশন মাধ্যমিক শিক্ষায় যেসকল পাঠক্রমের সুপারিশ করেছে তা এইরূপ— 

  • 1. নিম্ন মাধ্যমিক স্তরে পাঠক্রম : নিম্ন মাধ্যমিক স্তরে শিক্ষার্থীদের । বিষয়গুলি পড়তে হবে সেগুলি এইরূপ — ভাষা , সাধারণ বিজ্ঞান , সামাজিক শিক্ষা , বাংলার হাতের কাজ , শিল্প ও শারীরশিক্ষা । 
  • 2. উচ্চ মাধ্যমিক : কমিশন উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে শিক্ষার্থীর পছন্দ , আগ্রহ ও ক্ষমতা অনুসারে বহু সার্থক পাঠক্রমের সুপারিশ করেছে । কমিশন এই স্তরে পাঠক্রমকে দু’টি অংশে ভাগ করেছে – 

আবশ্যিক কেন্দ্রীয় বিষয় : 

  • 1. ভাষা : বা মাতৃভাষা এবং একটি প্রাচীন ভাষা । ও সমাজবিজ্ঞান প্রথম দু’বছরের সাধারণ পাঠ । 
  • 2. সাধারণ বিজ্ঞান ও গণিত : প্রথম দু’বছরের জন্য সাধারণ পাঠ । 
  • 3. হস্তশিল্প : নিম্নলিখিত তালিকা থেকে যেকোনো একটি হস্তশিল্প প্রয়োজন অনুসারে – বাছাই করে নিতে হবে – কাঠের কাজ , উদ্যান রচনা , দর্জির কাজ , ধাতুর কাজ , সুচিশিল্প ইত্যাদি ।

FILE INFO : HS Class 12 Education Suggestion PDF Download for FREE | দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান সাজেশন বিনামূল্যে ডাউনলোড করুণ | মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) – MCQ প্রশ্নোত্তর, অতি সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন উত্তর, সংক্ষিপ্ত প্রশ্নউত্তর, ব্যাখ্যাধর্মী প্রশ্নউত্তর

PDF Name : মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) – দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান সাজেশন | HS Class 12 Education Suggestion PDF

Price : FREE

Download Link : Click Here To Download

উচ্চমাধ্যমিক সাজেশন ২০২২ – HS Suggestion 2022

আরোও দেখুন:-

HS Bengali Suggestion 2022

আরোও দেখুন:-

HS English Suggestion 2022

আরোও দেখুন:-

HS Geography Suggestion 2022

আরোও দেখুন:-

HS History Suggestion 2022

আরোও দেখুন:-

HS Political Science Suggestion 2022

আরোও দেখুন:-

HS Philosophy Suggestion 2022

আরোও দেখুন:-

 HS Education Suggestion 2022

পশ্চিমবঙ্গ উচ্চ মাধ্যমিক  শিক্ষা বিজ্ঞান পরীক্ষার সম্ভাব্য প্রশ্ন উত্তর ও শেষ মুহূর্তের সাজেশন ডাউনলোড। দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান পরীক্ষার জন্য সমস্ত রকম গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন। West Bengal HS  Education Suggestion Download. WBCHSE HS Education short question suggestion. HS Class 12 Education Suggestion PDF download. HS Question Paper  Political science. WB HS 2022 Education suggestion and important questions. HS Class 12 Education Suggestion PDF.

Get the HS Class 12 Education Suggestion PDF by winexam.in

 West Bengal HS Class 12 Education Suggestion PDF  prepared by expert subject teachers. WB HS  Education Suggestion with 100% Common in the Examination.

Class 12th Education Suggestion

West Bengal HS  Education Suggestion Download. WBCHSE HS Education short question suggestion. HS Class 12 Education Suggestion PDF  download. HS Question Paper  Political science.

দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান সাজেশন – মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) – প্রশ্ন উত্তর |  WB HS Education  Suggestion

দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান (HS Political science) মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) – প্রশ্ন উত্তর। দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান সাজেশন – মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) – প্রশ্ন উত্তর |  WB HS Education  Suggestion

মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) – উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বিজ্ঞান সাজেশন | Higher Secondary Education Suggestion

দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান পশ্চিমবঙ্গ উচ্চ মাধ্যমিক বোর্ডের (WBCHSE) সিলেবাস বা পাঠ্যসূচি অনুযায়ী  দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষা বিজ্ঞান বিষয়টির সমস্ত প্রশ্নোত্তর। সামনেই উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা, তার আগে winexam.in আপনার সুবিধার্থে নিয়ে এল মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) – উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বিজ্ঞান সাজেশন | Higher Secondary Education Suggestion । শিক্ষা বিজ্ঞান বিষয়ে ভালো রেজাল্ট করতে হলে অবশ্যই পড়ুন আমাদের দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান সাজেশন বই ।

মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) – দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষা বিজ্ঞান সাজেশন | West Bengal Class 12th Suggestion

আমরা WBCHSE উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার শিক্ষা বিজ্ঞান বিষয়ের – মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) – দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষা বিজ্ঞান সাজেশন | West Bengal Class 12th Suggestion আলোচনা করেছি। আপনারা যারা এবছর দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষা বিজ্ঞান পরীক্ষা দিচ্ছেন, তাদের জন্য আমরা কিছু প্রশ্ন সাজেশন আকারে দিয়েছি. এই প্রশ্নগুলি পশ্চিমবঙ্গ দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষা বিজ্ঞান পরীক্ষা  তে আসার সম্ভাবনা খুব বেশি. তাই আমরা আশা করছি HS শিক্ষা বিজ্ঞান পরীক্ষার সাজেশন কমন এই প্রশ্ন গুলো সমাধান করলে আপনাদের মার্কস বেশি আসার চান্স থাকবে।

দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান সাজেশন – মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) | HS Class 12 Education Suggestion with FREE PDF Download

Education Class XII, Education Class Twelve, WBCHSE, syllabus, HS Political science, দ্বাদশ শ্রেণি শিক্ষা বিজ্ঞান, ক্লাস টোয়েলভ শিক্ষা বিজ্ঞান, উচ্চ মাধ্যমিকের শিক্ষা বিজ্ঞান, শিক্ষা বিজ্ঞান উচ্চ মাধ্যমিক – মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়), দ্বাদশ শ্রেণী – মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়), উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বিজ্ঞান মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়), ক্লাস টেন মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়), HS Education – মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়), Class 12th মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়), Class X মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়), ইংলিশ, উচ্চ মাধ্যমিক ইংলিশ, পরীক্ষা প্রস্তুতি, রেল, গ্রুপ ডি, এস এস সি, পি, এস, সি, সি এস সি, ডব্লু বি সি এস, নেট, সেট, চাকরির পরীক্ষা প্রস্তুতি, HS Suggestion, HS Suggestion , HS Suggestion , West Bengal Secondary Board exam suggestion, West Bengal Higher Secondary Board exam suggestion , WBCHSE , উচ্চ মাধ্যমিক সাজেশান, উচ্চ মাধ্যমিক সাজেশান , উচ্চ মাধ্যমিক সাজেশান , উচ্চ মাধ্যমিক সাজেশন, দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান সাজেশান ,  দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান সাজেশান , দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান , দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান, মধ্যশিক্ষা পর্ষদ, HS Suggestion Education , দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান – মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) – সাজেশন | HS Class 12 Education Suggestion PDF PDF, দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান – মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) – সাজেশন | HS Class 12 Education Suggestion PDF PDF, দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান – মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) – সাজেশন | দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান – মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) – সাজেশন | HS Class 12 Education Suggestion PDF PDF, দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান – মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) – সাজেশন | HS Class 12 Education Suggestion PDF PDF,দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান – মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) – সাজেশন | HS Class 12 Education Suggestion PDF PDF, দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান – মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) – সাজেশন | HS Class 12 Education Suggestion PDF, HS Education Suggestion PDF ,  West Bengal Class 12 Education Suggestion PDF.

  এই (মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (ষষ্ঠ অধ্যায়) – দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষা বিজ্ঞান সাজেশন | HS Class 12 Education Suggestion PDF) পোস্টটি থেকে যদি আপনার লাভ হয় তাহলে আমাদের পরিশ্রম সফল হবে। আরোও বিভিন্ন স্কুল বোর্ড পরীক্ষা, প্রতিযোগিতা মূলক পরীক্ষার সাজেশন, অতিসংক্ষিপ্ত, সংক্ষিপ্ত ও রোচনাধর্মী প্রশ্ন উত্তর (All Exam Guide Suggestion, MCQ Type, Short, Descriptive Question and answer), প্রতিদিন নতুন নতুন চাকরির খবর (Job News) জানতে এবং সমস্ত পরীক্ষার এডমিট কার্ড ডাউনলোড (All Exam Admit Card Download) করতে winexam.in ওয়েবসাইট ফলো করুন, ধন্যবাদ।

Win exam telegram channel

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here