ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত - পঞ্চম অধ্যায়) - মাধ্যমিক ভূগোল সাজেশন | Madhyamik Geography Suggestion PDF
ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত - পঞ্চম অধ্যায়) - মাধ্যমিক ভূগোল সাজেশন | Madhyamik Geography Suggestion PDF

ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) – মাধ্যমিক ভূগোল সাজেশন

Bharat Abasthan Prashasnik Vibhag – Madhyamik Geography Suggestion PDF

মাধ্যমিক ভূগোল সাজেশন – ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) সাজেশন | Bharat Abasthan Prashasnik Vibhag- Madhyamik Geography Suggestion PDF : ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) মাধ্যমিক ভূগোল সাজেশন ও অধ্যায় ভিত্তিতে প্রশ্নোত্তর নিচে দেওয়া হল।  এবার পশ্চিমবঙ্গ মাধ্যমিক ভূগোল পরীক্ষায় বা মাধ্যমিক ভূগোল পরীক্ষায় ( WB Madhyamik Geography Suggestion PDF  | West Bengal Madhyamik Geography Suggestion PDF  | Bharat Abasthan Prashasnik Vibhag – WBBSE Board Class 10th Geography Question and Answer with PDF file Download) এই প্রশ্নউত্তর ও সাজেশন খুব ইম্পর্টেন্ট । আপনারা যারা আগামী মাধ্যমিক ভূগোল পরীক্ষার জন্য বা মাধ্যমিক ভূগোল – ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) | Madhyamik Geography Suggestion PDF  | WBBSE Board Madhyamik Class 10th (X) Geography Suggestion  Question and Answer খুঁজে চলেছেন, তারা নিচে দেওয়া প্রশ্ন ও উত্তর ভালো করে পড়তে পারেন। 

মাধ্যমিক ভূগোল সাজেশন | পশ্চিমবঙ্গ দশম শ্রেণীর ভূগোল সাজেশন/নোট (West Bengal Class 10th Suggestion PDF / Madhyamik Geography Suggestion) | ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) – MCQ, SAQ, Short, Descriptive Question and Answer

পশ্চিমবঙ্গ মাধ্যমিক দশম শ্রেণীর ভূগোল সাজেশন (West Bengal Madhyamik Geography Suggestion PDF / Notes) ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) – প্রশ্ন উত্তর – MCQ প্রশ্নোত্তর, অতি সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন উত্তর (SAQ), সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন উত্তর (Short Question and Answer), ব্যাখ্যাধর্মী বা রচনাধর্মী প্রশ্নোত্তর (descriptive question and answer) এবং PDF ফাইল ডাউনলোড লিঙ্ক নিচে দেওয়া রয়েছে

ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়)

অতিসংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর | ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) – মাধ্যমিক ভূগোল সাজেশন | Madhyamik Geography Suggestion : 

  1. ম্যাকমোহন লাইনটি ভারতের কোন রাজ্যের ভারত – চিন সীমারখো ?

Answer : অরুণাচল প্রদেশ ।

  1. ভারতের নবতম রাজ্য কোনটি ?

Answer : তেলেঙ্গানা ।

  1. বাংলাদেশের ছিটমহলগুলি ভারতের কোন রাজ্যে যুক্ত হয় ?

Answer : পশ্চিমবঙ্গ ।

  1. ভারত ও শ্রীলঙ্কার মধ্যে কোন্ প্রণালী রয়েছে ?

Answer : পকপ্রণালী ।

  1. ভারতের কোন শহরটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল এবং 

একইসঙ্গে E দুটি রাজ্যের রাজধানী ?

Answer : চণ্ডীগড় ।

  1. কত খ্রিস্টাব্দে রাজ্য পুনর্গঠন কমিশন স্থাপিত হয় ?

Answer : ১৯৫৩ ।

  1. ভারতে রাজ্যভাগে কোন্ বিষয়টিকে সর্বাধিক গুরুত্ব দেওয়া হয় ?

Answer : ভাষা ।

  1. পূর্ব – পশ্চিমে ভারতের বিস্তার কত ?

Answer : ২৯৩৩ কিমি ।

  1. ভারতের স্থল সীমানার দৈর্ঘ্য কত ?

Answer : ১৫,২০০ কিমি ।

  1. চণ্ডীগড় কোন্ দুই রাজ্যের রাজধানী ? 

Answer : পাঞ্জাব , হরিয়ানা ।

  1. আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের মাঝখানে কোন্ প্রণালী অবস্থিত ?

Answer : ১০ ° চ্যানেল ।

  1. সর্বাধিক প্রতিবেশী রাষ্ট্রের সীমানা স্পর্শকারী রাজ্য কোনগুলি ?

Answer : পশ্চিমবঙ্গ , অরুণাচল প্রদেশ ও জম্মু – কাশ্মীর ( ৩ টি করে ) ।

  1. ভারতের সবথেকে কম সীমানাস্পর্শকারী রাজ্য কোন্‌টি ?

Answer : সিকিম ( ১ টি , পশ্চিমবঙ্গ ) ।

  1. ভারতের সবচেয়ে বেশি আন্তর্জাতিক সীমানা স্পর্শকারী রাজ্য কোনটি ?

Answer : অরুণাচল প্রদেশ ( ৩ টি — ভুটান , চিন ও মায়নমার ) ।

  1. দ্রাঘিমারেখার ভিত্তিতে ভারত কোন্ গোলার্ধের দেশ ?

Answer : পূর্ব গোলার্ধের । 

  1. ভারতের দক্ষিণতম বিন্দুর নাম কী ?

Answer : ইন্দিরা পয়েন্ট ।

  1. ভারতের মূল ভূখণ্ডের দক্ষিণতম অংশের নাম কী ? 

Answer : কন্যাকুমারিকা অন্তরীপ ।

  1. কোন বিখ্যাত অক্ষরেখা ভারতের মাঝবরাবর বিস্তৃত ।

Answer : কর্কটক্রান্তি রেখা ।

  1. ভারত সমেত প্রতিবেশি দেশগুলির সংগঠনের নাম কী ? 

Answer : SAARC .

  1. SAARC এর সদস্যসংখ্যা ক – টি ?

Answer : ৬ টি । 

  1. SAARC- এর পুরো কথা কী ?

Answer : South Asian Association for Regional Co – operation . 

  1. ক্ষেত্রফল বিচারে পৃথিবীতে ভারতের স্থান কত ?

Answer : সপ্তম ।

  1. ভারত ও পাকিস্তানের সীমারেখার নাম কী ? 

Answer : র‍্যাডক্লিফ লাইন । 

  1. কোন্ প্রতিবেশি দেশের সঙ্গে ভারতের সীমারেখা দীর্ঘতম ?

Answer : বাংলাদেশ ।

  1. ভারতের একটি প্রতিবেশি দেশের নাম লেখো যা সম্পূর্ণ ; স্থলভাগ বেষ্টিত ।

Answer : নেপাল বা ভূটান ।

  1. একটি প্রতিবেশি দেশের নাম লেখো যা সম্পূর্ণ দ্বীপভূমি ।

Answer : শ্রীলঙ্কা / মালদ্বীপ ।

  1. ভারতের কোন রাজ্য ক্ষেত্রফলে বৃহত্তম ।

Answer : রাজস্থান ।

  1. বর্তমানে ভারতে রাজ্যের সংখ্যা ক – টি ?

Answer : ২৯ টি ।

MCQ | ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) – মাধ্যমিক ভূগোল সাজেশন | Madhyamik Geography Suggestion :

  1. বর্তমানে ভারতের মোট রাজ্যসংখ্যা হল—(A) ২৭(B) ২৮ (C) ৩০ (D) ২৯

Answer : (D) ২৯

  1. চৈত্র মধ্যপ্রদেশ রাজ্য ভেঙে নতুন যে রাজ্যটি গঠিত হয়েছে তার নাম হল -(A) ছত্তিশগড়(B) উত্তরাখণ্ড(C) তেলেঙ্গানা(D) ঝাড়খণ্ড

Answer : (A) ছত্তিশগড়

  1. বর্তমানে ভারতে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের সংখ্যা হল -(A) ৯(B) ৭(C) ৬(D) ৮ 

Answer : (B) ৭ 

  1. প্রমাণ দ্রাঘিমারেখা কোন শহরের ওপর দিয়ে প্রসারিত হয়েছে ? -(A) এলাহাবাদ(B) আমেদাবাদ(C) লখনউ(D) দিল্লি

Answer : (A) এলাহাবাদ

  1. ভারতের মূল ভূখণ্ডের দক্ষিণতম বিন্দু হল -(A) ইন্দিরা পয়েন্ট(B) রামেশ্বরম(C) তিরুবনন্তপুরম (D) কন্যাকুমারিকা অন্তরীপ

Answer : (D) কন্যাকুমারিকা অন্তরীপ

  1. ভারত ও পাকিস্তান সীমারেখা কী নামে পরিচিত ?(A) ম্যাকমোহন লাইন(B) ডুরান্ড লাইন(C) র‍্যাডক্লিফ লাইন(D) কোনোটাই নয়

Answer : (C) র‍্যাডক্লিফ লাইন

  1. ভারত ও শ্রীলঙ্কার মধ্যে কোন্ প্রণালী রয়েছে— “(A) ১০ ° চ্যানেল(B) ৯ ° চ্যানেল(C) পক্‌প্রণালী(D) সমব্রেরো চ্যানেল

Answer : (C) পক্‌প্রণালী

  1. ভারতের কোন রাজ্য ক্ষেত্রমান বৃহত্তম ?(A) মধ্যপ্রদেশ(B) উত্তরপ্রদেশ(C) গুজরাট(D) রাজস্থান

Answer : (D) রাজস্থান

  1. ভারতে ‘ রাজ্য পুনর্গঠন কমিশন স্থাপিত হয় কত খ্রিস্টাব্দে ? -(A) ১৯৫৩ খ্রিস্টাব্দে(B) ১৯৫৫ খ্রিস্টাব্দে(C) ১৯৫৪ খ্রিস্টাব্দে(D) ১৯৫৬ খ্রিস্টাব্দে

Answer : (A) ১৯৫৩ খ্রিস্টাব্দে

  1. ঝাড়খণ্ড রাজ্যের রাজধানীর নাম কী ?(A) জামসেদপুর(B) রাঁচি(C) পাটনা(D) রায়পুর

Answer : (B) রাঁচি

  1. ভারতের প্রমাণ দ্রাঘিমারেখা হল—(A) ৮২ ° ২৮ ′ পূর্ব(B) ৮২ ° ৩২ ′ পূর্ব(C) ৮২ ° ৩০ ′ পূর্ব(D) ৮২ ° ৩৪ ′ পূর্ব

Answer : (B) ৮২ ° ৩২ ′ পূর্ব

  1. অক্ষাংশগত দিক থেকে ভারত কোন্ গোলার্ধে অবস্থিত ?(A) দক্ষিণ (B) পূর্ব(C) পশ্চিম (D) উত্তর

Answer : B) পূর্ব

  1. পূর্বে গুজরাটের কচ্ছের রণ থেকে পশ্চিমে অরুণাচল প্রদেশ পর্যন্ত ভারতের প্রস্থ হল -(A) ৩২১২ কিমি(B) ২৯৩৩ কিমি(C) ৩৫১২ কিমি(D) ২৯৩৬ কিমি

Answer : (C) ৩৫১২ কিমি

  1. আয়তনে পৃথিবীতে ভারতের স্থান কত — (A) অষ্টম(B) সপ্তম(C) নবম(D) দশম 

Answer : (A) অষ্টম

  1. ১৯৫০ খ্রিস্টাব্দের ২৬ জানুয়ারির আগে ভারতে মোট ক – টি অঙ্গরাজ্য ছিল ?(A) ১৪(B) ২৭(C) ২৮(D) ২৬

Answer : (A) ১৪

  1. ১৯৫৬ খ্রিস্টাব্দের রাজ্য পুনর্গঠন কীসের ভিত্তিতে হয় ?(A) সীমানা(B) ভাষা(C) শিক্ষা(D) জাতি

Answer : (B) ভাষা

  1. ১৯৫৬ খ্রিস্টাব্দে রাজ্য পুনর্গঠনের সময় ভারতে রাজ্যপাল শাসিত রাজ্য ( অঙ্গরাজ্য ) ছিল—(A) ১৫ (B) ১৭(C) ১৪(D) ১৬

Answer : (D) ১৬

  1. কর্নাটক রাজ্যের পূর্বনাম ছিল—(A) ত্রিবাঙ্কুর(B) ইউনাইটেড প্রভিন্স(C) কুর্গ(D) মহীশূর

Answer : (C) কুর্গ

সংক্ষিপ্ত উত্তরভিত্তিক প্রশ্নোত্তর | ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) – মাধ্যমিক ভূগোল সাজেশন | Madhyamik Geography Suggestion : 

  1. ভারতের বৃহত্তম ও ক্ষুদ্রতম রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের নাম লেখো ।

Answer : ভারতের বৃহত্তম রাজ্য — রাজস্থান । বৃহত্তম কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল— আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপ । ক্ষুদ্রতম রাজ্য — গোয়া । ক্ষুদ্রতম কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল — লাক্ষাদ্বীপ । 

  1. ভারতের পশ্চিমে এবং দক্ষিণে অবস্থিত উপসাগর গুলির নাম লেখো ।

Answer : পশ্চিম ভারতের উপসাগর হল — কচ্ছ উপসাগর ও খাম্বাত উপসাগর । দক্ষিণ ভারতের উপসাগর হল— মান্নার উপসাগর ।

  1. ভারতের কোন রাজ্যের জেলার সংখ্যা সর্বাধিক এবং কোন্ রাজ্যের জেলার সংখ্যা সর্বনিম্ন ?

Answer : ভারতের উত্তরপ্রদেশ রাজ্যের জেলার সংখ্যা সর্বাধিক— ৭২ টি এবং ত্রিপুরা ও সিকিম জেলার সংখ্যা সর্বনিম্ন— ( ৪ টি করে ) ।

  1. সর্বাধিক রাজ্য দ্বারা সীমানা স্পর্শ করেছে এমন ২ টি রাজ্যের নাম লেখো ।

Answer : সর্বাধিক রাজ্য দ্বারা সীমানা স্পর্শকারী রাজ্য হল— ( ১ ) উত্তরপ্রদেশ – ৮ টি ( উত্তরাখণ্ড , মধ্যপ্রদেশ , ছত্তিশগড় , হিমাচলপ্রদেশ , হরিয়ানা , ঝাড়খণ্ড , রাজস্থান ও বিহার ) ( ২ ) অসম —৭ টি ( পশ্চিমবঙ্গ , মেঘালয় , ত্রিপুরা , মিজোরাম , মণিপুর , নাগাল্যান্ড , অরুণাচল প্রদেশ ) ।

  1. ভারতের রাজ্যসমূহের পুনর্গঠনের প্রধান ভিত্তি কী ছিল ?

Answer : ভারতের রাজ্যসমূহের পুনর্গঠনের প্রধান ভিত্তিগুলি হল – ( i ) ভাষা , ( ii ) সংস্কৃতি , ( iii ) প্রশাসনিক দক্ষতাবৃদ্ধি , ( iv ) অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা এবং ( v ) প্রাকৃতিক ও ভৌগোলিক সাদৃশ্য ।

  1. ভারতের দাক্ষিণাত্যকে উপদ্বীপ বলা হয় কেন ?

Answer : তিনদিক জলভাগ দ্বারা বেষ্টিত কোনো স্থলভাগকে উপদ্বীপ বলে । ভারতের দক্ষিণ ভাগ অর্থাৎ দাক্ষিণাত্যকে উপদ্বীপ বলা হয় কারণ এর পূর্বে বঙ্গোপসার , পশ্চিমে আরব সাগর ও দক্ষিণে ভারতমহাসাগর অর্থাৎ তিনদিকে জলভাগ অবস্থান করছে ।

  1. ভারতবর্ষ পৃথিবীর ঠিক কোথায় অবস্থিত ?

Answer : ভারতবর্ষ পৃথিবীর উত্তর গোলার্ধে অবস্থিত , আবার পূর্ব – পশ্চিমের হিসাবে পূর্ব গোলার্ধের ঠিক মাঝখানে অবস্থিত । এ ছাড়া বলা যায় , ভারত এশিয়া মহাদেশের দক্ষিণ – পূর্ব অংশে অবস্থিত । INTERESTING FACTS ভারতের প্রমাণ সময় | Greenwich Mean Time এর থেকে ৫ ঘণ্টা ৩০ মিনিট এগিয়ে , Australian Eastern Standard Time এর তুলনায় ৪ ঘণ্টা পিছিয়ে এবং American Eastern Standard Time এর থেকে ১০.৫ ঘণ্টা এগিয়ে থাকে ।

  1. পশ্চিমবঙ্গ ছাড়া আর কোন্ কোন্ রাজ্যের সীমানা বাংলাদেশকে স্পর্শ করে আছে ?

Answer : পশ্চিমবঙ্গ ছাড়া আসাম , মেঘালয় , ত্রিপুরা ও মিজোরাম রাজ্য বাংলাদেশের সীমানা স্পর্শ করে আছে ।

  1. পাকিস্তানের সাথে ভারতের কোন্ কোন্ রাজ্যের সীমানা স্পর্শ করে আছে ?

Answer : ভারতের জম্মু ও কাশ্মীর , পাঞ্জাব , রাজস্থান ও গুজরাট রাজ্যের সীমানা পাকিস্তানের সীমানা স্পর্শ করে আছে ।

  1. ভারতের অক্ষাংশগত অবস্থান লেখো ।

Answer : ভারত দক্ষিণে ৮ ° ৪ ′ উত্তর অক্ষাংশ ( কন্যাকুমারিকা অন্তরীপ ) থেকে উত্তরে ৩৭ ° ৬ ′ উত্তর অক্ষাংশ ( কাশ্মীরের ইন্দিরা কল ) পর্যন্ত বিস্তৃত । অক্ষাংশগত ভাবে ভারত উত্তর গোলার্ধে অবস্থিত । 

  1. ভারতের দ্রাঘিমাংশগত অবস্থান লেখো ।

Answer : ভারত পশ্চিমে ৬৮ ° ৭ ′ পূর্ব দ্রাঘিমা ( গুজরাটের পশ্চিম সীমা ) থেকে ৯৭ ° ২৫ ′ পূর্ব দ্রাঘিমা ( অরুণাচল প্রদেশের পূর্ব সীমা ) পর্যন্ত বিস্তৃত । দ্রাঘিমাগত দিক থেকে ভারত পূর্ব গোলার্ধে অবস্থিত ।

  1. ভারতের প্রমাণ দ্রাঘিমারেখা কোন্ কোন্ শহরের পর দিয়ে প্রসারিত হয়েছে ?

Answer : ভারতের প্রমাণ দ্রাঘিমারেখা ( ৮২ ° ৩০ ′ পূ . ) এলাহাবাদ , সোনহাট এবং কোকনদের মধ্যে দিয়ে প্রসারিত হয়েছে । 

  1. কোন্ দুটি রেখা ভারতকে পূর্ব – পশ্চিমে এবং উত্তর – দক্ষিণে ভাগ করেছে ?

Answer : কর্কটক্রান্তি রেখা ( ২৩১ / ২ ° উত্তর ) ভারতকে উত্তর – দক্ষিণে এবং ৮০ ° পূর্ব দ্রাঘিমারেখা ভারতকে পূর্ব – পশ্চিমে ভাগ করেছে ।

  1. ভারতের মূল ভূখণ্ডের দক্ষিণতম বিন্দু এবং ভারতের দক্ষিণতম স্থলবিন্দু কোন্‌টি ?

Answer : ভারতের মূল ভূখণ্ডের দক্ষিণতম বিন্দু হল কন্যাকুমারিকা অন্তরীপ এবং ভারতের দক্ষিণতম স্থলবিন্দু হল আন্দামান – নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের দক্ষিণে অবস্থিত ইন্দিরা পয়েন্ট । ভারত : অবস্থ মায়ানমার ও বাংলাদেশ , বঙ্গোপসাগর এবং দক্ষিণে রয়েছে শ্রীলঙ্কা ও ভারতমহাসাগর ।

  1. উপদ্বীপ ( Peninsula ) কাকে বলে ?

Answer : তিনদিক জলভাগ দ্বারা বেষ্টিত স্থলভাগকে উপদ্বীপ বলে । যেমন— ভারত হল একটি উপদ্বীপ , কারণ ভারতের তিনদিকে রয়েছে ৩ টি সাগর ( পূর্বে বঙ্গোপসাগর , পশ্চিমে আরব সাগর এবং দক্ষিণে ভারতমহাসাগর ) । ভারত পৃথিবীর বৃহত্তম উপদ্বীপ ।

  1. উপসাগর ( Bay ) কাকে বলে ?

Answer : তিনদিক স্থলভাগ দ্বারা বেষ্টিত সমুদ্রভাগকে উপসাগর বলে । যেমন — খাম্বাত উপসাগর , কচ্ছ উপসাগর ইত্যাদি ।

ব্যাখ্যামূলক উত্তরধর্মী প্রশ্নোত্তর | ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) – মাধ্যমিক ভূগোল সাজেশন | Madhyamik Geography Suggestion : 

  1. ভারতের রাজ্য পুনর্গঠনে ভাষার ভূমিকা লেখো ।

Answer : ১৯৫৬ খ্রিস্টাব্দে রাজ্য পুনর্গঠনের জন্য ভাষার ভূমিকা ছিল সবচেয়ে বেশি । ভারতের কোনো বিস্তীর্ণ অঞ্চলের অধিকাংশ মানুষ যে যে ভাষায় কথা বলেন , সেই সেই অঞ্চলগুলিকে রাজ্যের মর্যাদা দেওয়া হয় । যেমন — ওড়িয়া ভাষা প্রধান অঞ্চলকে ওড়িশা , বাংলা ভাষা প্রধান অঞ্চলকে পশ্চিমবঙ্গ বা অসমীয়া ভাষা প্রধান অঞ্চলকে অসম রাজ্যের মর্যাদা দেওয়া হয়েছে । এই হিসেবেই তেলুগু , পাঞ্জাবি , তামিল , কাশ্মীরি ভাষা প্রধান অঞ্চলগুলি হল যথাক্রমে অন্ধ্রপ্রদেশ , পাঞ্জাব , তামিলনাড়ু , জম্মু ও কাশ্মীর প্রভৃতি । 

  1. ভারতের উপদ্বীপীয় অবস্থানের গুরুত্ব ব্যাখ্যা করো । 

Answer : ভারতের দক্ষিণাংশ উপদ্বীপীয় ভারত নামে পরিচিত । এই অংশকে দাক্ষিণাত্য বলে । এরুপ উপদ্বীপীয় অবস্থানের সুবিধাগুলি হল— ( ১ ) জলবায়ু : সমুদ্র কাছাকাছি অবস্থান করায় এই অংশের জলবায়ু সমভাবাপন্ন । ( ২ ) আত্মরক্ষা : সমুদ্রবেষ্টিত হওয়ায় সমুদ্রপথে বহিঃশত্রুরা সহজে আক্রমন করতে পারে না । ( ৩ ) ব্যাবসাবাণিজ্য : জলপথে অন্যান্য দেশের সাথে ব্যাবসা বাণিজ্যের সুবিধা হয় । ( ৪ ) মৎস্যশিকার : পার্শ্ববর্তী সমুদ্র থেকে ভারত প্রচুর মৎস্যশিকার করে । এ ছাড়া মণিমুক্তা ও খনিজসম্পদও পাওয়া যায় । ( ৫ ) নৌবিদ্যা : ভারত নৌবিদ্যায়ও যথেষ্ট পারদর্শী । স্থলভাগের সীমানা দেখতে পাওয়া যায় । এর দৈর্ঘ্য হ ১৫,২০০ কিমি । উত্তরের সুবিশাল হিমালয় পর্বত ভারত ও চিনের প্রাকৃতিক সীমানা হিসেবে অবস্থান করছে । ভুটানের পূর্বাংশ থেকে অরুণাচল প্রদেশ পর্যন্ত ভারত ও চিনের সীমান ম্যাকমোহন লাইন নামে পরিচিত । ভারতের উত্তর – পশ্চিমে ভারত ও পাকিস্তানের সীমারেখা হল র‍্যাডক্লিফ লাইন । উত্তর – পূর্বে ভারত – মায়ানমার ও ভারত – বাংলাদেশ সীমারেখাও বর্তমান ।

  1. ভারতের জলভাগের সীমানা ।

Answer : ভারতের দক্ষিণে প্রায় ৬১০০ কিমি অংশজুড়ে অবস্থান করছে ভারতের জলভাগের সীমানা । ভারতের জলভাগের সীমানা নানান সাগর , উপসাগর ও মহাসাগর দ্বারা বেষ্টিত । যেমন- ভারতের সর্বদক্ষিণে রয়েছে ভারতমহাসাগর এবং ভারত ও শ্রীলঙ্কার মধ্যে রয়েছে মান্নার উপসাগর , পক্ উপসাগর ও পপ্রণালী । ভারতের পূর্বে রয়েছে বঙ্গোপসাগর ও পশ্চিমে রয়েছে আরব সাগর এবং গুজরাটের কচ্ছ ও কাথিয়াবাড়ের মধ্যে রয়েছে । কচ্ছ উপসাগর ও কাথিয়াবাড়ের দক্ষিণ পূর্বে রয়েছে কাছে খাম্বাত উপসাগর ।

  1. ভারতকে ‘ বৈচিত্র্যময় দেশ ’ বলা হয় কেন ?

Answer : ভারতে প্রাকৃতিক , অর্থনৈতিক , রাজনৈতিক সাংস্কৃতিক দিক থেকে বহু বৈচিত্র্য পরিলক্ষিত হয় । ভারতের অবস্থান ও আয়তনগত বিশালতার জন্য সারা দেশজুড়ে মানুষের ভাষা , ধর্ম , সংস্কৃতি , জীবনধারণের ধরন , পোশাক – পরিচ্ছদ , খাদ্যাভ্যাস সবই ভিন্ন । এমনকি প্রাকৃতিক দিক দিয়েও ভারতের কোথাও সুউচ্চ পার্বত্য অঞ্চল , পাহাড়ি অঞ্চল , কোথাও বন্ধুর মালভূমি কোথাও – বা নদী অধ্যুষিত সমভূমি অবস্থান করছে । ভারতের এই সর্বাঙ্গীন বৈচিত্র্যময়তার জন্য ভারতকে ‘ বৈচিত্র্যময় দেশ ’ বলা হয় । বৈচিত্র্যতার কারণেই ভারতকে ‘ পৃথিবীর ক্ষুদ্র সংস্করণ ’ ( Epitome of the World ) বলা হয় । 

  1. ভারতবর্ষকে উপমহাদেশ বলার কারণ কী ?

Answer : ভারতবর্ষকে উপমহাদেশ বলার কারণ : এশিয়া মহাদেশের সর্ব দক্ষিণে অবস্থিত ভারত এবং ( চিন ও আফগানিস্তান বাদে ) ভারতের অন্যান্য প্রতিবেশী দেশগুলি যেমন : পাকিস্তান , নেপাল , ভুটান , বাংলাদেশ এবং শ্রীলঙ্কার মধ্যে প্রাকৃতিক ও সাংস্কৃতিক যোগাযোগ এত নিবিড় যে , এই ছ – টি দেশকে একসঙ্গে ভারতীয় উপমহাদেশ বলা হয় । ভারতের মতো এইসব দেশগুলিও এককালে কেন্দ্রীভূত ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের অঙ্গ হিসেবে বহুদিনই একসঙ্গে অবস্থান করেছে , আবার ভারতের কিছু আগে পরে স্বাধীনতাও লাভ করেছে । এইসব দেশের মূল আইন এবং বৈদেশিক নীতিও অনেকটা একই রকমের । বিশেষ ভৌগোলিক অবস্থানের স জন্য ভারত এইসব দেশের মধ্যমণি হিসেবে অবস্থান করছে বলে মনে করা হয় । তাই এইসব দেশকে একসঙ্গে ভারতীয় উপমহাদেশ বলা হয় । 

  1. ভারতের কোন্ কোন্ রাজ্য ভেঙে নতুন রাজ্য গঠন করা হয়েছে লেখো ।

Answer : ভারতের বিহার রাজ্য ভেঙে হয় ঝাড়খণ্ড , মধ্যপ্রদেশ রাজ্য ভেঙে হয় ছত্তিশগড় , উত্তরপ্রদেশ রাজ্য ভেঙে হয় উত্তরাখণ্ড এবং অন্ধ্রপ্রদেশ রাজ্য ভেঙে গঠিত হয় তেলেঙ্গনা রাজ্য ।

রচনাধর্মী প্রশ্নোত্তর | ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) – মাধ্যমিক ভূগোল সাজেশন | Madhyamik Geography Suggestion : 

1. ভারতে রাজ্য পুনর্গঠনের মূল ভিত্তি কী ছিল ।

Answer : ১৯৫৬ খ্রিস্টাব্দের ১ নভেম্বর রাজ্য পুনর্গঠন করা হয় প্রধানত ( ১ ) ভাষা , ( ২ ) সংস্কৃতি , ( ৩ ) প্রশাসনিক দক্ষতাবৃদ্ধি ( ৪ ) অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা ও ( ৫ ) প্রাকৃতিক ও ভৌগোলিক সাদৃশ্য – এর ওপর ভিত্তি করে । 

( ১ ) ভাষা : বহু ভাষাভাষী মানুষের দেশ ভারতবর্ষের বিস্তীর্ণ অঞ্চলে বসবাসকারী বিভিন্ন ভাষাভাষী মানুষের স্বার্থ রক্ষার কথা ভেবে , ১৯৫৬ খ্রিস্টাব্দে মূলত ভাষার ভিত্তিতে ভারতের রাজ্যগুলোর পুনর্গঠন করা হয় । ভারতের কোনো বিস্তীর্ণ অঞ্চলের অধিকাংশ মানুষ যে যে ভাষায় কথা বলেন , সেই সেই অঞ্চলগুলিকে রাজ্যের মর্যাদা দেওয়া হয় । যেমন – ওড়িয়া ভাষাপ্রধান অঞ্চলকে ওড়িশা , বাংলা ভাষাপ্রধান অঞ্চলকে পশ্চিমবঙ্গ কিংবা অসমীয়া ভাষাপ্রধান অঞ্চলকে অসম রাজ্যের মর্যাদা দেওয়া হয় । এই হিসেবে তেলুগু , পাঞ্জাবি , তামিল , কাশ্মীরি ভাষাপ্রধান অঞ্চলগুলি হল যথাক্রমে অন্ধ্রপ্রদেশ , পাঞ্জাব , তামিলনাড়ু , জম্মু – কাশ্মীর প্রভৃতি । 

( ২ ) সংস্কৃতি : এক – একটি বিশাল অঞ্চলের অধিবাসীদের ভাষা এক হলেও তাদের সামাজিক রীতিনীতি ও আচার অনুষ্ঠান , চিন্তাভাবনা , অনুশাসন , সংস্কার এবং আঞ্চলিক সংস্কৃতির পার্থক্য থাকায় প্রশাসনিক সুবিধার জন্য কোনো কোনো সময় বড়ো রাজ্য ভেঙে ছোটো রাজ্য করার প্রয়োজন অনুভূত হয় । ভাষা এক ( হিন্দি ) হলেও যেমন ( ক ) ঝাড়খণ্ড অঞ্চলের অধিবাসীদের সঙ্গে উত্তর বিহারের অধিবাসীদের চিন্তাভাবনা এক না – হওয়ায় বিহার রাজ্যকে ভেঙে ২ টি পৃথক রাজ্যে ( যেমন- বিহার ও ঝাড়খণ্ড ) পরিণত করা হয়েছে । ( খ ) উত্তরপ্রদেশের পাহাড়ি অঞ্চল উত্তরাঞ্চলের সঙ্গে এই রাজ্যে সমভূমিতে বসবাসকারী বাসিন্দাদের চিন্তাভাবনা , সংস্কার ও অনুশাসনের পার্থক্য থাকায় বর্তমানে উত্তরপ্রদেশ রাজ্যকে ভেঙে উত্তরপ্রদেশ ও উত্তরাঞ্চল , এই দুটি পৃথক রাজ্যে পরিণত করা হয়েছে । 

( ৩ ) প্রশাসনিক দক্ষতা বৃদ্ধি : ১৯৫৬ খ্রিস্টাব্দে মূলত ভাষার ভিত্তিতে ভারতের বিভিন্ন রাজ্যগুলোর পুনর্গঠন করা হলেও পরবর্তীকালে সবসময় এই নীতি অনুসরণ করা যায়নি যেমন— 

( ক ) প্রধান ভাষা হিন্দি হলেও উত্তরপ্রদেশ , বিহার , ঝাড়খণ্ড , মধ্যপ্রদেশ ও ছত্তিশগড়কে পাঁচটি পৃথক রাজ্যে পরিণত করা হয়েছে , কারণ— একটি রাজ্যের মর্যাদা পেলে হিন্দিভাষী ওই বিশাল রাজ্যের শাসনকার্য পরিচালনা করতে বিভিন্ন ব্যাপারেই অনেক প্রশাসনিক অসুবিধা এবং জটিলতার সৃষ্টি হত । এই জন্যই ওই হিন্দিভাষী বিশাল অঞ্চলকে পাঁচটি পৃথক রাজ্যে পরিণত করা হয় । 

( খ ) পশ্চিমবঙ্গ ও ত্রিপুরা রাজ্যে অধিবাসীদের প্রধান ভাষা বাংলা এবং এদের মিলিত আয়তন ভারতের অনেক একক রাজ্যের তুলনায় কম হলেও পশ্চিমবঙ্গ ও ত্রিপুরা রাজ্যের অবস্থান সম্পূর্ণ আলাদা ভৌগোলিক অঞ্চলে এবং এদের মাঝে রয়েছে অন্য একটি স্বাধীন রাষ্ট্র বাংলাদেশ । কাজেই ভাষা এক হলেও প্রধানত ভৌগোলিক বাধার জন্য একটি রাজ্য হিসেবে প্রশাসনিক কাজকর্ম চালানো অসম্ভব হত , তাই পশ্চিমবঙ্গ ও ত্রিপুরা দুটি পৃথক রাজ্যের মর্যাদা পেয়েছে । 

( ৪ ) অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা : ভারতের বিভিন্ন অংশে অর্থনৈতিক উন্নয়ন সমানভাবে ঘটাতে এবং উন্নয়নের পরিকল্পনা যথাযথ ভাবে গ্রহণ করতে রাজ্যগুলিকে পুনরায় ভাগ করা হয়েছে । এই কারণে উত্তরপ্রদেশ রাজ্য ভেঙে উত্তরাখণ্ড রাজ্যের সৃষ্টি হয়েছে । 

( ৫ ) প্রাকৃতিক ভৌগোলিক সাদৃশ্য : কোনো অঞ্চলের প্রাকৃতিক ভৌগোলিক সাদৃশ্যের বিভিন্নতা থাকলে অনেক ক্ষেত্রে তা আঞ্চলিক সংস্কৃতির পার্থক্যের ক্ষেত্রে প্রভাব বিস্তার করে এবং প্রশাসনিক জটিলতার সৃষ্টি হয় । এই জন্য ভারতের রাজ্য পুনর্গঠনের সময় প্রাকৃতিক ভৌগোলিক সাদৃশ্যের ওপরও লক্ষ রাখা হয়েছে । 

SAARC : SAARC শব্দের পুরো নাম হল- South Asian Association of Regional Co – operation | বাংলায় যাকে বলে ‘ দক্ষিণ এশিয়া আঞ্চলিক সহযোগীতা পরিষদ । ১৯৮৫ খ্রিস্টাব্দে দক্ষিণ এশিয়ার ভারত , পাকিস্তান , নেপাল , ভুটান , বাংলাদেশ , শ্রীলঙ্কা , মালদ্বীপ এবং আফগানিস্তান এই ৮ টি দেশ একত্রিত হয়ে এই সংস্থা গঠিত হয় । এর সদর শহর নেপালের কাঠমাণ্ডুতে অবস্থিত । এই সংস্থা স্থাপনের উদ্দেশ্য হল সদস্য দেশগুলির মধ্যে অর্থনৈতিক , বাণিজ্যিক ও সাংস্কৃতিক সহযোগিতা বৃদ্ধি ।

মাধ্যমিক সাজেশন ২০২৩ – Madhyamik Suggestion 2023

আরোও দেখুন:-

Madhyamik Bengali Suggestion 2023 Click Here

আরোও দেখুন:-

Madhyamik English Suggestion 2023 Click Here

আরোও দেখুন:-

Madhyamik Geography Suggestion 2023 Click Here

আরোও দেখুন:-

Madhyamik History Suggestion 2023 Click Here

আরোও দেখুন:-

Madhyamik Physical Science Suggestion 2023 Click Here

আরোও দেখুন:-

Madhyamik Life Science Suggestion 2023 Click Here

আরোও দেখুন:-

Madhyamik Mathematics Suggestion 2023 Click Here

FILE INFO : Madhyamik Geography Suggestion with PDF Download for FREE | মাধ্যমিক ভূগোল সাজেশন বিনামূল্যে ডাউনলোড করুণ | ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) – প্রশ্ন উত্তর – MCQ প্রশ্নোত্তর, অতি সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন উত্তর, সংক্ষিপ্ত প্রশ্নউত্তর, ব্যাখ্যাধর্মী, প্রশ্নউত্তর

PDF Name : মাধ্যমিক ভূগোল – ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) – সাজেশন | Madhyamik Geography Suggestion PDF

Price : FREE

Download Link1 : Click Here To Download

Download Link2 : Click Here To Download

পশ্চিমবঙ্গ মাধ্যমিক  ভূগোল পরীক্ষার সম্ভাব্য প্রশ্ন উত্তর ও শেষ মুহূর্তের সাজেশন ডাউনলোড। মাধ্যমিক ভূগোল পরীক্ষার জন্য সমস্ত রকম গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন। West Bengal Madhyamik  Geography Suggestion Download. WBBSE Madhyamik Geography short question suggestion. Madhyamik Geography Suggestion PDF  download. Madhyamik Question Paper  Geography. WB Madhyamik Geography suggestion and important questions. Madhyamik Geography Suggestion PDF.

Get the Madhyamik Geography Suggestion PDF by winexam.in

 West Bengal Madhyamik Geography Suggestion PDF  prepared by expert subject teachers. WB Madhyamik  Geography Suggestion with 100% Common in the Examination.

Class 10th Geography Suggestion

West Bengal Madhyamik  Geography Suggestion Download. WBBSE Madhyamik Geography short question suggestion. Madhyamik Geography Suggestion PDF  download. Madhyamik Question Paper  Geography.

মাধ্যমিক ভূগোল সাজেশন – ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) – প্রশ্ন উত্তর |  WB Madhyamik Geography  Suggestion

মাধ্যমিক ভূগোল (Madhyamik Geography) ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) – প্রশ্ন উত্তর

মাধ্যমিক ভূগোল সাজেশন | ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) 

মাধ্যমিক ভূগোল পশ্চিমবঙ্গ মাধ্যমিক বোর্ডের (WBBSE) সিলেবাস বা পাঠ্যসূচি অনুযায়ী  দশম শ্রেণির ভূগোল বিষয়টির সমস্ত প্রশ্নোত্তর। সামনেই মাধ্যমিক পরীক্ষা, তার আগে winexam.in আপনার সুবিধার্থে নিয়ে এল মাধ্যমিক ভূগোল সাজেশান – ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) – প্রশ্ন উত্তর । ভূগোলে ভালো রেজাল্ট করতে হলে অবশ্যই পড়ুন । আমাদের মাধ্যমিক ভূগোল

দশম শ্রেণির ভূগোল সাজেশন | ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়)

আমরা WBBSE মাধ্যমিক পরীক্ষার ভূগোল বিষয়ের – ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) – প্রশ্ন উত্তর – সাজেশন নিয়ে ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) – প্রশ্ন উত্তর নিয়ে ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়)চনা করেছি। আপনারা যারা এবছর দশম শ্রেণির ভূগোল পরীক্ষা দিচ্ছেন, তাদের জন্য আমরা কিছু প্রশ্ন সাজেশন আকারে দিয়েছি. এই প্রশ্নগুলি পশ্চিমবঙ্গ দশম শ্রেণির ভূগোল পরীক্ষা  তে আসার সম্ভাবনা খুব বেশি. তাই আমরা আশা করছি Madhyamik ভূগোল পরীক্ষার সাজেশন কমন এই প্রশ্ন গুলো সমাধান করলে আপনাদের মার্কস বেশি আসার চান্স থাকবে।

মাধ্যমিক ভূগোল সাজেশন – ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) – সাজেশন | Madhyamik Geography Suggestion PDF with FREE PDF Download

 মাধ্যমিক ভূগোল, মাধ্যমিক ভূগোল, মাধ্যমিক দশম শ্রেণীর, নবম শ্রেণি ভূগোল, দশম শ্রেণি ভূগোল, নবম শ্রেণি ভূগোল, দশম শ্রেণি ভূগোল, ক্লাস টেন ভূগোল, মাধ্যমিকের ভূগোল, ভূগোল মাধ্যমিক – ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়), দশম শ্রেণী – ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়), মাধ্যমিক ভূগোল ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়), ক্লাস টেন ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়), Madhyamik Geography – ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়), Class 10th ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়), Class X ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়), ইংলিশ, মাধ্যমিক ইংলিশ, পরীক্ষা প্রস্তুতি, রেল, গ্রুপ ডি, এস এস সি, পি, এস, সি, সি এস সি, ডব্লু বি সি এস, নেট, সেট, চাকরির পরীক্ষা প্রস্তুতি, Madhyamik Geography Suggestion , West Bengal Madhyamik Class 10 Geography Suggestion, West Bengal Secondary Board exam suggestion , WBBSE , মাধ্যমিক সাজেশান, মাধ্যমিক সাজেশান , মাধ্যমিক সাজেশান , মাধ্যমিক সাজেশন, মাধ্যমিক ভূগোল সাজেশান ,  মাধ্যমিক ভূগোল সাজেশান , মাধ্যমিক ভূগোল , মাধ্যমিক ভূগোল, মধ্যশিক্ষা পর্ষদ, Madhyamik Geography Suggestion Geography , মাধ্যমিক ভূগোল – ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) – সাজেশন | Madhyamik Geography Suggestion PDF PDF, মাধ্যমিক ভূগোল – ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) – সাজেশন | Madhyamik Geography Suggestion PDF PDF, মাধ্যমিক ভূগোল – ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) – সাজেশন | Madhyamik Geography Suggestion PDF PDF, মাধ্যমিক ভূগোল – ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) – সাজেশন | Madhyamik Geography Suggestion PDF PDF, মাধ্যমিক ভূগোল – ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) – সাজেশন | Madhyamik Geography Suggestion PDF PDF, মাধ্যমিক ভূগোল – ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) – সাজেশন | Madhyamik Geography Suggestion PDF PDF,মাধ্যমিক ভূগোল – ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) – সাজেশন | Madhyamik Geography Suggestion PDF PDF, মাধ্যমিক ভূগোল – ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) – সাজেশন | Madhyamik Geography Suggestion PDF, Madhyamik Class 10 Geography Suggestion PDF.

ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) – মাধ্যমিক ভূগোল সাজেশন | Madhyamik Geography Suggestion PDF

  এই ” মাধ্যমিক ভূগোল – ভারত : অবস্থান, প্রসনিক বিভাগ (ভারত – পঞ্চম অধ্যায়) – সাজেশন | Madhyamik Geography Suggestion PDF PDF ” পোস্টটি থেকে যদি আপনার লাভ হয় তাহলে আমাদের পরিশ্রম সফল হবে। আরোও বিভিন্ন স্কুল বোর্ড পরীক্ষা, প্রতিযোগিতা মূলক পরীক্ষার সাজেশন, অতিসংক্ষিপ্ত, সংক্ষিপ্ত ও রোচনাধর্মী প্রশ্ন উত্তর (All Exam Guide Suggestion, MCQ Type, Short, Descriptive Question and answer), প্রতিদিন নতুন নতুন চাকরির খবর (Job News in Geography) জানতে এবং সমস্ত পরীক্ষার এডমিট কার্ড ডাউনলোড (All Exam Admit Card Download) করতে winexam.in ওয়েবসাইট ফলো করুন, ধন্যবাদ।

Win exam telegram channel

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here